এবার মহারাষ্ট্রে ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনা! ২ শিশু ও ৬ মহিলা সহ ১৬ জন শ্রমিকের মৃত্যু, আশঙ্কাজনক আরও ৫

181
এবার মহারাষ্ট্রে ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনা! ২ শিশু ও ৬ মহিলা সহ ১৬ জন শ্রমিকের মৃত্যু, আশঙ্কাজনক আরও ৫ 1

অশ্লেষা চৌধুরী: অন্ধ্রপ্রদেশের পর এবার মহারাষ্ট্র; ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনা কেড়ে নিল দুই শিশু ও ছয় মহিলা সহ ১৬ টি তরতাজা প্রাণ। আহত হয়েছেন আরও ৫ জন। জানা যাচ্ছে মৃতরা সবাই আভোদা, খেরহালা ও রাভের জেলার শ্রমিক।

জানা যায়, সোমবার ভোর ৪ টা নাগাদ ট্রাক উল্টে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। মহারাষ্ট্রের জলগাঁও জেলার ইয়াবল তালুকার কিংগাঁও গ্রামে পেঁপে বোঝাই একটি ট্রাকে চেপে শ্রমিকেরা ধূলে থেকে রাওয়েলের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন, সেই সময় এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে। জানা যাচ্ছে, মৃত ১৬ জনের মধ্যে ৮ জন পুরুষ, ৬ জন মহিলা এবং ২ জন শিশু ছিল। আহত হন ৫ জন শ্রমিক, তাঁদের চিকিৎসার জন্য গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং তাঁদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

এবার মহারাষ্ট্রে ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনা! ২ শিশু ও ৬ মহিলা সহ ১৬ জন শ্রমিকের মৃত্যু, আশঙ্কাজনক আরও ৫ 2

মতদের পরিচয় যা জানা যাচ্ছে, তা হল- শিখ হুসেন শিখ (৩০), সরফরাজ কসম তান্ডবী (৩২), নরেন্দ্র বামন বাগ (২৫), দিগম্বর মাধব (৫৫), দিলদার হুসেন তড়বাই (২০), সন্দীপ যুবরাজ ভররাও (২৭), অশোক জগন (৪০), দুড়াবাই সন্দীপ ভররাও (২০), গণেশ রমেশ মোরে (৫), সারদা রমেশ মোরে (১৫), সাগর অশোক বাগ (৩), সঙ্গীতা অশোক বাগ (৩৫), সমনবাই দঙ্গল (২৪), কামবাই রমেশ মোরে (৪৫) এবং শবনুর হসেন তাড়বাই (৫৩)।

জলগাঁও পুলিশ জানিয়েছে, ধূলে থেকে রাওয়েল যাওয়ার পথে ওই ট্রাক উল্টে যায়। বলা হচ্ছে যে, ট্রাকের স্টেয়ারিং লক হয়ে গিয়েই এই ভয়ানক দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। স্টেয়ারিং লক হয়ে যাওয়ায় গাড়ির চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলে, তার ফল স্বরূপ ট্রাকটি উল্টে যায়। দুর্ঘটনার সময় সকল শ্রমিক ট্রাকেই ছিলেন। খবর পেয়েই পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায় এবং মৃতদেহ উদ্ধার কাজে হাত লাগায়। ট্রাক চালককেও হেফাজতে নেওয়া হয়েছে।

ভয়াবহ এই দুর্ঘটনায় মৃত ব্যক্তিদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী এবং আহত ব্যক্তিদের দ্রুত সুস্থতারও কামনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, গত ২৩ শে জানুয়ারি, মহারাষ্ট্রের নন্দুরবার জেলায় একটি গাড়ি ১৫০ ফুট গভীর খাদে পড়ে গিয়ে পাঁচ জন মর্মান্তিকভাবে মারা গিয়েছিলেন এবং সাতজন গুরুতর আহত হয়েছিলেন। সকাল ১০টা ১৫ নাগাদ তোরেণাম হিল স্টেশন থেকে ১০ কিলোমিটার দূরের খাকি ঘাটের পার্বত্য অঞ্চলে এ ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার শিকার সবাই নন্দুরবারের ঝাপ্পি ফালাই গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। এনারা সকলেই প্রতিদিনের ব্যবহারের সামগ্রী কেনার জন্য তোরণমলে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি দেড়শ ফুট গভীর খাদে পড়ে যায়।

প্রসঙ্গত, ১৪ তারিখ ও ১২ তারিখ অন্ধ্রপ্রদেশে দুটি পৃথক স্থানে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনায় ১৪ জন ও ৮ জনের মৃত্যু হয়।