খড়গপুরে দিনে দুপুরে ১০লক্ষ টাকা লুটের নাটক ফাঁস করল পুলিশ, গ্রেপ্তার ২

218
Advertisement

নিজস্ব সংবাদদাতা:নিখুঁত চিত্রনাট্য সাজিয়েও শেষ রক্ষা হলনা এক নির্মাণ সামগ্রী সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজারের। সহযোগীকে দিয়ে খড়গপুর শহরের ব্যস্ততম রাস্তায় দিনে দুপুরে ১০লক্ষ টাকা ছিনতাই করিয়ে ধরা পড়ে গেল ওই দুই অভিনেতা ম্যানেজার ও তার সহযোগী।

Advertisement

Advertisement
Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
গত ১৮ডিসেম্বর বুধবার দুপুরবেলা বিদ্যাসাগর তালুকের সামনেই ওটি রোডের ওপর ১০লক্ষ টাকা ছিনতাই হয়েছে বলে পুলিশে আভিযোগ দায়ের করেন এক নির্মানসামগ্রী সরবরাহকারী সংস্থার মালিক অভিষেক জিন্দাল। সংস্থার অফিস শিল্প তালুকের মধ্যেই। মুলত রশ্মি মেটালিকসে সামগ্রী সরবরাহকারী সংস্থার মালিক জিন্দাল পুলিশকে জানান তাঁর সংস্থার ম্যানেজার অমিরুল ইসলাম ওই টাকা নিয়ে আসছিলেন সামগ্রী সরবরাহকারী লরির চালক, খালাসী ও শ্রমিকদের পেমেন্ট করার জন্য।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
তখনই এক ব্যক্তি বাইকে থাকা আমিরুলের টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে চলে যায়।      খড়গপুর পুলিশের এক তদন্তকারী আধিকারিক জানান, ‘তদন্তে নেমে আমরা ওই ম্যানেজার ও তার বাইকে থাকা আরেক কর্মচারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে কিছু অসংগতি পাই। যেমন, চলতি বাইক থেকে টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়া স্বত্ত্বেও কেউই বাইক থেকে পড়ে যায়নি। এরপরই ওই ম্যানেজারের মোবাইলের কল লিস্ট পরীক্ষা করে একটি সন্দেহ জনক নম্বর পাওয়া যায় যার সঙ্গে লাগাতার কথা বার্তা হয়েছিল ম্যানেজার আমিরুলের।

এরপর ওই নম্বর ধরে লোকেশন ট্র্যাক করে পুলিশ জানতে পারে যে বীরভূমের মহম্মদ বাজারের ওই বাসিন্দা ঘটনার আগের দিন খড়গপুর শহরেই অবস্থান করছিল। পশ্চিম মেদিনীপুর পুলিশ সুপার  দিনেশ কুমার শনিবার সন্ধ্যায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে জানান, এরপরই পুলিশের একটি দল রওনা হয়ে যায় মহম্মদবাজারে। ওই মোবাইলের মালিক শেখ আব্বাসকে  আটক করে নিয়ে আসা হয়।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
এরপরই জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা যায় চাঞ্চল্যকর তথ্য । জানা যায়, আমিরুল ও আব্বাস একই এলাকার বাসিন্দা। আমিরুলই আব্বাসকে জানিয়েছিল যে সে এমন একটি সংস্থার ম্যানেজার যাকে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ টাকা   বিভিন্ন জায়গায় দেওয়া নেওয়া করতে হয়। এরপরই যায় আব্বাস তখন আমিরুল নিয়ে এই ছিনতাইয়ের নাটক রচনা করেছিল। যদিও পুলিশের তৎপরতায় সেই নাটক ভেস্তে গেল মাত্র কয়েকঘন্টায়।  উদ্ধার হয়েছে প্রায় পুরো টাকাটাই।