বৃহস্পতিবার থেকেই আরও ৫১টি লোকাল ট্রেন চালু হল খড়গপুর-হাওড়া শাখায়, দেখে নিন বিস্তারিত টাইম টেবিল

In order to clear the huge rush of Suburban Passengers and to maintain proper social distancing in suburban trains, South Eastern Railway has decided to run 51 additional EMU Locals from thursday (26.11.2020). See Time Table

16559
Advertisement

অভিনন্দন রানা:  আনন্দের খবর এল আবার! খড়গপুর, শহরতলির যাত্রীদের বিশাল ভিড় এড়াতে এবং শহরতলির ট্রেনগুলিতে যথাযথ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে দক্ষিণ পূর্ব রেলওয়ে বৃহস্পতিবার (২৬.১১.২০২০) থেকে ৫১ টি অতিরিক্ত ইএমইউ লোকাল চালানোর সিদ্ধান্ত নিল। বৃহস্পতিবার থেকেই এই পরিষেবা চালু হয়ে গেছে।

Advertisement

আরও ৫১ টি ইএমইউ পরিষেবা পুনরায় চালু হওয়ার সাথে সাথে এস ই রেলওয়ের মোট ১৪৬ টি ইএমইউ ট্রেন শহরতলির রুটে চালু হল। এখন অবধি ৯৫ টি ট্রেনের পরিষেবা পুনরায় চালু করা হয়েছে এবং বিদ্যমান ট্রেনগুলিতে অতিরিক্ত ভিড় হতে শুরু হতে দেখেই বৃহস্পতিবার থেকে আরও বাড়তি ৫১ টি ইএমইউ ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই বাড়তি ৫১ টি ইএমইউ পরিষেবার মধ্যে ২৬ টি আপ এবং ২৫ টি ডাউন দিকনির্দেশে চলবে।

Advertisement
Advertisement

২৬টি আপ ইএমইউ ট্রেনের মধ্যে ৮টি ট্রেন হাওড়া-পাঁশকুড়ার মধ্যে, ২টি হাওড়া-মেদিনীপুরের মধ্যে, ৩টি হাওড়া-খড়গপুরের মধ্যে,৩টি হাওড়া-মেচেদার মধ্যে, ৫টি হাওড়া-আমতা এবং শালিমার- সাঁতরাগাছি , সাঁতরাগাছি- পাঁশকুড়া, হাওড়া-হলদিয়া,পাঁশকুড়া-দিঘা এবং পাঁশকুড়া-হলদিয়ার মধ্যে ১টি করে বাড়তি লোকাল চলবে।

অন্যদিকে ২৫টি ডাউন ইএমইউ ট্রেনের মধ্যে ৯টি ট্রেন পাঁশকুড়া-হাওড়ার মধ্যবর্তী, ৫টি আমতা- হাওড়ার মধ্যে, ২টি মেদিনীপুর- হাওড়ার মধ্যে, ৩টি
এবং খড়গপুর-হাওড়া এবং মেচেদা-হাওড়া, হলদিয়া-হাওড়া, দিঘা-পাঁশকুড়া, হলদিয়া-পাঁশকুড়া, মেচেদা-শালিমার ও বাগনান-হাওড়ার মধ্যে ১টি করে বাড়তি ট্রেন চলবে।

এই ইএমইউ লোকালগুলি বর্তমানে চালু থাকা টাইম টেবিল ২০১৯-২০- এর সময় ও স্টপেজ অনুসারে চলবে। যাত্রীদের জন্য প্রতিদিনের টিকিট এবং মরসুমের টিকিট বিভিন্ন স্টেশনে বুকিং কাউন্টারে পাওয়া যাবে। লকডাউনের সময় হারিয়ে যাওয়া দিনের পরিমাণে মরসুমের টিকিটের মেয়াদ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

স্টেশনগুলির ভিতরে এবং ট্রেনগুলিতে কোভিড -১৯ স্বাস্থ্য প্রোটোকল অনুযায়ী কঠোরভাবে বজায় রাখা হবে। রাজ্য সরকার এবং বিভিন্ন রেল বিভাগের সাথে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগের ব্যবস্থা করা হয়েছে সামাজিক দূরত্ব, সারি ব্যবস্থাপনার ব্যবস্থা এবং কোভিড -১৯ এর বিস্তার প্রতিরোধ নিশ্চিত করার জন্য।ফেস মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক এবং রেলওয়ে এবং রাজ্য সরকার সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য একাধিক পর্যায়ের চেকিং নিশ্চিত করবে। যাত্রীদের ভ্রমণের সময় শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য আসনগুলিতে ইঙ্গিতটি পর্যবেক্ষণ করে বিকল্প আসন পেতে অনুরোধ করা হয়। সমস্ত কোচ নিয়মিত স্যানিটাইজ করা হবে।

দক্ষিণ পূর্ব রেলওয়ে তার সমস্ত মূল্যবান যাত্রীদের কোভিড -১৯ স্বাস্থ্য এবং স্বাস্থ্যকর প্রোটোকলগুলি কঠোরভাবে অনুসরণ করার জন্য অনুরোধ করছে।