সিকিমের নাথুলায় ভারি তুষারপাত! আটকে পড়া প্রায় ৫০০ পর্যটককে উদ্ধার করল ভারতীয় সেনা

202
সিকিমের নাথুলায় ভারি তুষারপাত! আটকে পড়া প্রায় ৫০০ পর্যটককে উদ্ধার করল ভারতীয় সেনা 1
সিকিমের নাথুলায় ভারি তুষারপাত! আটকে পড়া প্রায় ৫০০ পর্যটককে উদ্ধার করল ভারতীয় সেনা 2

নিজস্ব সংবাদদাতা : সিকিমের ভারত-চীন সীমান্তবর্তী এলাকা নাথুলায় হঠাৎ করে শুরু হয়ে যাওয়া ভারী তুষারপাতে আটকে পড়া পর্যটকদের উদ্ধার করল ভারতীয় সেনা। হঠাৎ ভারী তুষারপাতের জেরে ভারত-চিন সীমান্তের উঁচু এলাকায় আটকে পড়েন বহু পর্যটক। এরপরই তাঁদের পাশে এসে দাঁড়ায় সেনাবাহিনী। বৃহস্পতিবার বিকালে ৪৭৭ জন পর্যটককে উদ্ধার করে নিরাপদ জায়গায় নিয়ে আসা হয়েছে বলে সেনা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন।

শুক্রবার সেনা মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট কর্নেল পি. খোংসাই জানিয়েছেন ১৫৫টি গাড়িতে আটকে রয়েছিলেন ওই ৪৭৭ জন পর্যটকরা। খোংসাই জানিয়েছেন, ‘হঠাৎই ভারি তুষারপাত শুরু হওয়ায় মোট ১৫কিলোমিটার রাস্তার বিভিন্ন জায়গায় পর্যটকরা আটকে পড়ে ছিলেন। তাঁদের গাড়ি গুলো ক্রমশ পিছলে যাচ্ছিল ফলে এগুতে বা পিছুতে পারছিলেন না তাঁরা। এরপরই সেনা উদ্ধারে নামে।’

সিকিমের নাথুলায় ভারি তুষারপাত! আটকে পড়া প্রায় ৫০০ পর্যটককে উদ্ধার করল ভারতীয় সেনা 3

খোংসাই আরও বলেন, “সেনার গাড়িতে উদ্ধার করে তাঁদের নিয়ে আসা হয়েছে ১৭মাইল মিলিটারি ক্যাম্পের ব্যারাকে। সেখানে তাঁদের খাদ্য, ওষুধ সবই সরবরাহ করছে সেনা। এদের মধ্যে ২৬জনকে সেনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে কারুরই অবস্থা গুরুতর নয়। ”

উল্লেখ্য নাথুলা হল বিশ্বের সর্বোচ্চ মোটরযানবাহী সড়ক যা সমুদ্র পৃষ্ট থেকে ১৪,৪৫০ ফুট উঁচুতে। এখানে গিয়ে আটকে পড়া পর্যটকদের উদ্ধার করাটা সেনা বাহিনীর বেশ ‘চ্যালেঞ্জিং’ কাজ যা কিনা প্রায়শই সেনাবাহিনীকে করে যেতে হয়।

এদিকে উদ্ধার হওয়া পর্যটকদের বিস্তৃত বিবরণ দিয়ে সিকিম সরকারের পক্ষ থেকে একটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। এই কন্ট্রোল রুম নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে সেনা কর্তৃপক্ষ এবং পর্যটকদের আত্মীয় স্বজনের সাথে। সমস্ত কিছুই বর্তমানে স্বাভাবিক বলে জানানো হয়েছে।