হেঁসেলিয়ানা : নবাবী সেওয়াই ও তাসালা পরোটা : মিমি বন্দ্যোপাধ্যায়

88

 নবাবী সেওয়াই

হেঁসেলিয়ানা : নবাবী সেওয়াই ও তাসালা পরোটা : মিমি বন্দ্যোপাধ্যায় 1

আজ বকরিদ …. তাই শেষ পাতে সেওয়াই র মতো “সুইট ডিশ ”
না বানালে বাড়ির ছোট বড়ো কারোর মুখে স্বাদ আসেনা, মনে ভরেনা।
তাই আসুন আজ আমরা ছটপট বানিয়ে ফেলি “নবাবী সেওয়াই “।
সরঞ্জাম :লাচ্ছা সাওয়াই 1প্যকেট (200gramq):
দুধ 1লিটার : গুঁড়ো দুধ সামান্য :চিনি 1/2কাপ, কাস্টার্ড পাউডার :কনডেন্স মিল্ক : ক্রিম 1কাপ :
কিসমিস, আমন্ড, পেস্তা।হেঁসেলিয়ানা : নবাবী সেওয়াই ও তাসালা পরোটা : মিমি বন্দ্যোপাধ্যায় 2

প্রণালী :
প্রথমে পাত্রটি গরম করে, তাতে 2 চামচ ঘি দিতে হবে ,অল্প আঁচে কিসমিস গুলি ভেজে নিতে হবে। খেয়াল রাখবেন , যাতে কিসমিস গুলো পুরে না যায়। কিসমিস একটি পাত্রের তুলে রেখে, ওই এক ই ঘি তে প্রথমে সিমুই, তারপর চিনি, গুঁড়ো দুধ 2চামচ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নাড়াচাড়া করতে হবে। হালকা বাদামি রং আসে গেলে একটু খাবার রং ও মেশাতে পারেন (যদিও কাস্টার্ড পাউডার র জন্য পায়েস আ রং আসে যাবে )। যাইহোক, এরপর আমরা ভাজা সেওয়াই গরম কড়া থেকে তুলে, তার অর্ধেক পরিমান একটি কাঁচের পাত্রে ছড়িয়ে রাখবো।
অন্য একটি পাত্রে 1লিটার দুধ, 1চামচ ক্যাসটার্ড পাউডার, কনডেন্স মিল্ক 1/2কাপ, 1/2কাপ ক্রিম
পরপর মিশিয়ে অল্প আঁচে নাড়তে হবে। দুধ ঘন হয়ে গেলে একটু ঈষৎ উষ্ণ অবস্থায়, আগের থেকে কাঁচের পাত্রে ছড়িয়ে রাখা সিওয়াই র ওপর আসতে আসতে ঢেলে দিতে হবে।
ভেজে রাখা বাকি সেওয়াই গুলি ঘন ক্রিমি দুধের ওপর সমান ভাবে হাত দিয়ে চেপে চেপে ছড়িয়ে দিতে হবে। এরপর এক এক করে ভেজে রাখা কিসমিস, আমন্ড, পেস্তা ওপর থেকে সাজিয়ে দিতে হবে। সাজানো হয়ে গেলে আমরা কাঁচের পাত্র টিকে ফ্রীজে ঠান্ডা করতে রেখে দেবো। মিনিট 15/20রাখার পর ফ্রিজ থেকে বের করে চামচ এ করে কেটে কেটে সুন্দর ছোট ছোট কাঁচের বাটিতে পরিবেশন করলে নজর তো কাড়বেই, সাথে জিভে জল ও এসে যাবে।
কাজেই আসুন, আজকের বাকরিদ কে আরো মিষ্টি করে তুলি “নবাবী সিওয়াই “দিয়ে।

আরও পড়ুন -  করোনায় মৃত স্বপন ঘোষের মরদেহ নিয়ে মিছিল পানিহাটিতে, কয়েকগুণ সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা

 

তাসালা পরোটা হেঁসেলিয়ানা : নবাবী সেওয়াই ও তাসালা পরোটা : মিমি বন্দ্যোপাধ্যায় 3

 

