বাড়ছে সংক্রমণ! ৫ দিনের লকডাউনে বাঁকুড়ার ৩টি পুরসভা

43
image credit"istockphoto.com"

ওয়েব ডেস্ক : রাজ্যে করোনা সংক্রমণের হার ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যে সাপ্তাহিক লকডাউনের ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। একই সাথে রাজ্যের যেই জায়গাগুলিতে সংক্রমণের মাত্রা বেশি সেই এলাকাগুলিতে প্রয়োজন মনে হলে জেলা শাসক লকডাউন করতে পারে বলেই নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সে অনুযায়ী এবার লক ডাউনের পথে হাঁটলো বাঁকুড়া জেলা প্রশাসন। শুক্রবার এই বিষয়ে বাঁকুড়ার জেলাশাসক অরুণ প্রসাদ স্বাক্ষরিত একটি নির্দেশিকা জারি করেছেন। সেই নির্দেশিকা অনুযায়ী, বাঁকুড়ার ৩ পুরসভা অর্থাৎ বাঁকুড়া, বিষ্ণুপুর ও সোনামুখীতে আগামী ২৬ শে জুলাই, রবিবার বিকাল ৫টা থেকে ২৯ শে জুলাই, বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত সম্পূর্ণ লকডাউন জারি থাকবে। এরপর ফের ওই দিনই রাত ১০ টা থেকে পরদিন ৩০ জুলাই বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত ওই তিন পৌরসভায় লক ডাউন কার্যকরী থাকবে বলে জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন -  আফ্রিকা উপকূল থেকে ধেয়ে আসছে ধূলি ঝড়, আছড়ে পড়তে পারে আগামী মঙ্গলবার

অন্যদিকে, করোনাভাইরাস সংক্রমণের পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্যে সপ্তাহে দুদিন করে লকডাউনের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হয়েছে। ফলে চলতি সপ্তাহে বৃহস্পতিবারের পর শনিবারও রাজ্যজুড়ে চলছে লকডাউন। এদিন রাজ্যের সর্বত্রই পথঘাট কার্যত ফাঁকা। জরুরি পরিষেবা ছাড়া প্রায় সবই বন্ধ। এমনকি বন্ধ বাজার ও মুদি দোকানও। তবে লোক যে একেবারেই বাইরে বেরোচ্ছে না তা কিন্তু নয়। লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে রাস্তাঘাটে অতি সক্রিয় পুলিশ প্রশাসন। রাস্তায় বেরোলেই তাঁদের বারবার পুলিশি জেরার মুখে পড়তে হচ্ছে। জবাবে সন্তুষ্ট না-হলে কোথাও পুলিশ গ্রেফতার করেছে, কোথাও আটক। অনেক অসচেতন ব্যক্তিকে মাস্ক ছাড়াও রাস্তায় বেরোতে দেখা গিয়েছে তাদের ক্ষেত্রে কড়া ব্যবস্থা নিয়েছে পুলিশ।

অন্যদিকে, সাপ্তাহিক লকডাউনের দিনগুলিতে অন্যান্য পরিবহনের পাশাপাশি কলকাতা বিমানবন্দরে উড়ান ওঠানামা বন্ধের জন্য কেন্দ্রকে আর্জি জানিয়েছিল রাজ্য। রাজ্যের এই আর্জিতে সায় দিল কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহন মন্ত্রক। এরপরই কলকাতা বিমানবন্দরের তরফে জানানো হয়েছে, যেহেতু রাজ্য সরকারের তরফে আগামী শনিবার এবং বুধবার লকডাউনের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সেহেতু এই দু’দিন কলকাতায় কোনও বিমান ওঠানামা করবে না। সেমত সাপ্তাহিক লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে কার্যত সুনসান বিমানবন্দর চত্বর।

আরও পড়ুন -  সুবর্নরেখার কথা -১২ ।। উপেন পাত্র

প্রসঙ্গত, যেহেতু রাজ্যে সংক্রমণের মাত্রা ক্রমশ বাড়ছে সে কারণে আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত করোনাভাইরাস প্রভাবিত ছ’টি শহর – দিল্লি, মুম্বই, পুণে, চেন্নাই, নাগপুর এবং আমদাবাদ থেকে কলকাতায় উড়ান না নামার সিদ্ধান্ত আগেই নিয়েছিল রাজ্য সরকার। এবারও সপ্তাহে দু’দিন লকডাউনের সময় কলকাতায় উড়ান ওঠানামার বন্ধ রাখার কথা বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু বৃহস্পতিবার উড়ান পরিষেবা সচল থাকলেও শেষমেশ রাজ্যের আর্জিতে সায় দেয় কেন্দ্র। শুক্রবার বিমানবন্দ আধিকারিকরা জানান, আগামী শনিবার এবং বুধবার কলকাতায় কোনও বিমান ওঠানামা করবে না। তবে যেহেতু সাপ্তাহিক লকডাউন, সেক্ষেত্রে পরের লকডাউনের দিনগুলিতে বিমান ওঠানামা করবে কিনা, তা বিমান কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়নি। তবে যদি আগস্টেও সাপ্তাহিক লকডাউন প্রক্রিয়া চলে তবে ফের বিমান বন্ধ রাখার আর্জি জানানো হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

বাড়ছে সংক্রমণ! ৫ দিনের লকডাউনে বাঁকুড়ার ৩টি পুরসভা 1