১৫০ ছুঁয়ে খড়গপুর, রেলেই শুধু ৮৫! জেলায় দৈনিক সংক্রমন ৩৬৬, মেদিনীপুর ৫০, বেলদা, পিংলা, ঘাটাল মহকুমায় সংক্রমন বহাল, ডেবরা, শালবনী, গড়বেতায় কমল আক্রান্ত

The daily transition in the city of Kharagpur took a deadly turn on April 29. The maximum number of infections increased from 100 to 150. In the meantime, 65 people from railway workers and their families have been affected. Thirteen people from IIT-Kharagpur and the rest of the victims are in different areas of the city. The highest number of victims in Kharagpur city was found from Inda area. The victims are from Inda, Kamalakebin, Durgamandir, Inda Boys School, Inda Saratpalli, Inda Sardapalli and South Inda. A total of 9 people were affected in Talbagicha and DVC Mayapur. Of these, 4 are in Talbagicha. 9 people affected in Malch area. Apart from the railway accommodation, the victims are from Malancha, Malancha Road, Vivekanandapalli, Chandipur and Dhekia of Malancha area. 5 victims have been found in the area of ​​Prembazar Hijli Cooperative Society. Four victims were found in Kharida including its Rajgram and Sardapalli. Kaushalya and IIT campuses. 3 people were affected in North Bhabanipur and Khidirpur including Nimpura. 2 each new cases were reported in Srikrishnapur, Bhagwanpur, Barbetia and Jhapetapur areas. The rest of the victims, including residents of various railway residences across the city and others from Rabindrapalli, Nayapara, Girimoydan, Arambati, Purigate, Sonamukhi, Chhota Tangra and Babulain areas. New cases also found Ghagra, Rautmani, Jagannathpur Amadai, West Amba, Gourangchak, Mawa, Krishnapur and Salua EFR areas of rural Kharagpur.

194
১৫০ ছুঁয়ে খড়গপুর, রেলেই শুধু ৮৫! জেলায় দৈনিক সংক্রমন ৩৬৬, মেদিনীপুর ৫০, বেলদা, পিংলা, ঘাটাল মহকুমায় সংক্রমন বহাল, ডেবরা, শালবনী, গড়বেতায় কমল আক্রান্ত 1

নিজস্ব সংবাদদাতা: ২৯ শে এপ্রিল লাফ দিয়ে মারাত্মক আকার নিল খড়গপুর শহরের দৈনিক সংক্রমন। সর্বোচ্চ সংক্রমন ১০০ থেকে এক লাফে ১৫০ পৌঁছে গেল। আর এরই মধ্যে শুধু রেল কর্মী এবং তাঁদের পরিবার থেকেই আক্রান্ত হয়েছেন ৮৫ জন। আইআইটি-খড়গপুর থেকে ১৩জন এবং বাকি আক্রান্তরা শহরের বিভিন্ন এলাকায়।
খড়গপুর শহরের সর্বাধিক আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে ইন্দা এলাকা থেকে। পারিবারিক সংক্রমন সহ এই আক্রান্তরা হলেন ইন্দা,কমলাকেবিন, দুর্গামন্দির, ইন্দা বয়েজস্কুল, ইন্দা শরৎপল্লী, ইন্দা সারদাপল্লী ও দক্ষিণ ইন্দা থেকে।

১৫০ ছুঁয়ে খড়গপুর, রেলেই শুধু ৮৫! জেলায় দৈনিক সংক্রমন ৩৬৬, মেদিনীপুর ৫০, বেলদা, পিংলা, ঘাটাল মহকুমায় সংক্রমন বহাল, ডেবরা, শালবনী, গড়বেতায় কমল আক্রান্ত 2

মোট ৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন তালবাগিচা ও ডিভিসি মায়াপুরে। এরমধ্যে তালবাগিচায় ৪জন। মালঞ্চ এলাকায় আক্রান্ত ৯ জন। রেলের আবাসন ছাড়া আক্রান্তরা হলেন মালঞ্চ, মালঞ্চ রোড, বিবেকানন্দপল্লী, চন্ডীপুর, ঢেকিয়া এলাকার। ৫ আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে প্রেমবাজার হিজলী সমবায় সমিতির এলাকায়। ৪জন করে আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে রাজগ্রাম, সারদাপল্লী সহ খরিদা, কৌশল্যা, আইআইটি ক্যাম্পাসে। ৩জন করে আক্রান্ত উত্তর ভবানীপুর ও খিদিরপুর সহ নিমপুরায়। শ্রীকৃষ্ণপুর, ভগবানপুর, বারবেটিয়া ও ঝাপেটাপুর এলাকায় ২জন করে নতুন আক্রান্ত।

১৫০ ছুঁয়ে খড়গপুর, রেলেই শুধু ৮৫! জেলায় দৈনিক সংক্রমন ৩৬৬, মেদিনীপুর ৫০, বেলদা, পিংলা, ঘাটাল মহকুমায় সংক্রমন বহাল, ডেবরা, শালবনী, গড়বেতায় কমল আক্রান্ত 3

শহর জুড়ে রেলের বিভিন্ন আবাসনের বাসিন্দা সহ বাকি আক্রান্তরা হলেন রবীন্দ্রপল্লী, নয়াপাড়া, গিরিময়দান, আরামবাটি, পুরিগেট, সোনামুখী, ছোট ট্যাংরা, বাবুলাইন এলাকার।গ্রামীন খড়গপুরের ঘাগরা, রাউৎমনি, জগন্নাথপুর আমদই, পশ্চিম আম্বা, গৌরাঙ্গচক, মাওয়া, কৃষ্ণপুর এবং সালুয়া ইএফআর এলাকার।

