মধ্যরাতে ভয়াবহ বিস্ফোরনে মৃত ২, আহত ৫! বোমা বানাতে গিয়ে উড়ে গেল বাড়ি

156
মধ্যরাতে ভয়াবহ বিস্ফোরনে মৃত ২, আহত ৫! বোমা বানাতে গিয়ে উড়ে গেল বাড়ি 1
মধ্যরাতে ভয়াবহ বিস্ফোরনে মৃত ২, আহত ৫! বোমা বানাতে গিয়ে উড়ে গেল বাড়ি 2

নিজস্ব সংবাদদাতা: বিধানসভা নির্বাচন এগিয়ে আসছে তাই করোনা আবহেও ভবি ভোলার নয়, যে যার নিজের মত করেই এলাকায় দাপট রাখতে প্রস্তুতি নিচ্ছে। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ যেমন রয়েছে তেমনই রয়েছে শাসকদলের নিজস্ব কোন্দল আর যে কোন্দলের বর্তমান অভিমুখ বিধানসভায় টিকিট যোগাড় করা। বাংলায় এলাকা দখলের এই প্রক্রিয়ার অন্যতম মাধ্যম এখন হিংসা আর রক্তপাত। তারজন্য চাই বোমা, বন্দুক।

সেই বোমা বানাতে গিয়ে বড়সড়  বিস্ফোরণে প্রাণ গেল দুই ব্যক্তির। আহত আরও পাঁচ, যাদের মধ্যে ২ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। শুক্রবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের সুতি থানা এলাকার আহিরন পাদুয়া গ্রামে। বোমা বিস্ফোরণে দু’জনের দুটি হাত উড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় বলে জানা গিয়েছে। বিস্ফোরণের তীব্রতায় ভেঙে পড়েছে বাড়িও। তদন্তে নেমেছে সুতি থানার পুলিশ।

মধ্যরাতে ভয়াবহ বিস্ফোরনে মৃত ২, আহত ৫! বোমা বানাতে গিয়ে উড়ে গেল বাড়ি 3

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার গভীর রাতে আহিরণ পাদুয়া গ্রামের একটি টালির বাড়িতে বোমা বাঁধার কাজ চলছিল। আচমকাই প্রচণ্ড বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে গোটা এলাকা। ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয়েছে দু’জনের। জখম হয়েছে আরও পাঁচজন। তাঁদের মধ্যে আশঙ্কাজনক দু’জন। তাঁদের উদ্ধার করে জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। একজনের শারীরিক অবস্থা অতি সংকটজনক বলে তাঁকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। মৃত দু’জনের নাম মাহারুল শেখ, তইফুল শেখ। এরা ফরাক্কার জোড়পুকুরিয়ার বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। জখমদের বিস্তারিত পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি। বিস্ফোরণের গুঁড়িয়ে গিয়েছে বাড়িটিও।

পুলিশ প্রাথমিক ভাবে জানতে পেরেছে বোমা বাঁধার জন্য ফরাক্কা থেকে আনা হয়েছিল। রাতে বোমা বাঁধার সময়েই অসাবধানতা বশত এই দুর্ঘটনার ঘটে যায়। তবে কী কারণে বোমা বাঁধা হচ্ছিল তা এখনও পরিষ্কার হয়নি পুলিশের কাছে। পুলিশ জানিয়েছে বোমা বাঁধার কারন যেমন রাজনৈতিক দ্বন্দ্ব হতে পারে তেমনই হতে পারে দুষ্কৃতিদের কাজের জন্য প্রস্তুতি। পাশাপাশি কোনও নাশকতার ছক থাকতে পারে। নিহত এবং আহত দুষ্কৃতিদের পরিচয় পুরোপুরি জানার পরই এই সব প্রশ্নের উত্তর মিলবে বলেই পুলিশের ধারনা।