অমিতাভ বিশ্বাসের দুটি কবিতা

117

অমিতাভ বিশ্বাসের দুটি কবিতা 1✍️কলমে: অমিতাভ বিশ্বাস

বিষাদ লেখ–১

এই বিষম প্যানডেমিক আবহে
বারবার মনে হয় ক্রুদ্ধ পৃথিবী
যেন ফেরত নিতে এসেছে তার
ক্ষয়ে যাওয়া হাড়ের কাঠামো

দ্বারে দ্বারে অস্থির কড়া নাড়ছে কেউ
রাশিরাশি কণাকণা জীবানু ছড়িয়ে
বিনিময়ে পরম আদরের ধন পথিক
জীবন, ঝুলি হাতে ভিক্ষে চাইছে

আরও পড়ুন -  একটি হলুদ রবিবারে

কাকতাড়ুয়াহীন যাপনের মাঠে
হাওয়ামোরগটির কাছে অসমাপ্ত কবিতার
রক্তশূণ্য ফ্যাকাসে পাণ্ডুলিপি গচ্ছিত রাখছি

দূরে- বহু আলোকবর্ষ দূরে চৈতন্যের গভীরে
বরফমাখা পাহাড়ে অজানা উচ্চাঙ্গ অস্ত্র হাতে
একদল এ্যলিয়েন ম্যামেথ শিকার করতে এসেছে…

বিষাদ লেখ -২

অধুনা বাকস্বাধীনতা খোলামকুচির মতো ভঙ্গুর
মুক্তচিন্তা, বহুত্ববাদ পিঞ্জরে আটকে থাকা পাখি
নিস্প্রতিবাদের কু-ডেকে ট্রেনটা ছুটছে অষ্টপ্রহর
হটর্-হটর্। জানি–মালিকের তনু, শ্রমিকের গতর

আরও পড়ুন -  একটি হলুদ রবিবারে

নিরন্তর মাথার ভিতর ঘুরপাক খায় কথা
বন্ধু, জানালাগুলো একে একে খুলে যাক
মনোরম স্নিগ্ধ হাওয়ায় —

অস্তিত্বরক্ষার প্রশ্নে ইন্টারনেট বন্ধ করে সমকাল আগে কাকে কাকে নাগরিকত্ব দিচ্ছে তার সুচারু
ডাটাবেস তৈরিতে মগ্ন আকাট বেকার…

অপ্রিয় কথাগুলো কে বলবে ?
তোষণের বাইরে বেরিয়ে
কথা বলার সাহস নেই ক্ষমতার
বিপদজনক সেন্সরশিপে আটকে রয়েছে কথা ।

অমিতাভ বিশ্বাসের দুটি কবিতা 2