আক্রান্ত একের পর এক চিকিৎসক,স্বাস্থ্যকর্মী! নেই বেড, উদ্বিগ্ন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ

746
আক্রান্ত একের পর এক চিকিৎসক,স্বাস্থ্যকর্মী! নেই বেড, উদ্বিগ্ন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ 1

ওয়েব ডেস্ক : রাজ্যে করোনা সংক্রমণের হার বেশ খানিকটা নিম্নমুখী হলেও সম্প্রতি ফের সংক্রমণের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে৷ একইসাথে বৃদ্ধি পাচ্ছে মৃতের সংখ্যা। সাধারণ মানুষের পাশাপাশি করোনা আক্রান্ত একাধিক চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী। বর্তমানে কলকাতায় করোনা সংক্রমণের পরিসংখ্যানে একেবারে প্রথমের সারিতে রয়েছে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। সেখানে একাধিক চিকিৎসক ও আধিকারিক করোনা আক্রান্ত। এর মধ্যে কিভাবে পরিস্থিতি সামাল দেবে, তা নিয়ে স্বাভাবিকভাবেই উদ্বিগ্ন মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষ। জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই সেখানে সংক্রমণের শিকার হয়েছেন কার্ডিওলজি বিভাগীয় প্রধান, প্রসূতি বিভাগের অধ্যাপক, অ্যাসিস্ট্যান্ট সুপার-সহ বেশ কয়েকজন। ইতিমধ্যেই তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। একেই করোনা পরিস্থিতি, তার মধ্যে পুজোর মরসুম, ফলে এই পরিস্থিতিতে একসঙ্গে একেরপর এক চিকিৎসক স্বাস্থ্যকর্মী সংক্রমিত হওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগ বাড়ছে স্বাস্থ্যভবনে।
প্রসঙ্গত, পুজোর মুখে রাজ্যে যেভাবে বাড়ছে সংক্রমণ, তাতে পুজোর পর আরও বেশি মাত্রায় করোনার দাপট বাড়তে পারে। ফলে সংক্রমণের আশঙ্কায় ইতিমধ্যেই কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আরও ৩০০ বেড বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ জানা গিয়েছে, পুজোর পর রাজ্যের করোনা পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে এই ৩০০ বেড বাড়ানো হবে বলে জানা গিয়েছে। কলকাতা মেডিক্যালে এই মুহূর্তে করোনা চিকিত্‍সার জন্য ৭০০ বেড রয়েছে। কিন্তু তারমধ্যে মাত্র কয়েক শতাংশ বেড এই মূহুর্তে খালি রয়েছে।

আক্রান্ত একের পর এক চিকিৎসক,স্বাস্থ্যকর্মী! নেই বেড, উদ্বিগ্ন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ 2

এদিকে পুজোর ঠিক পর পরই চালু হবে আরও বেড। নতুন বেড চালু হওয়ার পর সব মিলিয়ে বেড সংখ্যা দাঁড়াবে ১ হাজার। তবে শুধুমাত্র বেড সংখ্যা বাড়ালেই চলবে না। একই সাথে বাড়াতে হবে চিকিৎসকের সংখ্যা। এর জেরে ইতিমধ্যেই কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের তরফে স্বাস্থ্য ভবনে আরও চিকিত্‍সকের আবেদন করা হয়েছে৷ এবিষয়ে রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান ও মন্ত্রী নির্মল মাজি জানিয়েছেন, যেহেতু হাসপাতালে রোগী ভর্তির সংখ্যা বাড়ছে, সেকারণে পরিস্থিতি সামাল দিতেই আপাতত এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্যভবন।

আক্রান্ত একের পর এক চিকিৎসক,স্বাস্থ্যকর্মী! নেই বেড, উদ্বিগ্ন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ 3

Previous articleফের করোনা ঝাঁপালো মেদিনীপুরেই! খড়গপুরেও করোনাবান, জেলা জুড় দাপটে সংক্রমন
Next articleকরোনা আবহে এবছর পুজোয় সারারাত চলবে না মেট্রো পরিষেবা, জানালো মেট্রো কর্তৃপক্ষ