২০১২ সালের এসএসসি মামলায় বড়সড় ধাক্কা এসএসসি পরীক্ষার্থীদের, রাজ্যের যুক্তিকেই মান্যতা দিল কলকাতা হাইকোর্ট

503
২০১২ সালের এসএসসি মামলায় বড়সড় ধাক্কা এসএসসি পরীক্ষার্থীদের, রাজ্যের যুক্তিকেই মান্যতা দিল কলকাতা হাইকোর্ট 1

ওয়েব ডেস্ক : ২০১২ সালের এসএসসি মামলায় হাইকোর্টে বড়সড় ধাক্কা খেল এসএসসি চাকরিপ্রার্থীরা। হাইকোর্টের রায়ে ৭ বছর পর খারিজ হয়ে গেল এসএসসি প্রার্থীদের দায়ের করা মামলা। বুধবার রায় ঘোষণা করে রাজ্য সরকারের দাবিকেই সম্মতি দিল কলকাতা হাইকোর্ট। এদিন আদালতের তরফে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়, ৩৬১৪০ ‘কম্বাইন্ড মেরিট লিস্ট’ আসলে নিয়োগ তালিকা নয়।

প্রসঙ্গত, ২০১১-সালে বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর, সে বছরই ২৯ ডিসেম্বর রাজ্য সরকারের তরফে শিক্ষক নিয়োগের একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছিল। সেই বিজ্ঞপ্তির পর গোটা রাজ্য থেকে যে পরিমাণ আবেদন জমা পড়ে, তারমধ্যে থেকে ৩৬,১৪০ জনের একটি মেধা তালিকা প্রকাশ করে রাজ্য সরকার। সেই তালিকা থেকে ইতিমধ্যেই প্রায় ৩০০০০ শিক্ষককে নিয়োগ করা হলেও কম্বাইন্ড মেরিট লিস্টের বাকি ৬০০০ জনকে নিযুক্ত করা হয়নি। এই নিয়ে রাজ্য সরকারকে পরীক্ষার্থীদের তরফে বারংবার আবেদন করা হলেও সাড়া না মেলায় শেষমেশ পরীক্ষার্থীদের তরফে এই আবেদন নিয়েই মামলা দায়ের করা হয়।

২০১২ সালের এসএসসি মামলায় বড়সড় ধাক্কা এসএসসি পরীক্ষার্থীদের, রাজ্যের যুক্তিকেই মান্যতা দিল কলকাতা হাইকোর্ট 2

সেই সময় মামলাকারীদের অভিযোগ, রাজ্য সরকারের তরফে শীর্ষ আদালতে জানানো হয়েছিল যে কম্বাইন্ড মেরিট লিস্ট চূড়ান্ত মেধা তালিকা। তবে তা সত্ত্বেও পরবর্তীকালে কীভাবে অন্য একটি মেধা তালিকা প্রকাশ করা হয়? যদিও এই কম্বাইন্ড মেরিট লিস্ট নিয়ে পরবর্তীকালে রাজ্য সরকারের তরফে মামলাকারীদের বোঝানো হয়, মেধাতালিকা হলেও সেটি চূড়ান্ত নিয়োগ তালিকা নয়। এরপর দীর্ঘ ৭ বছর পর বুধবার এই মামলার রায় ঘোষণা করল কলকাতা হাইকোর্ট।

তবে এদিন রাজ্যের সেই যুক্তিকেই মান্যতা দিল কলকাতা হাইকোর্ট। এদিন কলকাতা হাইকোর্টে বিচারপতি রাজশেখর মান্থার রায়ে এসএসসি-র কম্বাইন্ড মেরিট লিস্ট মামলার নিষ্পত্তি হল। তবে আদালতের রায়ে একেবারেই খুশি নন পরীক্ষার্থীরা। এদিন তাদের পক্ষের আইনজীবী সুব্রত মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, এই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে তাঁরা ডিভিশন বেঞ্চে নয় বরং সরাসরি সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করতে পারেন।