রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী পা রাখতেই পুরুলিয়ার অযোধ্যায় মাওবাদী পোস্টার

190
রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী পা রাখতেই পুরুলিয়ার অযোধ্যায় মাওবাদী পোস্টার 1

নিউজ ডেস্ক: বিধানসভা নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক চাপানউতোর চলছে।এরমধ্যে উপরিপাওনা রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনীর আগমন।অনেক স্থানে শুরু হয়েছে কেন্দ্রীয় বাহিনীর রুটমার্চ।কেন্দ্রীয় বাহিনী বাংলায় পা রাখতেই ভোট বয়কটের হুমকি দিয়ে পোস্টার পড়ল পুরুলিয়ার জঙ্গলমহলে। নির্বাচন ঘোষণার আগেই রবিবার সাতসকালে পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড়তলির ঝালদার খামার এলাকা থেকে পোস্টারগুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঝালদা বনাঞ্চলের খামার বিট অফিসের বাইরে সাদা কাগজের উপর লাল কালিতে লেখা একাধিক মাওবাদী পোস্টার দেখতে পান সাধারণ মানুষজন।

মাওবাদীদের পোস্টারে শুধু ভোট বয়কটের ডাকই দেওয়া হয়নি। পাশাপাশি মাওবাদী নেতা অর্ণব দাম ওরফে বিক্রমকে গ্রেপ্তারের পিছনে যে প্রাক্তন মাওবাদী তথা বর্তমানে স্পেশ্যাল হোমগার্ড পদে কর্মরত পুলিশকর্মীর ভূমিকা ছিল, তাকেও নিশানা করা হয়েছে।

রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী পা রাখতেই পুরুলিয়ার অযোধ্যায় মাওবাদী পোস্টার 2

সেইসঙ্গে পেট্রল-ডিজেল-গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি এবং কৃষি আইন বাতিল করার দাবিও তুলেছে মাওবাদীরা। তবে এই পোস্টারগুলি মাওবাদীদেরই কিনা, তা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুরুলিয়া জেলা পুলিশ। পুরুলিয়ার পুলিশ সুপার বিশ্বজিৎ মাহাতো বলেন, “এই ঘটনার পিছনে কারা রয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তদন্তও শুরু হয়েছে।”

পোস্টারগুলি উদ্ধারের পরই জঙ্গলমহলের ওই এলাকাতে তল্লাশিও শুরু করেছে পুলিশ। রাজ্যে আপাতত ১২৫ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী এসেছে।তার মধ্যে পুরুলিয়া ও ঝাড়গ্রামে সবচেয়ে বেশি নয় কোম্পানি সিআরপিএফ মোতায়েন করা হবে বলে জানা গিয়েছে । তবে এই জেলায় এখনও কেন্দ্রীয় বাহিনী পা রাখেনি। গত নভেম্বর মাসের একেবারে শেষে মাওবাদীদের গণমুক্তি গেরিলা ফৌজ সপ্তাহের সময় মাওবাদী পোস্টার মেলে পুরুলিয়ায়। সবমিলিয়ে ভোটের আগে উত্তপ্ত পুরুলিয়া।