এদিন মেদিনীপুর শহরে আক্রান্ত প্রায় ৭০জন । শহরের একাধিক জন আক্রান্ত হয়েছেন ধর্মা, কুইকোটা, হবিবপুর, আবাস, তোড়াপাড়া, অশোকনগর, বিধাননগর, শরৎপল্লী, পালবাড়ি এলাকায় যেখানে আক্রান্ত ৪ থেকে ২জন করে। একজন করে আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে জগন্নাথমন্দির, ছোটবাজার, স্কুলবাজার, নজরগঞ্জ, তলকুই, দেওয়ানবাবার চক, গোলাপিচক, দাতাবাবার চক, অরবিন্দনগর, রাঙামাটি, পাটনাবাজার, মির্জাবাজার, মাইকেল মধুসূদন নগর, সুজাগঞ্জ এলাকায়। শহরে বসবাস করেন এমন ২৪জনের সুনির্দিষ্ট ঠিকানা উল্লেখ করা হয়নি। মেদিনীপুর সদরে ঝরিয়া,মমতাবেড়িয়া, চাঁপাশোল, মুড়াভাঙা, গোপগড় ও খয়েরউল্লাচকে আক্রান্ত বেশ কয়েকজন।

খড়গপুর মহকুমার পিংলার পূর্নগ্রাম, গোবর্ধনপুর, খাঁদিচক, কাঁটাপুকুর, নুনগোদার, শালিগ্রাম ও পদিমায় ৮ জন আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। ডেবরার রাধামোহনপুর, সুন্দরপুর, বরাগড় ও গোলগ্রাম থেকে মিলেছে ৪ আক্রান্তের খোঁজ। সবংয়ের পানপাড়া, তিলন্তপাড়া, বলরামপুরে আক্রান্ত ৩।

বেলদা থানা এলাকার শ্যামসুন্দরপুর সাউরি, জাহালদা পোরলদা, সুসিন্দা সুরজপল্লী, বাঁশগেড়িয়া শালুকায় আক্রান্ত মিলেছে। মোহনপুরের আক্রান্তরা হলেন মোহনপুর, কেওটখলিসা, নিলদা, মহিষমুন্ডা, গোটসনডা, নেঘা ও পুরুনিয়া গ্রামের। কেশিয়াড়ীর মুড়াকাটা, এলাসাই, বেগমপুর ও মুড়াকাটা কূটকি মিলিয়ে আক্রান্ত ৫ জন।
মেদিনীপুর সদর মহকুমায় গড়বেতায় আক্রান্ত ১১জন। এরমধ্যে বামনিশোল ও গনকবাঁধে একই পরিবারের ৪জন করে আক্রান্ত। বাকি সংক্রমিতরা আঁধারনয়ন, হলদিনালা, করমাশোল এলাকার। গোয়ালতোড়ের মানিকদ্বীপা, চাতনি, সাতসুজুরি, উমরপোতা, কদমডিহাতে ১জন করে আক্রান্ত। শালবনীর ট‍্যাঁকশাল ও শালবনী সদরে ৪ জন করে আক্রান্ত ছাড়া নতুন করে ছাতনিতে এক আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে। কেশপুর সদরেই আক্রান্ত ৩জন, বাকি আক্রান্ত আনন্দপুরের।

ঘাটাল মহকুমার ৩টি থানা এলাকা থেকে প্রায় ৭৫ জন আক্রান্ত পাওয়া গেছে।ঘাটাল থানায় সর্বোচ্চ সংক্রমন মিলেছে কুশপাতা থেকেই, আক্রান্ত ৬জন। গোপমহল, কোন্ননগরে আক্রান্ত ২ জন করে। এছাড়া শ্যামসুন্দরপুর, পিতপুর, ডিহিরামনগর, বাঙালিতলা আমদরনগর, যশবন্তনগর, দলপতিপুর, কিসমৎ শ্যামনগর, মোহনপুর, লছিপুর, রাইপুর, হরিকৃষ্ণপুর ও চাউলি থেকে আক্রান্ত পাওয়া গেছে।
চন্দ্রকোনার ক্ষীরপাই থেকে ১০জন আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। রাজগঞ্জে ৪জন ও মানিককুন্ডুতে আক্রান্ত ২জন। এছাড়া জয়ন্তীপুর, মিত্রসেনপুর, ঘনরামপুর, মালেশ্বরপুর, দক্ষিণবাজার, সিরসা, গোবিন্দপুর, মৌলা পরমানন্দপুর, বামারিয়া ও বেলডাঙ্গা থেকে নতুন করে আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেছে।

এদিন দাসপুর সদর থেকে মিলেছে তিনজন আক্রান্ত। শ্যামসুন্দরপুরে আক্রান্ত ২। আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেছে করুনাচক, গোপালপুর, জোতঘনশ্যাম, বৈকুণ্ঠপুর, শংকরপুর, চাইপাট, রবিদাসপুর, নাড়াজল, সিমলা, ভূঁইয়াআড়া, কেলেগোদা, ভগবতীপুর, সুরনারায়নপুর, শিমুলপুর থেকে।

Previous articleবাতিল হল একাদশ শ্রেণির পরীক্ষা!নিজের স্কুলেই উচ্চমাধ্যমিক হবে এই বছর
Next articleকোভিড রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও চিকিৎসা চলবে রোগীর, ফেরাতে পারবেনা কোনও হাসপাতাল, নির্দেশ রাজ্য সরকারের