দ্রুত ইন্টারনেট শেষ হয়ে যাওয়ার হাত থেকে মুক্তি পেতে কিছু ট্রিকস

305
Advertisement

টেক ডেস্ক: বিনোদন থেকে শুরু করে গেম, খবরের আপডেট সবটাই মুঠোফোনের মাধ্যমে পেয়ে যাই আমরা। তবে এই সব কিছুর জন্য শুধু স্মার্টফোন থাকলেই তো হবে না, এর জন্য চাই ইন্টারনেট। যদিও টেলিকম সংস্থাগুলি অনেক ভালো ভালো ডেটা প্ল্যান প্রোভাইড করছে, তা সত্ত্বেও অনেকেই অভিযোগ করে থাকেন ইন্টারনেট তাড়াতাড়ি শেষ হয়ে যায়। এর জন্য কিন্তু আমরাই অনেকাংশে দায়ী। কারণ আমরা মোবাইলে এমন কিছু সেটিং অন করে রাখি যেগুলি ব্যাকগ্রাউন্ডে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে থাকে।

Advertisement

আজ আমরা তাই এমন কিছু টিপস সম্পর্কে জানাবো যার মাধ্যমে আপনি নিজের ইন্টারনেট সাশ্রয় করতে পারবেন।

Advertisement
Advertisement

সবার প্রথমে, মোবাইলে ডাটা সেভার অন করুন। ডাটা সেভার অন থাকলে আপনার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে অতিরিক্ত নোটিফিকেশন আসবে না। পাশাপাশি ব্যাকগ্রাউন্ডে নেটওয়ার্ক শেষ হবে না। এর জন্য প্রথমে মোবাইলে সেটিংসে যান। তারপর নেটওয়ার্ক অ্যান্ড ইন্টার্নেট অপশন ট্যাপ করুন। তারপর ডেটা সেভার অপশনে ট্যাপ করুন। এখানে আপনি কিছু অ্যাপ্লিকেশন দেখতে পাবেন যেগুলি ব্যাকগ্রাউন্ডে ডাটা শেষ করতে পারে। সেই অ্যাপ অপশনগুলির টগল বাটন বন্ধ করে দিন। তাহলে আর ব্যাকগ্রাউন্ডে ডেটা নষ্ট হবে না।

দ্বিতীয়ত কাজ যেটা করতে হবে, তা হল অটো সিনকিং অফ করুন। গুগল ক্লাউড অটো সিনকিং-এর মাধ্যমে অনেক নেট শেষ হয়ে যায় এবং তা আপনার অজান্তেই। এটি অফ রাখলে আপনার নেট কম শেষ হবে। এর জন্য আপনি প্রথমে সেটিংসে যান। তারপর অ্যাকাউন্টস অপশনে ট্যাপ করে অটোমেটিক্যালি সিনক ডেটা ডিজেবল করে দিন।

তৃতীয়ত, ইউটিউব থেকে ইন্টারনেট প্রচুর শেষ হয়। ইউটিউবে যদি আপনি নেট সেভ করতে চান তা হলে ভিডিওর কোয়ালিটি একটু কমিয়ে রাখুন। এতে হয়তো আপনি এইচডি কোয়ালিটিতে ভিডিও দেখতে পারবেন না কিন্তু আপনার ইন্টারনেট অনেকটা সেভ হবে। আর ২৪০ বা ৩৬০- এ কোয়ালিটি করে রাখলেও খুব একটা খারাপ ছবি আসে না।

সবশেষে, গুগল প্লে স্টোরে অটো আপডেট বন্ধ করুন। গুগল প্লে স্টোরে এই অপশনটি অফ না রাখলে অ্যাপ্লিকেশন নিজের থেকে আপডেট হতে শুরু করে। এই আপডেটের সময় অনেকটা নেট নষ্ট হয়ে যায়। এই সেটিং বন্ধ করতে হলে আপনি প্রথমে গুগল প্লে স্টোর খুলুন। তারপর সেখান থেকে সেটিংসে যান। সেখানে অটো আপডেট অ্যাপস অপশনে ট্যাপ করুন। তারপর আসা ডায়ালগ বক্স থেকে ডোন্ট আপডেট অ্যাপস ফ্রম হেয়ার অপশনে ট্যাপ করে দিন।

এই উপায়গুলি অবলম্বন করলে আপনার ইন্টারনেট দ্রুত শেষ হয়ে যাওয়া নিয়ে যে অভিযোগ, তা কিছুটা হলেও কম হবে।