পকেটে পুরোনো প্রেসক্রিপশন রেখে চায়ের ঠেকে মেদিনীপুর, গ্রেপ্তার ৮ ,বাজেয়াপ্ত বহু বাইক

6809
Advertisement

নিজস্ব সংবাদদাতা: বেলা বেড়ে রোদ চড়া হলে সবজির দাম নাকি কমে তাই ১২টার সময় হাতে থলে ঝুলিয়ে তবে মেদিনীপুর কলেজ মাঠে আসবেন গোপাল সাহা। হাঁসপুকুর পেরিয়ে এমন করেই নাকি বরাবরই রাজাবাজারে আসতেন। না, রাজাবাজারে অবশ্য সকাল ১১টার মধ্যেই বাজার সারা হয়ে যেত কিন্তু বাজারটা দুরে চলে এসছে তাই। বাজার দুরে মানে বড় জোর ৫০০ মিটার! তাতে কেন ১ ঘন্টা সময় বেশি লাগে তার উত্তর নেই। কোতওয়ালি থানার পুলিশের সামনে মাথা চুলকাতে চুলকাতে বলেন, ” বাব্বা ১২টা বেজে গেছে, বুঝতে পারিনি।” রহস্য ভাঙল সবজি ওয়ালা বনমালী। হাসতে হাসতে বলে, কাকু বরাবরই ১২টায় আসেন তখন নাকি ফাঁকা বাজারে দরদামের সুবিধা।

Advertisement

কোতওয়ালি পুলিশ তখন আরেক প্রৌঢ় অনন্ত সাঁতরা কে ধরেছে। এর আগের দিনই পুলিশ সাবধান করে দিয়েছিল প্রতিদিনই বাজার করা যাবেনা। তাহলে ফের আজকে কেন? রাজার পুকুরের বাসিন্দা অনন্ত বাবুর অকাট্য যুক্তি, বাড়িতে ফ্রিজ রাখিনি, বউমারা বাসি খাবার খাওয়াবে বলে। প্রতিদিনের বাজার প্রতিদিনই করতে হয়। কদিনের লক ডাউনের জন্য তো আর ফ্রিজ কিনতে পারিনা! বাড়িতে অন্য কেউ নেই ? আছে তো ! অনন্ত বাবুর সাফ যুক্তি, ছেলে আছে কলেজে পড়ায় কিন্তু বাজার করলে আর খেতে হবেনা। বুড়ো ঢেঁড়শ , পচা আলু কিনে নিয়ে যায়, সবজি ওয়ালর দল নাকি তাকে ঠকায়। অগত্যা তিনি ছাড়া আর বাজার করবে কে ?
সব মিলিয়ে বাড়ি ছেড়ে বিভিন্ন অজুহাতে মেদিনীপুর শহরের বাজারে রাস্তায় জমজমাট চলাচল। এদিকে আকাশে ড্রোন উড়িয়ে হতবাক পুলিশ! মেদিনীপুর শহরের অলিতে-গলিতে চা দোকান খুলে আড্ডা চলছে সেই চায়ের ঠেকে। ড্রোনের চোখে সেসব ধরা পড়তেই হানা দিল পুলিশ। সেই সমস্ত স্থান চিহ্নিত করে বন্ধ করা হল চা দোকান গুলিকে। এক আড্ডাবাজকে ধরতেই পকেট থেকে প্রেসক্রিপশন বের করে। গত ডিসেম্বর মাসের প্রেসক্রিপশন! ওষুধ কিনতেই বেরিয়েছিল, পথে চায়ের দোকান খোলা থাকতে দেখে ঢুকে পড়েছে। একটু গলা ভিজিয়েই চলে যাচ্ছিল। আটক করল পুলিশ।

Advertisement
Advertisement

তবে প্রেসক্রিপশনেই বাজিমাত। কেউ হাত ব্যাগে, কেউ বুক পকেটে কেউ আবার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের দেওয়া পলিথিনের থলিতে প্রেসক্রিপশন নিয়ে বেরিয়ে পড়েছে। কারও আবার পকেটে ওষুধের খালি ফয়েল। ওটা দেখিয়ে ওষুধ কিনতে বেরিয়েছে। সদুত্তর না মেলায় এদিন সকাল ১১টার মধ্যে ৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ, বাজেয়াপ্ত বেশকিছু বাইক। অন্যদিকে বেলা বারোটার পরও সবজি বাজার খুলে রাখায় মেদিনীপুর শহরের কলেজ মাঠে ছত্রভঙ্গ করতে নামে হয় কোতোয়ালি থানা পুলিশ বাহিনীকে। খালি করে দেওয়া হয় বাজার।