মাস্ক পরুন, বার বার হাত ধুতে থাকুন! ভয়াবহ সংক্রমিত খড়গপুর শহরের রাস্তায় নামল আমরা বামপন্থী

653
মাস্ক পরুন, বার বার হাত ধুতে থাকুন! ভয়াবহ সংক্রমিত খড়গপুর শহরের রাস্তায় নামল আমরা বামপন্থী 1

মাস্ক পরুন, বার বার হাত ধুতে থাকুন! ভয়াবহ সংক্রমিত খড়গপুর শহরের রাস্তায় নামল আমরা বামপন্থী 2নিজস্ব সংবাদদাতা: বেশিরভাগ রাজনৈতিক দল যখন ২রা মে ভোটের বাক্সের ফলাফল বেরুনোর অপেক্ষায় ঠান্ডা ঘরে বসে রয়েছে তখন করোনা সচেতনতা প্রচারে খড়গপুর শহরের রাস্তায় পড়ে রয়েছে ‘আমরা বামপন্থী।’ প্রশাসনিক জটিলতায় দিনের পর দিন মর্গে পড়ে থাকা দেহ সৎকারে প্রশাসনকে নিজের ভূমিকা সম্পর্কে সজাগ করা কিংবা আরও ভ্যাকসিন প্রদান কেন্দ্র বাড়িয়ে জনগনের হয়রানি বন্ধ করা থেকে করোনা বাড়াবাড়ি কালে খড়গপুর শহরের রাস্তায় দেখা গিয়েছে আমরা বামপন্থীকে। শনিবার ফের তাদের রাস্তায় নামতে দেখল শহর।

মাস্ক পরুন, বার বার হাত ধুতে থাকুন! ভয়াবহ সংক্রমিত খড়গপুর শহরের রাস্তায় নামল আমরা বামপন্থী 3

শনিবারই খবর এসেছে দৈনিক সংক্রমনে সেঞ্চুরি করেছে শহর। গত এক সপ্তাহেই তিনশ পেরিয়ে গেছে আক্রান্তের সংখ্যা। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে শহরে মৃত্যুও হয়েছে প্রায় ১০ জনের। এমনই ভয়ঙ্কর অবস্থা থেকে শহরকে বাঁচাতে একটাই রাস্তা করোনা বিধি মেনে চলতে জন সচেতনতা তৈরি করা। এ কাজ একা পুলিশ আর প্রশাসনের পক্ষে সম্ভব নয়। প্রয়োজন রাজনৈতিক দল, ক্লাব, বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবি সংগঠনগুলির রাস্তায় নামা। এলাকায় এলাকায় নিবিড় প্রচার গড়ে তোলা। সেই কাজটাই করছেন ‘আমরা বামপন্থী’ খড়গপুরের সদস্যরা।

মাস্ক পরুন, বার বার হাত ধুতে থাকুন! ভয়াবহ সংক্রমিত খড়গপুর শহরের রাস্তায় নামল আমরা বামপন্থী 4

শনিবার তাঁদেরকেই দেখা গেল বিএনআর মাঠে সরে আসা সবজি বাজারের ক্রেতা বিক্রেতাদের করোনা বিধি নিয়ে সচেতনতার প্রচার করতে। শহরের অতি পরিচিত সমাজসেবী মুখ অনিল দাস ওরফে ভীমের নেতৃত্বে এদিন সবজি বাজারের সবজি বিক্রেতাদের কাছে পৌঁছে দেওয়া হল মাস্ক এবং হাত ধোয়ার সাবান। বিক্রেতাদের এদিন বলা হয় মাস্ক পরলেই তিনি যেমন করোনা আক্রান্ত ক্রেতার হাত থেকে বাঁচতে পারেন তেমনি তাঁরা বাঁচাতে পারেন তাঁদের পরিবারকে। অন্যদিকে ক্রেতাদের বোঝানো হল ভয়ঙ্কর সংক্রমনের এই শহরে নিজের অজান্তেই বাজারে আসছেন আক্রান্ত ক্রেতা এবং বিক্রেতারা। পরস্পর সংক্রমন বা করোনা চেইন ভাঙতে মাস্কের কোনও বিকল্প নেই।

শুধু তাই নয়, শনিবারের এই কর্মসূচির অঙ্গ হিসাবে ক্রেতা ও বাজারে থাকা দোকানদারদের মাক্স ও সাবান বিলি করে করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে মানুষকে সচেতন করা হয়। এই করোনা সচেতনতা প্রচারের পাশাপাশি আমরা বামপন্থীর পক্ষ থেকে রাজ্য সরকারের কাছে দাবী করা হয়, খড়গপুরে করোনাতে আক্রান্ত রোগীদের উপযুক্ত চিকিৎসার ব্যবস্থা রাজ্য ও রেল প্রশাসনকে করতে হবে। সমস্ত মানুষকেই বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দিতে হবে। খড়গপুরে আরও ভ্যাকসিন কেন্দ্র বাড়িয়ে প্রতিদিন ভ্যাকসিন দিতে হবে। শনিবারের এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন ‘আমরা বামপন্থী’ খড়গপুরের আহ্বায়ক অনিল দাস ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সুরজ্জিৎ সমাদ্দার ও প্রহ্লাদ পোদ্দার ও অন্যান্য আমরা বামপন্থীর কর্মীরা।

Previous articleদেশ জুড়ে করোনার সুনামি; যে কোনও মূল্যে সারা দেশে ভ্যাকসিন ও অক্সিজেনের ব্যবস্থা করার কথা জানিয়ে মোদিকে চিঠি সদ্য সন্তান হারানো পিতা সীতারাম ইয়েচুরির
Next articleজেলা জুড়ে আক্রান্ত ২০ করোনা সৈনিক, পশ্চিম মেদিনীপুরে আক্রান্ত ২৪৬, খড়গপুর-মেদিনীপুর প্রায় সমান সমান! ডেবরা, বেলদা, দাঁতনে সংক্রমন বাড়ল, সংক্রমনে সবং, পিংলায়, ঘাটাল মহকুমায় করোনার রমরমা, মোট ৪জনের মৃত্যু