৫ই এপ্রিল থেকে ১০টি জেলায় নাইট কার্ফু;গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৯৩ হাজার ২৪৯ জন করোনা আক্রান্ত।

580
৫ই এপ্রিল থেকে ১০টি জেলায় নাইট কার্ফু;গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৯৩ হাজার ২৪৯ জন করোনা আক্রান্ত। 1

দেশের মধ্যে সবচেয়ে বিপজ্জনক অবস্থা মহারাষ্ট্রে। করোনার ক্রমবর্ধমান সংক্রমণে লাগাম টানতে এবার লকডাউনের পথে হাঁটতে পারে মহারাষ্ট্র। খোদ মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে এই ইঙ্গিত দিয়েছেন।রাজ্যে করোনার সংক্রমণ হু হু করে বাড়ছে।প্রতিদিন হাজার-হাজার মানুষ নতুন করে সংক্রমিত হচ্ছেন। পরিস্থিতি এমনই চলতে থাকলে লকডাউনের সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন উদ্ধব ঠাকরে।

৫ই এপ্রিল থেকে ওডিশার ১০টি জেলায় নাইট কার্ফু জারির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। করোনা সংক্রমণ যাতে দ্রুত না ছড়াতে পারে তার জন্যই এই ব্যবস্থা। ওডিশা সরকার জানিয়েছে নাইট কার্ফু জারি করা হবে সুন্দেরগড়, ঝাড়সুগুডা, সম্বলপুর, বড়গড়হ, বোলাঙ্গির, নুয়াপড়া, কালাহান্ডি, নোয়ারংপুর, কোরাপুট ও মালকানগিরি জেলায়।

৫ই এপ্রিল থেকে ১০টি জেলায় নাইট কার্ফু;গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৯৩ হাজার ২৪৯ জন করোনা আক্রান্ত। 2

শনিবার রাজ্যের মুখ্য সচিব এস সি মহাপাত্র এক বিবৃতি প্রকাশ করে এই তথ্য দিয়েছেন। এই নিয়ম জারির ফলে প্রতিটি দোকান, বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান, অফিস, ও নাগরিকদের যাতায়াতে বিধিনিষেধ আরোপ করা হবে। রাত ১০টা থেকে সকাল পাঁচটা পর্যন্ত নাইট কার্ফু জারি থাকবে। তবে অত্যাবশ্যকীয় পণ্য পরিষেবার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

রবিবার স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৯৩ হাজার ২৪৯ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।যা আগের দিনের থেকে কয়েক হাজার বেশি। আপাতত দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ২৪ লক্ষ ৮৫ হাজার ৫০৯ জন। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, আপাতত মোট মৃতের সংখ্যা ১ লক্ষ ৬৪ হাজার ৬২৩ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৫১৩ জনের। এই সংখ্যাটাও আগের দিনের থেকে অনেক বেশি। তাৎপর্যপূর্ণভাবে দেশের পজিটিভিটি রেট গত কয়েকদিনে ৪.১১ শতাংশ থেকে বেড়ে ৪.৪৮ শতাংশ হয়ে গিয়েছে।