ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরি সুরক্ষা পাচ্ছেন বিজেপি নেতা মিঠুন চক্রবর্তী

233
ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরি সুরক্ষা পাচ্ছেন বিজেপি নেতা মিঠুন চক্রবর্তী 1

নিউজ ডেস্ক: বেশ কিছুদিন আগে অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ব্রিগেড সভায় বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নেন । রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনের ঠিক আগে এবার নিরাপত্তা বলয়ে রাখা হল মিঠুন চক্রবর্তীকে।

ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরি সুরক্ষা পাচ্ছেন বিজেপি নেতা মিঠুন চক্রবর্তী 2

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পক্ষ থেকে এই অভিনেতার জন্য ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরির সুরক্ষা বলয় নির্ধারিত করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পক্ষ থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিওরিটি ফোর্স বা সিআইএসএফ মিঠুন চক্রবর্তীর সুরক্ষার জন্য থাকবে। ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরির সুরক্ষায় ওই ব্যক্তিকে সাধারণত ১১ জন কমান্ডো ঘিরে থাকেন। এরই সাথে বিশিষ্ট ওই ব্যক্তির বাড়ির চারপাশে ৫৫জনেরও বেশি নিরাপত্তা কর্মীর টিম নজরদারিতে থাকে।

ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরি সুরক্ষা পাচ্ছেন বিজেপি নেতা মিঠুন চক্রবর্তী 3

অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী ৭ই মার্চ বিজেপিতে যোগ দেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাঁকে বাংলার ছেলে বলে জনসভায় উল্লেখ করেন। শোনা যাচ্ছে যে, মিঠুন বিজেপির প্রচারকদের মধ্যে শীর্ষ তালিকায় রয়েছেন। আর সেই মর্মে নন্দীগ্রাম কাঁপাতে মহাগুরু পা রাখতে পারেন অধিকারী গঢ়ে।

উল্লেখ্য, রাজ্যে বাম শাসনের সময়ে জ্যোতি বসু এবং সুভাষ চক্রবর্তীর সঙ্গে ভাল সম্পর্ক ছিল মিঠুন চক্রবর্তীর। মিঠুন চক্রবর্তী ২০০৯-এর পরবর্তী সময় থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ হতে শুরু করেন। ২০১৪-তে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁকে রাজ্যসভায় পাঠান। কিন্তু এরই মধ্যে সারদা গোষ্ঠীর চ্যানেলে অনুষ্ঠান করা নিয়ে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন। যদিও তিনি পারিশ্রমিক হিসেবে পাওয়া টাকা ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত ১৮ই ডিসেম্বর ২০২০, বিজেপিতে যোগদানের আগেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ‘জেড’ ক্যাটগরির নিরাপত্তা পাচ্ছেন শুভেন্দু অধিকারী। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক থেকে জারি করা অর্ডারে উল্লেখ করা হয়, ‘শুভেন্দু অধিকারীর জন্য প্রয়োজনীয় নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে মন্ত্রক পরীক্ষা–নিরীক্ষা করে দেখেছে। এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা সংস্থাগুলির সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তাঁকে ‘জেড’ ক্যাটেগরির নিরাপত্তা দেওয়া হবে। তাঁর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবেন সিআরপিএফ জওয়ানরা। একইসঙ্গে শুভেন্দু অধিকারী পাবেন বুলেটপ্রুফ গাড়ি। একইসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া অন্য রাজ্যে শুভেন্দু গেলে তিনি সেখানে ‘ওয়াই’ ক্যাটেগরির নিরাপত্তা পাবেন। এরপরের দিনই তাঁর পদ্ম শিবিরে যোগদান। এরপর আবার চলতি বছর ফেব্রুয়ারি মাসের শুরুতেই রাজ্যে Z ক্যাটাগরি নিরাপত্তা প্রাপকের তালিকায় জুড়ে যায় সদ্য দলত্যাগী রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক শুভেন্দু অধিকারী এবং রাজিব ব্যানার্জি কেই শুধু নিরাপত্তা দিয়েছেন তাই না; বৈশালী ডালমিয়া, প্রবীর ঘোষাল, রথীন চক্রবর্তী,রুদ্রনীল সেন সহ বিজেপির পশ্চিমবঙ্গের ৬০ জন নেতাকে এক্স ও ওয়াই ক্যাটেগরির নিরাপত্তা দিয়েছে। গত এক মাসে এই নিরাপত্তা বলয় বাংলার রাজনীতিতে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে ওঠে।

Previous articleপি.কের প্রার্থীকে মানতে নারাজ খোদ অনুব্রত মণ্ডলও! বিদ্রোহে ফেটে পড়লেন তৃনমূলের বীরভূম সর্বাধিনায়ক
Next articleপ্রার্থী নিয়ে ক্ষোভ, রেগে গিয়ে দল ছাড়লেন পূর্ব বর্ধমানের অমর রাম