এবার করোনার বলি হলেন বিধায়ক! রাজ্য আর দেশ জুড়ে করোনা ঝড় অব্যাহত

376
এবার করোনার বলি হলেন বিধায়ক! রাজ্য আর দেশ জুড়ে করোনা ঝড় অব্যাহত 1

অশ্লেষা চৌধুরী: করোনার বলি হলেন তৃণমূল নেতা। করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল মুরারইয়ের বিদায়ী বিধায়ক আবদুর রহমানের। কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। শনিবার সকালে সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করার পর প্রায় এক মাস প্রচারও করেন তিনি। এরই মধ্যে তাঁর শরীরে থাবা বসায় মারণ ভাইরাস। সেইসময়, মুরারই বিধানসভা কেন্দ্রে নতুন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে তৃণমূল। এদিকে চিকিৎসার জন্য কলকাতায় নিয়ে আসা হয় আবদুরকে। কিন্তু শারীরিক অবস্থার ক্রমেই অবনতি হতে থাকে। অবশেষে শনিবার শেষ হয়ে গেল সকল লড়াই।

এবার করোনার বলি হলেন বিধায়ক! রাজ্য আর দেশ জুড়ে করোনা ঝড় অব্যাহত 2

এদিকে রাজ্যে আরও ভয়াবহ হয়ে উঠছে করোনা। গত ২৪ ঘন্টায় বাংলায় নতুন করে ৭,৭১৩ করোনায় আক্রান্ত, মৃত ৩৪ জন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে ৬,৫১,৫০৮ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। ১৭ এপ্রিলের হিসেব অনুযায়ী করোনার সক্রিয় কেস মোট ৪৫,৩০০। গত ২৪ ঘণ্টার নিরিখে, করোনার থাবা সবথেকে বেশি জোরালো হয়েছে কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনাতে। কলকাতায় দৈনিক সংক্রমণ বেড়ে ১,৯৯৮ আর উত্তর ২৪ পরগণায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনার কবলে পড়েছেন ১,৬৩৯ জন।

এবার করোনার বলি হলেন বিধায়ক! রাজ্য আর দেশ জুড়ে করোনা ঝড় অব্যাহত 3

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সারা দেশকে নাড়িয়ে দিয়েছে বিভিন্ন রাজ্যে স্বাস্থ্য পরিকাঠামোকে চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলে দিয়েছে এই মারণ ভাইরাস। দিল্লীতে করোনা যেন এখন আতঙ্কের নাম; গত ২৪ ঘন্টায় সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ২৪,০০০ জন। সংক্রমণ তীব্র গতিতে বেড়ে যাওয়ায় দেখা দিয়েছে অক্সিজেন সংকট। রেমডেসিভিরের যোগানের ঘাটতি দেখা যাচ্ছে। দিল্লিবাসীকে চরম সর্তকতা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তিনি জানিয়েছেন যে হারে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে তাতে হাসপাতালের বেডে ঘাটতি পড়ছে। ঘাটতি পড়ছে প্রাণ দায়ক ওষুধেও।

শনিবার সকলকে সতর্ক করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন , ”পরিস্থিতি অত্যন্ত গভীর এবং দুশ্চিন্তার। ক্রমেই বেড়ে চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা । পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ছিল কিন্তু যে হারে করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলেছে তাতে সামাল দেওয়া কঠিন হয়ে পড়ছে।’ ‘তিনি আরও বলেন, ” স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর একটি সীমাবদ্ধতা আছে, সরকার সাধ্যমত চেষ্টা করছে হাসপাতালে বেডের সংখ্যা বাড়ানোর। আশা করছি দু’চারদিনের মধ্যে নতুন ৬ হাজার বেডের ব্যবস্থা করা যাবে।”

এদিকে ২৪ ঘণ্টায় আবারও রেকর্ড সংক্রমণ দেশ জুড়ে। একদিনে আক্রান্ত প্রায় ২ লক্ষ ৩৫ হাজার, মৃত ১ হাজার ৩৪১ জন। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পেশ করা বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে ২ লক্ষ ৩৪ হাজার ৬৯২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। করোনার চোখ রাঙানিতে একের পর এক রাজ্যে জারি করা হয়েছে কার্ফু ও লকডাউন। এমতাবস্থায় দেশের ১১ রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে শনিবার বেলা ১১ টায় কথা বলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন। শুধু তাই নয়, এদিন রাত ৮ টায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কেন্দ্রীয় সরকারের শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গে একটি বৈঠকে বসেছেন কোভিড মোকাবেলায় জরুরি কী কী ব্যবস্থা নেওয়া যায় সেই প্রসঙ্গে।

Previous articleদেখে নিন আজকের রাশিফল একনজরে
Next articleপ্রয়াত অভিনেতা বিবেক; করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সকলের প্রিয় সোনু