খড়গপুর গ্রামীনে সিভিক ভলান্টিয়ারের দুর্ঘটনায় মৃত্যু! কী কারণে দুর্ঘটনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ

A civic volunteer died in a road accident at Hiradihi under Kharagpur Rural Police Station. The incident took place late Monday night on the Prime Minister's Rural Road Scheme road from Talbagicha to Kalaikunda, near a closed dumping yard in Kharagpur Municipality, shortly before entering Hiradihi. It is known that this place has a big bend. The 25-year-old civic volunteer fell after hitting his motorcycle on a concrete pole on the side of the bend. It goes without saying that there was almost no traffic on the streets on the night of the storm. On Tuesday morning, the locals could recognize him lying with his motorcycle because the young man is a resident of Hiradihi. The news reached home and Kharagpur rural police station. Police came and recovered the body.

100
খড়গপুর গ্রামীনে সিভিক ভলান্টিয়ারের দুর্ঘটনায় মৃত্যু! কী কারণে দুর্ঘটনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ 1

খড়গপুর গ্রামীনে সিভিক ভলান্টিয়ারের দুর্ঘটনায় মৃত্যু! কী কারণে দুর্ঘটনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ 2নিজস্ব সংবাদদাতা: খড়গপুর গ্রামীন থানার অন্তর্গত হিরাডিহিতে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল এক সিভিক ভলান্টিয়ারের। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার গভীর রাতে তালবাগিচা থেকে কলাইকুন্ডা যাওয়ার প্রধানমন্ত্রী গ্রামীন সড়ক যোজনার রাস্তার ওপর, হীরাডিহি ঢোকার বেশকিছুটা আগে খড়গপুর পৌরসভার বন্ধ হয়ে থাকা ডাম্পিং ইয়ার্ডের কাছাকাছি। জানা গেছে এই জায়গাটিতে একটি বড় বাঁক রয়েছে। মনে করা হচ্ছে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সেই বাঁকের ধারে থাকা কংক্রিটের খুঁটিতে নিজের মোটর সাইকেল ধাক্কা মেরেই পড়ে যান ওই ২৫ বছর বয়সী সিভিক ভলান্টিয়ার। মৃত সিভিকের নাম সুভাষ রায়।

খড়গপুর গ্রামীনে সিভিক ভলান্টিয়ারের দুর্ঘটনায় মৃত্যু! কী কারণে দুর্ঘটনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ 3

সাধারণ ভাবে রাস্তাটিতে লোক চলাচল ভালো হলেও ঝড়বৃষ্টির রাতে রাস্তায় লোক চলাচল প্রায় ছিলনা বললেই চলে। মঙ্গলবার ভোরে তাঁকে তাঁর মোটরসাইকেল সমেত পড়ে থাকতে স্থানীয়রা চিনতে পারে কারন হীরাডিহিরই বাসিন্দা ওই যুবক। খবর যায় বাড়িতে ও খড়গপুর গ্রামীন থানায়। পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে। সুভাষ খড়গপুর গ্রামীণ থানায় কর্মরত ছিল পাশাপাশি তালবাগিচা বাজারেও কখনও সখনও রাত পাহারায় থাকত সে।

খড়গপুর গ্রামীনে সিভিক ভলান্টিয়ারের দুর্ঘটনায় মৃত্যু! কী কারণে দুর্ঘটনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ 4

তালবাগিচা বাজারের কিছু দোকানদার জানিয়েছেন, সোমবার ঝড়বৃষ্টির পরেও অনেক রাত অবধি বাজারে দেখা গিয়েছে তাঁকে কিন্তু প্রকৃতস্থ অবস্থায় ছিলনা সে। বাজারের দোকানদাররা জানিয়েছেন প্রায়ই দিনই প্রচুর মদ খেতে দেখা যেত তাঁকে। সোমবারও সে মদ খেয়েছিল এমন এতটাই খেয়েছিল যে ঠিক মত হাঁটতেই পারছিলনা। নিজের অবস্থা বেগতিক বুঝতে পেরেই তাঁর নিজের কাছে থাকা বেশকিছু টাকা তালবাগিচা বাজারের এক ব্যবসায়ীর কাছে জমা রাখে সে এবং বলে মঙ্গলবার সেই ওই টাকা নিয়ে যাবে। এরপর নিজের মোপেড চালিয়ে বাড়ির দিকে রওনা দেয়।

একটি সূত্রে দাবি করা হয়েছে ওই যুবক জুয়া এবং সাট্টা খেলত। সেই সূত্রে টাকা পয়সা নিয়ে কারও সঙ্গে দ্বন্দ্বে খুন হয়ে থাকতে পারে। যদিও পুলিশ প্রাথমিকভাবে খুনের কোনও প্রমান পায়নি। পুলিশ জানিয়েছে, ওই সিভিকের মুখে ও কয়েক জায়গায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে ঠিকই কিন্তু অদ্ভুদ ভাবে মাথার টুপি অটুট রয়েছে। এলাকায় কোনও ধস্তাধস্তির চিহ্ন মেলেনি।পুলিশের কথায় গতকাল সন্ধ্যে থেকে যথেষ্ট ঝড়বৃষ্টি হয়েছে ফলে খুনের মত ঘটনায় মাটিতে একাধিক ব্যক্তির পায়ের ছাপ বা ধস্তাধস্তির চিহ্ন থাকার কথা। তাই এখনও পর্যন্ত এমন কোনও প্রমান মেলেনি যার থেকে মনে হতে পারে যে ওই যুবক খুন হয়েছে। প্রাথমিকভাবে পুলিশেরও ধারণা এটি দুর্ঘটনাই তবে আসল কারন জানার জন্য পুলিশ ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার জন্য অপেক্ষা করছে।

তালবাগিচা এলাকার বিদায়ী কাউন্সিলর তথা খড়গপুর শহর তৃনমূল নেতা জহর লাল পাল জানিয়েছেন, “আমাকেও বাজারের দোকানদাররা জানিয়েছেন যে গতকাল ওই যুবক প্রচুর মদ্যপান করেছিল। এর আগেও বহুবার তাকে অসংলগ্ন অবস্থায় দেখা গিয়েছে যদিও কী ঘটনায় সে মারা গেছে তা পুলিশই বলতে পারবে।” যুবকের বাড়ি থেকে গতকাল রাতে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়েছে বহুবার কিন্তু তাঁরা ব্যর্থ হয়েছিলেন।পুলিশ আপাতত ময়নাতদন্তের রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করছে।

Previous article“জুলাই মাসের পরে আবার টিকার জোগান বাড়বে। ততদিন টিকার অভাব থাকবে।”বললেন আদর পুনাওয়ালা
Next articleকরোনাকালে ফের কোপ ডুয়ার্সের পর্যটন ব্যবসায়, রাজ্যের নির্দেশিকায় ফের বন্ধ হল জঙ্গল