বাকরি ঈদের দিন সিওয়াই, মটন কিমা র সাথে অন্যতম আকর্ষণ হলো “তাসালা পরোটা “…
আসুন রান্নাঘরে থাকা রোজকার জিনিস দিয়ে বানিয়ে ফেলি এই সুস্বাদু পরোটা।

সরঞ্জাম :
200 গ্রাম আটা, 200গ্রাম ময়দা, 100গ্রাম সুজি,লবন, চিনি, কয়েকটি এলাচ ডানার গুঁড়ো, 2চামচ রিফাইন অয়েল, এক গ্লাস দুধ, এবং ঘি।

আরও পড়ুন -  করোনা যুদ্ধের সৈনিকদের বর্ম যোগাচ্ছেন খড়গপুরের মহিলা ব্রিগেড, হাজার কিটের বরাত মেটাবেন তাঁরাই

 

প্রণালী :
একটি বড়ো পাত্রে এক এক করে আটা, ময়দা, সুজি, গুঁড়ো কড়া এলাচ, লবন, চিনি ও রিফাইন তেল দিয়ে, মিশ্রণটি 2হাতে করে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর অল্প অল্প করে দুধ দিয়ে মিশ্রণ টি কে মাখতে হবে। হাত দিয়ে বেশ খানিক্ষণ নাড়াচাড়া র পর যখন ময়দা র ডু টি নরম হয়ে এলে বুঝতে হবে ডু টি রেডি হয়ে গেছে। এরপর ময়দা র ডু টি একটি ঢাকনা দিয়ে 1ঘন্টা চাপা দিয়ে রেখে দিতে হবে। হেঁসেলিয়ানা : নবাবী সেওয়াই ও তাসালা পরোটা : মিমি বন্দ্যোপাধ্যায় 4

দ্বিতীয় পর্যায়ে, আমরা চাপা দিয়ে রাখার ডু টি থেকে এক একটি লেচি বের করে নেবো। স্বাভাবিক ভাবেই এই পরোটার লেচি গুলি একটু বড়ো আকারের হবে। এরপর লেচি গুলি কে গোল করে রুটির মতো করে বেলে নিয়ে, তার ওপর একটু আটা গুঁড়ো ছড়িয়ে দেবো। বেলে নেওয়া রুটি কে আমরা একদিক থেকে রোল করে মুড়ে নেবো। মুড়ে নেয়ার পর রোল রুটি টি আপনিও চাইলে আরো একটু আঙুলে করে চেপে সরু ও লম্বা করে নিতে পারেন। ছোটবেলায় আমরা যেরকম আটার সাপ বানাতাম অনেক টা সেরকম দেখতে হবে। যাইহোক, এই সরু, লম্বা আনতে টি এবার ছানার জিলিপি র মতো মুড়ে নিয়ে, হাত দিয়ে চেপে নেবো। এবার এই জিলিপি লেচিটি ধীরে ধীরে গোল করে বেলে নেবো। বেলে নেওয়া পরোটার দুইদিকে ঘি বা রিফাইন অয়েল ব্রাশ এ করে মাখিয়ে নেবো।

আরও পড়ুন -  পুলিশের তাড়ায় মায়ের ভোগ ফেলে পালাল মানুষ, মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পেল আয়োজক

হেঁসেলিয়ানা : নবাবী সেওয়াই ও তাসালা পরোটা : মিমি বন্দ্যোপাধ্যায় 5

তৃতীয় পর্যায়ে, আমরা টাওয়ার পরিবর্তে একটি পাতলা তাসালা বা ফ্র্যাই প্যান ওভেন বা গ্যাস এ বসিয়ে তাসালাটি ঘি মাখিয়ে নেবো। এরপর বেলে নেওয়া পরোটাটি রেখে ভালো করে সেঁকে নেবো। প্রয়োজনে আরো একটু তেল বা ঘি দিয়ে ব্রাউন করে ভেজে নিন। এরপর হয় গোটা বা পিস পিস করে কেটে গরম গরম খাবার টেবিল এ পরিবেশন করুন।

হেঁসেলিয়ানা : নবাবী সেওয়াই ও তাসালা পরোটা : মিমি বন্দ্যোপাধ্যায় 6