একুশতম বইমেলার হাত ধরেই যেন শীত ফিরল খড়গপুরে, করোনা ক্রান্তিকাল পেরিয়ে উৎসবের মেজাজে খড়গপুর

646
একুশতম বইমেলার হাত ধরেই যেন শীত ফিরল খড়গপুরে, করোনা ক্রান্তিকাল পেরিয়ে উৎসবের মেজাজে খড়গপুর 1

একুশতম বইমেলার হাত ধরেই যেন শীত ফিরল খড়গপুরে, করোনা ক্রান্তিকাল পেরিয়ে উৎসবের মেজাজে খড়গপুর 2অচিন্ত্য ত্রিপাঠী : হঠাৎ করেই গুম হয়ে যাওয়া শীত ফিরল খড়গপুর শহরে, ফিরল যেন ২১তম খড়গপুর বইমেলার হাত ধরেই। জানুয়ারি মাসের দ্বিতীয় শনিবার মানেই খড়গপুর বইমেলার উদ্বোধন। গত ২দশক ধরেই এটাই রেওয়াজ আর তার সঙ্গে রেওয়াজ হল শীতের দুপুর গড়িয়ে হিমেল আমেজের সাথে টাউনহলের বইমেলা প্রাঙ্গণ। যদিও গত কয়েকদিন ধরেই হঠাৎ উবে গিয়েছিল শীত। চড়চড় করে উঠতে শুরু করে পারদ। দারুন অস্বস্তি কাজ শুরু করতে করেছিল কিন্তু শনিবার দুপুর থেকেই উত্তুরে বাতাস বইতে শুরু করে। আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, পশ্চিমী ঝঞ্ঝা কেটে গিয়েছে, ফের ঠান্ডা আসছে। খুশির এই খবরের মধ্যেই উদ্বোধন হয়ে গেল ২১তম বইমেলার।

এবারের বইমেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কবি মৃদুল দাশগুপ্ত ও পবিত্র মুখোপাধ্যায়। উদ্বোধনী সঙ্গীত পরিবেশন করে শহরের বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী সৌমেন চক্রবর্তীর নেতৃত্বাধীন ‘গীতালি’র শিল্পীরা।২০ তম খড়গপুর বইমেলা শেষ হওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই সারা দেশের সাথে খড়গপুর শহরেও ঝাঁপিয়ে পড়ে অতিমারির প্রকোপ। করোনা সংক্রমনে ত্রস্ত শহর দেখেছে শয়ে শয়ে আক্রান্ত আর চোখের জলে বিদায় দিয়েছে প্রিয়জনদের। তারপর আর সেই অর্থে কোনও উৎসব দেখেনি শহর। ফের ২১তম বইমেলায় আবার দেখা! উদ্বোধন পর্বে বাংলার দুই কবি যেমন বইয়ের প্রাসঙ্গিকতা বলেছেন, বলেছেন এই দীর্ঘ লকডাউন কাটিয়ে উঠতে বই কিভাবে মানুষের সঙ্গি হয়েছে ঠিক তেমনই বইয়ের প্রাসঙ্গিকতা বলেছেন খড়গপুরের নতুন এসডিপিও দীপক সরকার। সাহিত্যিক অতীন বন্দ্যোপাধ্যায়ের নীলকন্ঠ পাখির খোঁজে মত বই কিভাবে বাংলার সাম্প্রদায়িক সম্প্রতিকে দৃঢ় করতে পারে, সম্প্রদায়ে সম্প্রদায়ে মেল বন্ধন ঘটাতে পারে তাইজানিয়েছেন তিনি।

একুশতম বইমেলার হাত ধরেই যেন শীত ফিরল খড়গপুরে, করোনা ক্রান্তিকাল পেরিয়ে উৎসবের মেজাজে খড়গপুর 3

এবারের বই মেলার লিটিল ম্যাগাজিন প্যাভেলিয়ানের নামকরণ করা হয়েছে শহরের বিশিষ্ট প্রয়াত নাট্যশিল্পী অমিতাভ বসুর স্মরণে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানকে অলঙ্কৃত করেছেন শহরের দুই কবি সুনীল মাঝি, ভবেশ বসুর মত প্রোথিতযশা ব্যক্তিরা। ছিলেন সাহিত্যিক ও বিজ্ঞানের অধ্যাপক তপন পাল, নন্দদুলাল রায় চৌধুরী। বইমেলা কমিটির পক্ষে দেবাশিস চৌধুরী আগামী কয়েকটা দিন খড়গপুরবাসীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন টাউনহলের বইমেলা প্রাঙ্গনে।

আগামী ১৫ই জানুয়ারি অবধি চলা বইমেলায় এবার ইমন চক্রবর্তী, শ্রাবনী সেন, পর্ণাভ ব্যানার্জী, ঋষি ও উর্মি চক্রবর্তীরা থাকছেন সঙ্গীতের ডালি নিয়ে। লোকসঙ্গীত বাউল নিয়ে আসছেন নদীয়া করিমপুরের নূর আলম ফকির। বর্তমান সময়ে সংবাদমাধ্যমের বিশ্বাসযোগ্যতা যে প্রশ্ন উঠেছে তাই নিয়ে আলোচনায় থাকছেন দুই বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব অধ্যাপক সুমহান বন্দ্যোপাধ্যায় ও সাংবাদিক অমিতাভ সিরাজ।

১০ই জানুয়ারি দুই মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামের শতাধিক কবি সাহিত্যিক আমন্ত্রিত হয়েছেন সাহিত্য সম্মেলনে। খড়গপুর শহরের বিভিন্ন শিল্পী ও শিল্পী সংস্থাকে বইমেলা কমিটি অনুষ্ঠানের জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। করোনা কাল পেরিয়ে ফের উৎসবে মাততে চলেছে শহর কিন্তু মেলা কমিটি স্পষ্টত জানিয়ে দিয়েছেন, মাস্ক এবং সামাজিক দূরত্ব কঠোর ভাবে মেনে চলতে হবে আগত মানুষজনকে।