ফের হেড অফিসে কামান দাগল করোনা! আক্রান্ত খড়গপুর মহকুমা হাসপাতালের সুপার, শহরে আক্রান্ত ২২ জন

1240

নিজস্ব সংবাদদাতা: করোনার বিরুদ্ধে বিরাম বিহীন লড়াইয়ে এবার আক্রান্ত হয়ে গেলেন খড়গপুর মহকুমা হাসপাতালের সুপার ডঃ কৃষ্ণেন্দু মুখার্জী। বুধবারই আরটি/পিসিআর পরীক্ষায় করোনা নিশ্চিত হয়েছে ডঃ মুখার্জীর। খবর জানার পরই নিজেকে হোম আইসোলেশনে সরিয়ে নিয়েছেন তিনি। এই প্রথম পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কোনো হাসপাতাল সুপার তথা ফ্রন্টলাইন কোভিড যোদ্ধা আক্রান্ত হলেন। খবর পাওয়ার পরই ডঃ মুখার্জীর খোঁজ খবর নিয়েছেন উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য কর্তারা । তাঁকে পর্যাপ্ত বিশ্রাম নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন জেলার শীর্ষ স্বাস্থ্য আধিকারিকরা।ফের হেড অফিসে কামান দাগল করোনা! আক্রান্ত খড়গপুর মহকুমা হাসপাতালের সুপার, শহরে আক্রান্ত ২২ জন 1

একটি সূত্রে জানা গেছে গত দুদিন ধরেই সামান্য অস্বস্তি অনুভব করেছিলেন ডঃ মুখার্জী। ঠান্ডা লাগার একটা অনুভব ছিল সঙ্গে সামান্য গলা ব্যথা কিন্তু তারই মধ্যে কাজ করে যাচ্ছিলেন তিনি। তারই মধ্যে মঙ্গলবার (১৫/৯)নিজের নমুনা পাঠান আরটি/পিসিআর পরীক্ষার জন্য। বুধবার মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজের ভাইরোলজি ল্যাবে সেই নমুনা পরীক্ষার পরই জানা যায় পজিটিভ হয়েছেন তিনি। বুধবার সন্ধ্যায় ডঃ মুখার্জী নিজেই জানিয়ে বলেছেন,”‘হ্যাঁ আজই আমি জানতে পেরেছি যে আমি পজিটিভ হয়েছি। আপাতত বিশ্রামে রয়েছি আমি।”

এদিকে সুপার ছাড়াও খড়গপুর শহরে মোট ১২জন আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে আরটি/পিসিআর পরীক্ষায়। জানা গেছে খড়গপুর শহরের পুরাতন বাজারে একই পরিবারের বাবা, মা ও মেয়ে (বয়স ৬২, ৫২, ২৫) আক্রান্ত হয়েছেন। অন্যদিকে খরিদাতে আক্রান্ত হয়েছেন স্বামী-স্ত্রী যাঁদের বয়স ৫৬ এবং ৫৩ বছর। তালবাগিচা ও সাউথ সাইডে যথাক্রমে ৫৪ ও ৫০ বছরের দুই প্রৌঢ় আক্রান্ত হয়েছেন। মালঞ্চ ও ভবানীপুরে ৩৫ ও ৪১ বছরের দুই ব্যক্তি আক্রান্ত হয়েছেন । রেল আবাসন ও হিজলী কো-অপারেটিভ সোসাইটি এলাকায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮ ও ৫৭ বছর বয়সী দুই ব্যক্তি অন্যদিকে সিআর নগরে আক্রান্ত হয়েছেন ২৮ বছরের যুবক।

আরও পড়ুন -  কর্তৃপক্ষের বাধা সরিয়েই জেএনইউর পাশে দাঁড়াল আইআইটি খড়গপুর, ধিক্কার গর্জে উঠল মুখ ঢাকা গুন্ডাদের বিরুদ্ধে

খড়গপুর শহরের বাইরে গ্রামীন খড়গপুরের কাঁটাগেড়িয়া ও তিলাবনিতে ৫৪ বছরের এক প্রৌঢ় এবং ২৮ বছরের এক যুবক আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে। অন্যদিকে খড়গপুর মহকুমা হাসপাতালে এদিন ১০জনের আ্যন্টিজেন পরীক্ষা করা হলে একজনের পজিটিভ পাওয়া গেছে।

আরও পড়ুন -  বাতিল হয়ে গেল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়েরর পরীক্ষাও, আগের পরীক্ষার ভিত্তিতেই ফল প্রকাশ জুলাইতে

ঘটনা হল খড়গপুর মহকুমা হাসপাতালে সুপারের আক্রান্ত হওয়ার ফলে জোর চাপ বাড়ল হাসপাতাল পরিচালনায় কারন মাত্র কয়েকদিন আগেই আক্রান্ত হয়েছেন সহকারি সুপার সোনালী আলু। তিনি এখনও কাজে যোগ দেননি বলেই জানিয়েছেন মহকুমা হাসপাতালের রোগি কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান নির্মল ঘোষ। অন্যদিকে সুপার আক্রান্ত হওয়ায় তাঁর সংস্পর্ষে আসা কতজনের পরীক্ষা করাতে হতে পারে তার তালিকা তৈরি করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

আরও পড়ুন -  বাড়িতেই লাইব্রেরীর পৌঁছে দিচ্ছেন মাস্টারমশাই, আহ্লাদে আটখানা খুদের দল

আপডেট (রাত ১.৩০ঘ:)
খড়গপুর মহকুমা হাসপাতাল ছাড়াও মালঞ্চ চণ্ডীপুরে অবস্থিত আরবান প্রাইমারি হেলথ সেন্টারের আ্যন্টিজেন পরীক্ষায় শহরের আরও ৮ জনের পজিটিভ পাওয়া গেছে যার মধ্যে শহরের ৩৪ নম্বর ওয়ার্ডের সুকান্ত নগর এলাকার একই পরিবারের ৫জন রয়েছে। সর্বনিম্ন ১৩ থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ৭২ বছরের ওই ৫ সদস্যের মধ্যে পরিবারের তিনজন পুরুষ ও দু’জন মহিলা রয়েছেন। এছাড়া মালঞ্চতে ২৫ বছরের এক যুবতী ও ১৮বছরের এক কিশোর রয়েছেন। পাশাপাশি নিমপুরা এমএস টাইপ আবাসনের ৩৬ বছরের এক যুবক রয়েছেন। এ ছাড়া রেল হাসপাতাল থেকে সংগৃহীত নমুনা অনুসারে এক ৫৫বছরের মহিলা ও ২৬ বছরের শিক্ষানবিশ আক্রান্ত হয়েছেন।

ফের হেড অফিসে কামান দাগল করোনা! আক্রান্ত খড়গপুর মহকুমা হাসপাতালের সুপার, শহরে আক্রান্ত ২২ জন 2