কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘তৃতীয় মাঠে’র খোঁজে আইআইটি খড়গপুরের শাওন

188
কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে 'তৃতীয় মাঠে'র খোঁজে আইআইটি খড়গপুরের শাওন 1
কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে 'তৃতীয় মাঠে'র খোঁজে আইআইটি খড়গপুরের শাওন 2

নিজস্ব সংবাদদাতা: শুক্রবারই শুরু হচ্ছে ২৫তম  কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের আর রবিবারই নন্দন চত্বরের শিশির মঞ্চে প্রদর্শিত হতে চলেছে আইআইটি খড়গপুরের গবেষক পড়ুয়া শাওন কুমার বাগের ১৩মিনিটের ছবি ‘অফসাইড’,  পদার্থবিদ্যা নিয়ে গবেষণার ফাঁকে ফাঁকে যে ছবিতে একটা তৃতীয় মাঠের খোঁজে ২৬বছরের শাওন।


(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
আইআইটি খড়গপুরের ক্যাম্পাসেই আদ্যপান্ত শ্যুট ‘অফসাইড’ য়ে শাওন তাঁর ক্যামেরার মধ্য দিয়ে যে দুনিয়ার খোঁজ করেছেন সেই খোঁজ সংক্রামিত হয়েছে ২৫তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের কর্মকতাদের আর সে সংক্রমন এতটাই তীব্র যে আট দিন ধরে চলা এই উৎসবের ৩৬৬টি ছবির মধ্যে শাওনের খোঁজ জায়গা করে নিয়েছে অনায়াসেই।

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে 'তৃতীয় মাঠে'র খোঁজে আইআইটি খড়গপুরের শাওন 3
কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে 'তৃতীয় মাঠে'র খোঁজে আইআইটি খড়গপুরের শাওন 4

কিন্তু কি সেই খোঁজ যা আলোড়িত করেছেন আন্তর্জাতিক এই মহার্ঘ্য উৎসবের ছবি বাছাই কর্তাদের। কাচড়াপাড়ায় অদ্যন্ত বাঙালিয়ানায় বেড়ে ওঠা শাওন মহানগর আর শহরতলির অলিগলি পেরিয়ে আইআইটি কানপুর থেকে স্নাতকোত্তর করে গবেষনার জন্য চলে এলেন আইআইটি খড়গপুরে।


(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
মফঃস্বল আর শহর, নগর থেকে মহানগর এই বিস্তীর্ণ ক্ষেত্রে তিনি একটা খেলার মাঠ খুঁজে চলেছেন যেখানে পুরুষ আর মহিলার বাইরে থাকা সেই তৃতীয় লিঙ্গের মানুষটি খেলতে পারে। না, এ গল্প নিছকই কোনও বৃহন্নলা বা সমাজের দেগে দেওয়া ‘হিজড়া’র গল্প নয়। সে সব নিয়ে কাজ হয়েছে বিস্তর, হচ্ছেও।


(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
শাওনের কাজ অন্য জায়গাতে। শাওনের চরিত্র ‘শীতল’ যার চরিত্রে অভিনয় করেছেন আইআইটি খড়গপুরেরই বি.টেক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের তৃতীয় বর্ষের ইমন বর্মন সে তার ‘ভিখিরি’র পেশাতে নামার মুহূর্তে বারবার ফিরে তাকায় একটা ফুটবল মাঠের দিকে যেখানে তার ‘নো এন্ট্রি।’

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে 'তৃতীয় মাঠে'র খোঁজে আইআইটি খড়গপুরের শাওন 5

”এই তৃতীয় লিঙ্গের মানুষগুলোর এখনও মুলত একটাই পেশা এবং নানা রঙে সে পেশার একটাই চরিত্র, ভিক্ষা করা।বয়স সন্ধিক্ষণের আগেই তাঁদের এ পেশায় নেমে পড়তেই হয় কিন্তু তারও যে একটা খেলার দুনিয়া থাকতে পারে! এই দুনিয়ার সমস্ত খেলার মাঠ হয় পুরুষ নয় মহিলাদের জন্যই সংরক্ষিত। এখানে শীতলদের মাঠ ছেড়ে দেবে কে ?” বলেন শাওন।


