লকডাউন না ওঠার সম্ভবনাই প্রবল, সর্বদলীয় বৈঠকে এমনই ইঙ্গিত মোদির

178
Advertisement

নিজস্ব সংবাদদাতা: সম্ভবত প্রত্যাহার করা হচ্ছেনা লকডাউন বুধবার সমস্ত দলগুলির সঙ্গে বৈঠকে এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন বলেই জানিয়েছেন বৈঠকে উপস্থিত বিজু জনতা দলের সাংসদ পিনাকী মিশ্র। মিশ্র জানিয়েছেন, ‘মোদি এটা পরিস্কার করে দিয়েছেন যে ১৪ই এপ্রিল প্রত্যাহৃত হচ্ছেনা লকডাউন কেননা কোরোনা উত্তর জীবন আর প্রাক করোনা জীবন এক জিনিস হবেনা।” বৈঠকে উপস্থিত আরও একজন নাম জানাতে অস্বীকার করে বলেছেন, ‘রাজ্যের মূখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকের পরই মোদি নিজের সিদ্ধান্ত জানাবেন বলেই জানিয়েছেন।” উল্লেখ্য এদিনের বৈঠকে রাজ্য সভার বিরোধী নেতা গুলাম নবি আজাদ, ন্যাশনাল কংগ্রেস পার্টির নেতা শরদ পাওয়ার প্রমূখ ব্যক্তিত্ব উপস্থিত ছিলেন। প্রথমে গোটা দেশের পরিস্থিতি সম্পর্কে এঁদের ব্রিফ করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র, স্বাস্থ্য, গ্রামউন্নয়ন মন্ত্রকের সচিবরা। আজাদ ও শরদ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন রাম গোপাল যাদব, সতীশ মিশ্র , চিরাগ পাশোয়ান, টি আর বালু, সুদীপ বন্দোপাধ্যায় প্রমূখরা। মঙ্গলবার নবান্নে মূখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীও বলেছেন, ”সুদীপ দার সঙ্গে যা কথা হয়েছে তাতে লকডাউন এখুনি উঠছে বলে মনে হচ্ছেনা।’
এদিকে ১০তারিখ মূখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন প্রধানমন্ত্রী। লকডাউন নিয়ে হয়ত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষনা হবে তার পরেই। করোনা মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই বেশকয়েকটি রাজ্য লকডাউন বাড়ানোর পক্ষে আর্জি করেছে।হয়ত গোটা পরিস্থিতি বিচার করে দেশে লকডাউন বাড়বে। লকডাউন বাড়ানোর প্রসঙ্গে সরকারি সূত্র জানিয়েছে যে,কেন্দ্রের কাছে একাধিক রাজ্য থেকে করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় লকডাউন বাড়ানোর বিষয়ে আর্জি এসেছে। এ অবধি ৭টি রাজ্য লকডাউন বাড়ানোর পক্ষে আগেই প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়ে দিয়েছে। সেই রাজ্যগুলিতে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১৪০০। তাদের বক্তব্য কেন্দ্র লকডাউন প্রত্যাহার করলেও তাঁরা লকডাউন চালিয়ে যাবেন। এদিকে দেশে এখনও অবধি ৪,৭১৪ জন কোভিড-১৯ পজিটিভ মিলেছে আর মৃত্যুর সংখ্যা ১৪৯।

Advertisement

সম্ভবত এই কারনেই আগামী ফের বুকিং বন্ধ করে দিয়েছেন ভারতীয় রেল আর এর ফলে ঝুঁকি না নিয়ে এখনও বিমান বাতিলের ঘোষণা করে দিয়েছে এয়ার ইন্ডিয়া ও ইন্ডিগো। এই সংস্থার তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত ইন্টারন্যাশনাল এবং ডোমেস্টিক সমস্ত উড়ান বাতিল করা হয়েছে। এমনিতেই ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত এয়ার ইন্ডিয়ার সমস্ত উড়ান বন্ধ রয়েছে।এই পরিস্থিতিতে লকডাউনের আরও কিছু কাল গড়িয়ে যেতে চলেছে বলেই মনে করছে অভিজ্ঞ মহল ।

Advertisement
Advertisement