ফের হাজিরা ছত্রধরের, হেফাজতে নিতে মরিয়া কেন্দ্রীয় সংস্থা ! কার প্রেসক্রিপশনে করোনা পরীক্ষা তৃনমূল নেতার? জানতে চায় NIA

735
ফের হাজিরা ছত্রধরের, হেফাজতে নিতে মরিয়া কেন্দ্রীয় সংস্থা ! কার প্রেসক্রিপশনে করোনা পরীক্ষা তৃনমূল নেতার? জানতে চায় NIA 1

নিজস্ব সংবাদদাতা: ছত্রধর মাহাত মাওবাদীদের সম্মুখ সংগঠন সহ জনসাধারনের কমিটির ৫ সদস্যকে নিজেদের হেফাজতে নেওয়ার জন্য ঘুঁটি সাজিয়ে তৈরি হচ্ছে জাতীয় তদন্তকারি সংস্থা বা National Investigation Agency(NIA). আগামী ১২ তারিখ, সোমবার কলকাতার ব্যাঙ্কশাল কোর্টে হাজিরা দেবেন জনসাধারণের কমিটির এই প্রাক্তন মুখপাত্র তথা বর্তমানে তৃণমূলের রাজ্য কমিটির নেতা ছত্রধর মাহাত এবং দিলীপ মাহাত, চন্দ্রশেখর মাহাত, মৃনাল কান্তি মাহাত ও বাজিনাথ টুডু। আর সেখানেই নির্ধারিত হতে চলেছে ওই ৫ জনকে নিজেদের হেফাজতে পাবে কিনা NIA.

NIA ইতিমধ্যেই এঁদের গ্রেপ্তার করে নিজস্ব হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য আদালতে অনুমতি চেয়ে আবেদন করেছে। তার আগে ছত্রধর সহ ওই ৫জনকে কয়েকদফায় জিজ্ঞাসাবাদ করার পর NIA য়ের মনে হয়েছে সিপিএম নেতা প্রবীর মাহাত খুন কিংবা রাজধানী অপহরণ মামলায় ঠিকঠাক তথ্য দিচ্ছেননা এঁরা। যে কারনে নিজের হেফাজতে পেতে চাইছে NIA. গত ২৫শে সেপ্টেম্বরের শুনানি ছিল সেই মামলার। সেই মামলায় আদালত অবধি গিয়েও হঠাৎ শরীর খারাপ হয়ে যাওয়ায় কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন ছত্রধর মাহাত। ফলে শুনানি হয়নি।

ফের হাজিরা ছত্রধরের, হেফাজতে নিতে মরিয়া কেন্দ্রীয় সংস্থা ! কার প্রেসক্রিপশনে করোনা পরীক্ষা তৃনমূল নেতার? জানতে চায় NIA 2

এদিকে ছত্রধর মাহাত পরের দিনই বাড়ি ফেরেন। ২৭ তারিখ তাঁর আ্যন্টিজেন পরীক্ষা হয় এবং করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। এরপরই হোম আইসোলেশন ছিলেন তিনি। ১৩দিনের মাথায় ছত্রধর মাহাত তাঁর পুত্র ধৃতি এবং স্ত্রী নিয়তি ফের করোনা পরীক্ষা করান ৯ অক্টোবর বা শুক্রবার। যার ফল এখনও জানা যায়নি। শুক্রবার বাকি চার অভিযুক্তও করোনা পরীক্ষা করিয়েছেন বলেই জানা গেছে।

এদিকে কোন চিকিৎসকের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী ছত্রধর মাহাত করোনা পরীক্ষা করালেন তা জানতে চেয়ে ঝাড়গ্রাম জেলার মূখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের কাছে চিঠি পাঠিয়েছে NIA. ওই চিঠিতে ছত্রধর মাহাতর করোনা পরীক্ষার যাবতীয় খুঁটিনাটি জানতে চাওয়া হয়েছে। দিতে বলা হয়েছে সেই চিকিৎসকের ফোন নম্বরও। সব কিছু মিলিয়ে একটা জিনিস আরও পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে যে, আরও আঁট ঘাট বেঁধেই এগুচ্ছে NIA. নিজেদের হেফাজতে ছত্রধর মাহাত কে পেতে এবার মরিয়া ওই তদন্তকারী সংস্থা। আগামী সোমবারই সেই দিন কিনা সেটাই এখন দেখার।