(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
শীতল তার এক অগ্রজের হাত ধরে মাত্র ১৭/১৮বছরে নেমে পড়ে ভিখিরির পেশা নিয়ে কিন্ত ফুটবলে মাঠ তাকে হাতছানি দিয়ে ডাকে। মাঠের মধ্যে ড্রিবলিং , হেড, ব্যাকভলি তার শরীর ছুঁয়ে যায় কিন্ত সে মাঠে ঢুকতে পারেনা। শীতলের অগ্রজ যে ভুমিকায় রয়েছেন আইআইটির আরেক গবেষক পড়ুয়া অনামিত্র দাশগুপ্ত তারও আগ্রহ, সমবেদনা, উৎসাহ ঝুঁকে পড়ে শীতলের দিকে।


(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
আর এখানেই স্পষ্ট হয়ে ওঠে যে শীতলের খেলার মাঠের স্বপ্নটা কোনও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের বিছিন্ন, একক স্বপ্ন নয় এ স্বপ্ন ওই দুনিয়ার সবারই। যদিও পাড়ার কুকুরেরা যেমন তাদের এলাকায় অন্য কুকুরদের ঢুকতে দেয়না তেমন দুনিয়ার সমস্ত মাঠ পাহারা দিয়ে রাখে নারী অথবা পুরুষেরা। সেখানে শীতলদের নো এন্ট্রি। একদিকে পেশাতে নামার তাড়া অন্যদিকে খেলার মাঠের টান এই টানা পোড়েনের যন্ত্রণায় পুড়তে  থাকে অফসাইড, পুড়তেই থাকে।
                কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে 'তৃতীয় মাঠে'র খোঁজে আইআইটি খড়গপুরের শাওন 6
 চলচ্চিত্র নির্মানে শাওনের এটাই নতুন অভিজ্ঞতা না হলেও আন্তর্জাতিক উৎসবের ময়দানে অ-প্রতিযোগিতা বিভাগে সরাসরি ঢুকে পড়াটা যেমন তাঁর কাছে উত্তেজনার তেমনই উত্তেজনায় টগবগ করে ফুটছেন কেন্দ্রীয় চরিত্রে থাকা ইমন। তাঁর অভিনীত এটাই প্রথম ছবি যা রবিবার বিকেল ৪টা ১৫তে দেখানো হবে।


(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
ইমন , অনামিত্র ছাড়াও ছবির বাকি চরিত্রগুলিতে রয়েছেন রুচি ঝা , উদ্ধব কালিতা, সায়ন দাশগুপ্ত, শুভাংশি শর্মা, রজত কুমার সিনহা সহ প্রায় ১০জন যাঁরা প্রত্যেকেই আইআইটির পড়ুয়া মহলের। মার্চ এপ্রিলের ঝরা বসন্তে শাওন তাঁর লোকেশন বেছেও  নিয়েছেন আইআইটির শান্তিনিকেতন প্রতিম ক্যাম্পাসকেই। সেই ক্যাম্পাসের শাল মেহেগনি জারুলতলায়, জিমখানা পার্ক কিংবা লেক দেখে অনেক প্রাক্তনিরা নস্টালজিয়ায় আচ্ছন্ন হবেন।

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে 'তৃতীয় মাঠে'র খোঁজে আইআইটি খড়গপুরের শাওন 7


আপাতত পুরো টিম নিয়ে শাওন কলকাতার নন্দন চত্বরে চুটিয়ে আড্ডা দিচ্ছেন। শনি রবিবার খড়গপুর থেকে কলকাতায় পৌঁছে যাবেন আইআইটির আরও একঝাঁক ছেলে মেয়ে। সব মিলিয়ে কাউন্ট ডাউন শুরু হয়ে গেছে রবিবার বিকাল চারটা বেজে পনের মিনিটের জন্য।
  

Previous articleজীর্ণ মন্দিরের জার্নাল– ২১ ॥ চিন্ময় দাশ
Next articleরেকর্ড ছুঁতে চলেছে বুলবুল, ভয়ংকর বেগে ছুটে আসছে উপকুলে, গতিমুখ নিয়ে ধন্দে আবহাওয়াবিদরা, ভাসতে পারে খড়গপুর মেদিনীপুর