গভীর নিম্নচাপ বলয়ে খড়গপুর মেদিনীপুর, আজ সন্ধ্যের পর থেকেই বাড়বে বৃষ্টি, বুধবার বড়সড় দুর্যোগের আশঙ্কা

250

ওয়েব ডেস্ক: গভীর নিম্নচাপ বলয়ে ঢুকে পড়েছে খড়গপুর ও মেদিনীপুর। তীব্র ভ্যাপসা গরমে প্রান হাঁসফাঁস করছে, দুপুর ১১টার পর থেকেই বর্ষার ঘন কালো মেঘ ভাসছে দুই শহরের মাথায়। কোথাও শুরু হয়েছে টিপটিপ বৃষ্টি। মেঘের গর্জন জানিয়ে দিচ্ছে প্রবল বর্ষন সম্ভাব্য জলজ উপাদান গর্ভে রয়েছে তার, যা কয়েকঘন্টার মধ্যেই ফেটে পড়ার উপক্রম। ইতিমধ্যেই হওয়া অফিসের ঘোষনায় আগামী ৪৮ ঘণ্টায় দক্ষিণবঙ্গে প্রবল বৃষ্টির সতর্কতা রয়েছে। এর জেরে মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে ব্যাপক বৃষ্টির সর্তকতা জারি করা হয়েছে। তবে বৃহস্পতিবার ২৬ আগষ্ট নাকি সর্বোচ্চ স্তরে পৌঁছাবে বৃষ্টি।

মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর থেকেই উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কোথাও কোথাও হয়েওছে তা। ওই দিন সন্ধ্যায় বৃষ্টি হয়েছে খড়গপুর মেদিনীপুরেও।

মঙ্গলবার দুই শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৫.৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১.৯১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ ৯৬ থেকে ১০০% । বুধববার খড়গপুর মেদিনীপুরের পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। পাশাপাশি দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে। কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের সবকটি জেলাতেই দফায় দফায় বৃষ্টি হতে পারে। দু-এক পশলা বৃষ্টির সর্তকতা। এদিন সন্ধ্যের পর থেকে ঝোড়ো হাওয়া বইবে কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং পূর্ব মেদিনীপুরে।

আরও পড়ুন -  রাইটার্সে গুলিতে মৃত্য কলকাতা পুলিশের কনস্টেবল দাসপুরের যুবকের, আত্মহত্যা নাকি দুর্ঘটনা! দাম্পত্য সম্পর্কের অবনতি দাবি পরিবারের

পাশাপাশি মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত টানা ৩ দিন মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। তবে শুধুমাত্র নিম্নচাপ নয়, একই সাথে ঝড়ের আশঙ্কাও রয়েছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, এই তিন দিন সমুদ্র উপকূলে ৫৫ কিলোমিটার পর্যন্ত ঝড়ো হাওয়া বইতে পারে। এর জেরে মঙ্গলবার সকাল থেকে বুধবার পর্যন্ত দিঘা, মন্দারমনি সাগরসহ সমুদ্র সৈকতে সর্তকতা জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি সমুদ্রস্নান সহ সমস্ত রকম সৈকতের বিনোদন বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন -  সরস্বতী পুজোর দিনেই রক্তাক্ত মুর্শিদাবাদ, নিহত কিশোর ও বৃদ্ধ ! এনআরসি ও ক্যা বিরোধী আন্দোলনে গুলি চালানোর অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

নিম্নচাপের জেরে আগামী ৪৮ ঘণ্টায় ব্যাপক বৃষ্টির জেরে দক্ষিণবঙ্গের নদীর জল স্তর বেশ খানিকটা বাড়তে পারে। সেই সাথে প্লাবিত হতে পারে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের বেশ কিছু এলাকা। এদিকে টানা ৩ দিনের বৃষ্টির কারণে কলকাতাসহ শহরতলীর বিস্তীর্ণ এলাকায় জলমগ্ন হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। সোমবারই দক্ষিণবঙ্গের ৯ জেলায় ভারী বৃষ্টির সর্তকতা জারি করেছে আবহাওয়া দফতর। তাদের মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, বীরভূম ও পশ্চিম বর্ধমানে। এদিকে মঙ্গলবার দক্ষিণবঙ্গের চার জেলায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এদের মধ্যে দক্ষিণ ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুর এবং পশ্চিম মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামেও প্রবল বৃষ্টি হতে পারে। নিম্নচাপের পাশাপাশি আগামী বুধবার ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। বৃহস্পতিবার মূলত পশ্চিমের পাঁচ জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস। ভারী বৃষ্টি হবে বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর এবং ঝাড়গ্রামে।

গভীর নিম্নচাপ বলয়ে খড়গপুর মেদিনীপুর, আজ সন্ধ্যের পর থেকেই বাড়বে বৃষ্টি, বুধবার বড়সড় দুর্যোগের আশঙ্কা 1