খড়গপুরে নজির বিহীন আন্দোলনে বৃহন্নলারা, পুলিশের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ হয়ে কাপড় খুলে পথ অবরোধ

3635
খড়গপুরে নজির বিহীন আন্দোলনে বৃহন্নলারা, পুলিশের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ হয়ে কাপড় খুলে পথ অবরোধ 1

নিজস্ব সংবাদদাতা: এক বিরল দৃশ্যের সামিল রইল খড়গপুর। পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার প্ৰতিবাদে প্রায় নগ্ন হয়ে পথ অবরোধে সামিল হলেন তৃতীয় লিঙ্গ বা বৃহন্নলাদের একটি দল। বুধবার এই পথ অবরোধের জন্য কিছুক্ষনের জন্য থমকে গেল খড়গপুর শহরের ইন্দা এলাকার যানবাহন। বুধবার রাত পৌনে ৯টা নাগাদ এই বিচিত্র পথ অবরোধের ঘটনায় রীতিমত হতবাক হযে পড়েন খড়গপুর বাসী। অনেককেই অস্বস্তিতে পড়তে দেখা যায় প্রকাশ্য রাস্তায় প্রায় নগ্ন অবস্থায় বিক্ষোভ প্রদর্শনরত এই বৃহন্নলাদের দেখে। অনেকেই নিজের যানের দিক পরিবর্তন করে দ্রুত এলাকা ছাড়েন। গোটা ঘটনা মনে করিয়ে দিয়েছে ২০০৪ সালে মণিপুরের মনোরমা ধর্ষনের ঘটনায় ভারতীয় সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে স্থানীয় মহিলাদের নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ জানানোর ঘটনাকে।

জানা গেছে মঙ্গলবার রাতে ৬নম্বর জাতীয় সড়কের চৌরঙ্গীর কাছে পথ চলতি গাড়ি থামিয়ে অনুদান সংগ্ৰহ করছিলেন বৃহন্নলাদের একটি দল। করোনা পর্যায়ে মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে পয়সা সংগ্ৰহ বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর বৃহন্নলরা এখন এভাবেই টাকা সংগ্ৰহ করে থাকেন। তাঁদের অভিযোগ এই সময় কিছু যুবক বাইকে করে হাজির হয় এবং একজন বৃহন্নলার গলার হার ছিনতাই করতে যায়। বাধা দিতে গেলে ওই যুবকরা একজন বৃহন্নলাকে মারধর করে এবং তাঁর টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়। বৃহন্নলাদের তাড়ায় ২টি বাইক ছেড়ে পালায় যুবকের দলটি।

খড়গপুরে নজির বিহীন আন্দোলনে বৃহন্নলারা, পুলিশের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ হয়ে কাপড় খুলে পথ অবরোধ 2

ডলি পাঠান নামে এক বৃহন্নলা জানিয়েছেন, ‘ওই সময় খড়গপুর গ্রামীণ থানার একটি পুলিশের দলের হাতে আমরা বাইক দুটি তুলে দেই। প্রথমে আমরা কোনো লিখিত অভিযোগ জানাইনি।আমদের দাবি ছিল ছিনতাই হওয়া টাকা পুলিশ উদ্ধার করে দিক। পুলিশ আমাদের জানায় বুধবার অভিযুক্ত যুবকদের চিহ্নিত করার পর আমাদের ডাকা হবে।’

ডলি বলেন, ‘কিন্তু বুধবার সকালে বৃহন্নলা দেখতে পান রা যে বাইক দু’টো ছেড়ে দেওয় হয়েছে। আমরা অবাক হয়ে গেলাম যে পুলিশ নিজে তো অপরাধী ধরেইনা উল্টে আমরা যখন সেই সুযোগ করে দিলাম তখন পুলিশ তাদের ছেড়ে দিল?”
মঙ্গলবার রাতে ওই যুবকদের হাতে মারধর ও লুটপাটের ধাক্কা আর তারপর পুলিশের ওই আচরনে ক্ষুব্ধ বৃহন্নলা সন্ধ্যায় খড়গপুর লোকাল থানার ভিতরে গিয়ে তাঁদের স্বভাব সিদ্ধ ভঙ্গিতে হাতে তালি বাজিয়ে বিক্ষোভ দেখান। তারপর চলে আসেন ইন্দা ট্রাফিক মোড়ে। পুরো রাস্তা ঘিরে বসে পড়েন তাঁরা।

খড়গপুর-মেদিনীপুর, গোলবাজার হয়ে মালঞ্চ, খরিদা যাওয়ার রাস্তা বন্ধ হয়ে পড়ে। দাঁড়িয়ে যায় সমস্ত যান বাহন। প্রায় আধ ঘন্টা বিক্ষোভ অবরোধ করে তাঁরা জানিয়ে দেন, অবিলম্বে তাঁদের ছিনতাই হওয়া টাকা না ফেরৎ পেলে এবং অপরাধীদের না ধরলে দক্ষিণবঙ্গের সমস্ত বৃহন্নলা সংগঠন সমবেত হয়ে খড়গপুর লোকাল থানা ঘেরাও করবেন। প্রথমে লিখিত অভিযোগ না করলেও পুলিশের তরফে এদিন লিখিত অভিযোগ গ্রহণ করা হয়েছে। বৃহন্নলাদের অভিযোগ, টাকার বিনিময়ে অভিযুক্তদের বাইক ফিরিয়ে দিয়েছে পুলিশ।

Previous articleআজকের রাশিফল, ৭ই জানুয়ারি’২০২১
Next articleসবংয়ে আদি তৃনমূল মিশে গেল বিজেপিতে! মানসের ভরসা সেই সিপিএমই