মানিকতলায় ভয়াবহ দূর্ঘটনা, নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে লরির ধাক্কা বাসস্ট্যান্ডে, কংক্রিটের ছাউনির নীচে চাপা পড়ে মৃত ২

201
Advertisement

ওয়েব ডেস্ক : ভোর তখন ৫ টা, মানিকতলা বাজারের সামনে একটি বাসস্ট্যান্ডের সামনের চায়ের দোকানে চা খাচ্ছিলেন রহিত জয়সয়াল, শ্যাম যাদব নামে বেশ কয়েকজন। আচমকা উল্টো দিক থেকে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দ্রুত গতিতে একটি লরি বাসস্ট্যান্ডের ভিতর ঢুকে পড়ে। লরিটির গতি এতটাই দ্রুত ছিল যে ধাক্কা লেগে পড়ে যায় বাসস্ট্যান্ডের কংক্রিটের ছাউনি। এদিকে কংক্রিটের ছাউনিটি ভেঙে পড়তেই তার নীচে চাপা পড়ে যায় চার ব্যক্তি। ঘটনার পর স্থানীয়দের তৎপরতায় তাদের উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অববস্থায় মৃত্যু হল দু’জনের। জানা গিয়েছে, মৃত ব্যক্তিদের নাম রোহিত জয়সয়াল ও শ্যাম যাদব। জানা গিয়েছে, শ্যাম যাদব বিহারের বাসিন্দা। এদিকে বাকি দু’জন আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

Advertisement

ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শীদের তরফে জানা গিয়েছে, সোমবার ভোর ৫টা নাগাদ আর্মহাস্ট স্ট্রিট থানা এলাকায় মানিকতলা বাজারের কাছে লরিটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রথমে ফুটপাথের বাগানে ধাক্কা মারে লরিটি। এরপর সামনে থাকা ২টি ল্যাম্প পোস্টে ধাক্কা মারার সাথে সাথেই সেটি ভেঙে যায়। এদিকে বাসস্ট্যান্ডের সামনেই ছিল একটি চায়ের দোকান। লরিটি ছুটে আসতে দেখে বিপদ বুঝে দোকান থেকে বেরিয়ে কোনওমতে প্রাণ বাঁচান দোকানের মালিক। কিন্তু চায়ের দোকানে থাকা গ্রাহকরা নিজেদের বাঁচাতে পারেননি।

Advertisement
Advertisement

এদিকে আচমকা দ্রুত গতিতে লরিটি বাসস্ট্যান্ডের পিলারে ধাক্কা দিতেই হুড়মুড়িয়ে পড়ে যায় বাসস্ট্যান্ডের ছাউনি। তার নীচেই চাপা পড়েন রোহিত জয়সওয়াল, স্যমত যাদব–সহ ৪ জন। ঘটনার পর স্থানীয় বাসিন্দাদের তরফে আহতদের গুরুতর জখম অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসকরা রোহিত ও স্যমতকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এদিকে এই ঘটনার পরপরই এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে লরির চালক। তবে চালককে না পাওয়া গেলেও লরিটিকে আটক করেছে পুলিশ। চালকের খোঁজে ইতিমধ্যেই চালকের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে আর্মহাস্ট স্ট্রিট থানার পুলিশ।