হবহু লতা মঙ্গেসকরের গলা, অসাধারণ গান গেয়ে রাতারাতি সেলিব্রিটি চাকদহের বিপাশা

223

ওয়েব ডেস্ক : বছর দুয়েক আগে রানাঘাটের রাণু মন্ডলের গান শুনে মুগ্ধ হয়েছিল গোটা দেশ। স্টেশনে বসে গান গাইতেন রাণু। লোকে গান শুনে খুশি হয়ে কিছু দানও করতেন। এভাবেই সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে তাঁর গাওয়া একটি গান ভাইরাল হওয়ায় রাতারাতি তিনি স্টার হয়ে যান। এমনকি কিছুদিনের মধ্যেই তিনি সাফল্যের শিখরে পৌঁছান। রাণু মন্ডলের গানে মুগ্ধ হয়ে মুম্বইয়ের জনপ্রিয় গায়ক হিমেশ রেশমিয়া তার সঙ্গে গানও করে ফেলেন একটি ছবিতে।

আরও পড়ুন -  ১৯জোড়া হাত মিলল গোপীবল্লভপুরের গনবিবাহ অনুষ্টানে

তবে শুধুমাত্র রাণু মন্ডল নন এখন সোশ্যাল মিডিয়ার নতুন সেনসেশন চাকদহের বিপাশা দাস। যেমন তার সুন্দর গলা তেমনই সুন্দর সুর৷ রানু মন্ডলে মতোই সোশ্যাল মিডিয়া দৌলতে ভাইরাল হয়েছেন চাকদহের বিপাশা দাস। অভাবের সংসারে কোনওদিন গান গাওয়ার সুযোগ হয়নি বিপাশা দেবীর৷ তবে গান না শিখেও ছোটোবেলা থেকেই অসম্ভব সুন্দর গানের গলা ছিল বিপাশার। কিন্তু তা সত্ত্বেও টাকার অভাবে মেয়েকে গান শেখাবার ক্ষমতা ছিল না তাঁর বাবার। কিন্তু চেষ্টা ছাড়েননি বিপাশা। তাঁর গানের গলা হবহু লতা মঙ্গেসকরের মতো। ছোটো থেকে শুনে শুনেই তিনি শিখেছেন এই গান।

গানের প্রতি তাঁর এতটাই ভালবাসা ছিল যে তিনি বিয়ে করেছিলেন এক খোল বাদককে। তারপর টিনের চালের ঘরে ছোট্ট সুখের সংসার। সন্তানদের বড় করা। পাড়ার মোড়ে ছোট্ট চায়ের দোকান চালিয়েই সংসার চলে বিপাশা দাসের। স্বামী মাঝে মধ্যে খোল বাজানোর বরাত পান। অবসর সময়ে দু’জনে মিলে মেতে ওঠেন গান চর্চায়। কিছুদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিপাশার গাওয়া গান শেয়ার হতেই তা মূহুর্তে ভাইরাল হয়। অভাবের সংসার সামলে গান না শিখেও বিপাশাদেবীর গানের প্রতি এত শ্রদ্ধা সত্যিই প্রশংসনীয়। প্রথাগতভাবে কোথাও গান না শিখেও যে এত ভাল গান করা যায় তা বিপাশাদেবীকে না দেখলে বোঝার উপায় নেই। তাঁর গান সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই রাতারাতি কয়েক লক্ষ শেয়ার হয়েছে। তাঁর প্রতিভার কদর করেছে গোটা দেশ।

হবহু লতা মঙ্গেসকরের গলা, অসাধারণ গান গেয়ে রাতারাতি সেলিব্রিটি চাকদহের বিপাশা 1