সবংয়ে পরীক্ষার্থীর গলায় ফাঁস লাগানো মৃতদেহ ঘিরে চাঞ্চল্য

241
সবংয়ে পরীক্ষার্থীর গলায় ফাঁস লাগানো মৃতদেহ ঘিরে চাঞ্চল্য 1
সবংয়ে পরীক্ষার্থীর গলায় ফাঁস লাগানো মৃতদেহ ঘিরে চাঞ্চল্য 2

নিজস্ব সংবাদদাতা:উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর গলায় ফাঁস লাগানো মৃতদেহ ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সবং থানার  নারায়ণবাড় অঞ্চলের অমরবার গ্রামে। শনিবার সকালে রাস্তার ধারে গাছে সুজিত মুনান(১৮) নামে খেপাল হাইস্কুলের ছাত্রের এক মৃতদেহ ঝুলতে দেখে এলাকাবাসী। সুজিতের বাড়ি ঘটনাস্থল থেকে তিন কিলোমিটার দুরে কাপাসদাতে।

সবংয়ে পরীক্ষার্থীর গলায় ফাঁস লাগানো মৃতদেহ ঘিরে চাঞ্চল্য 3

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
পরিবার সূত্রে জানা গেছে শুক্রবার  বিকেলে বাড়ি থেকে প্রাইভেট টিউশন পড়তে যাওয়ার নাম করে বেরিয়ে যায়। এরপরই এক বন্ধুর বাড়িও যায় সুজিত। রাতে সেখান থেকেই ভীমপুজা দেখতে যায় সে এবং রাতে বন্ধুর মোবাইল থেকে ফোন করে বাড়িতে জানায় যে সে বাড়ি ফিরবেনা বন্ধুর বাড়িতেই থেকে যাবে। যেহেতু সে বাড়ি ফিরবেনা জানিয়েছিল তাই বাড়ির লোক আর কোনো খবর নেয়নি।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
শনিবার সকালে কিছু লোক সুজিতের বাড়িতে জানায় যে খালের ওপারে অমরবাড়ে গাছ থেকে একটি ছেলেকে ঝুলতে দেখা গেছে যাকে সুজিত বলেই মনে হচ্ছে। এরপরই ঘটনাস্থলে ছুটে যায় সুজিতের পরিবারের লোকজন। আর গিয়ে সনাক্ত করে সুজিতকে। ঘটনার আকস্মিকতায় ভেঙে পড়ে সুজিতের পরিবার। সবং থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
মৃত ওই ছাত্রের পরিবারের দাবি পরিকল্পনামাফিক খুন করা হয়েছে। এবং কোনও রেষারেষি থেকেই এই ঘটনা। কিন্তু কি ধরনের রেষারেষি বা কার সাথে রেষারেষি তা কিছু বলতে পারেনি পরিবার। ঘটনায় কি কোনও প্রেম ঘটিত বিষয় নাকি অন্য কিছু রয়েছে তা তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। যে বন্ধুর মোবাইল থেকে সুজিত বাড়িতে ফোন করেছিল, মেলায় কতক্ষন ছিল, বন্ধুর বাড়িতে কতক্ষন সময় কাটিয়েছিল সে সবই খতিয়ে দেখছে পুলিশ।