নির্ভয়ার ধর্ষকদের ফাঁসিতে খুশির বাঁধ ভাঙল খড়গপুরের, করোনার আতঙ্ক উড়িয়ে মহিলারা মেতে উঠলেন আবির খেলায়

174
নির্ভয়ার ধর্ষকদের ফাঁসিতে খুশির বাঁধ ভাঙল খড়গপুরের, করোনার আতঙ্ক উড়িয়ে মহিলারা মেতে উঠলেন আবির খেলায় 1

নিজস্ব সংবাদদাতা: সদ্য হোলি খেলেছে খড়গপুর। খড়গপুরের হোলি খেলা যাঁরা জানেন তাঁরা জানেন যে একদিন নয়, পরপর দু’ দিন হোলি খেলে খড়গপুর আর সেই খেলার রঙের দাগ সপ্তাহ পর সপ্তাহ জুড়ে থেকে যায় খড়গপুরের গায়ে। আর সেই দাগ মুছে যাওয়ার আগেই আরেক হোলি খেলা দেখল খড়গপুর। সারা দেশ যখন করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে জ্বরো জ্বরো তখন এই অন্য হোলি উড়িয়ে দিল সমস্ত ভয়, অন্তত কয়েক ঘন্টার জন্য।

সাত বছর তিন মাস পেরিয়ে শুক্রবার ভোরেই তিহার জেলে ফাঁসি হয়েছে দিল্লির নির্ভয়া কাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত চার ধর্ষকের। মৃত্যুদণ্ড ঘোষিত হওয়ার পর তিন তিনবার ফাঁসি পিছিয়ে যাওয়ার পর যখন সারা দেশ আশংকায় যে আদৌ দোষিদের সাজা হবে কিনা তখন শুক্রবার ভোরে সেই সাজা কার্যকর হয়। আর সেই খবর পাওয়ার পরই খুশিতে মেতে উঠলেন খড়গপুরের দীপ মহিলা সমিতির সদস্যারা। খড়গপুরের খরিদা এলাকায় সাবেক মিলনী সিনেমার গলি ছাড়িয়ে মাঠের মধ্যে সমিতির কার্যালয়ের সামনে চলল উদ্দাম আবির খেলা আর মিষ্টি বিতরন।

নির্ভয়ার ধর্ষকদের ফাঁসিতে খুশির বাঁধ ভাঙল খড়গপুরের, করোনার আতঙ্ক উড়িয়ে মহিলারা মেতে উঠলেন আবির খেলায় 2

করানোর জেরে যখন দেশজুড়ে জারি সর্তকতা তখন প্রধানমন্ত্রী মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশকে হেলায় উড়িয়ে তাঁরা উদযাপন করলেন এক ধর্ষিতার নৃশংস হত্যাকাণ্ডের জন্য দায়ী চার জল্লাদের শাস্তি পাওয়ার আনন্দকে। একাধিক মহিলার উপস্থিতিতে এদিন নির্ভয়া কাণ্ডের দোষীদের ফাঁসির সাজা কার্যকর হওয়ার দিনটিতে আকাশে উড়লো আবির, বাজলো ঢোল, তাসা। লাড্ডু দিয়ে চলল মিষ্টিমুখ। তার সঙ্গে মহিলাদের আনন্দ নৃত্য। এমনই দৃশ্য ধরা পড়ল। এই আনন্দে সামিল হতে দেখা গেল খড়গপুর চায়না টাউন এলাকার সাধারন মহিলাদেরও যাঁরা অনেকেই দীপ মহিলা সমিতির সদস্যার বাইরে সাধারন গৃহবধূ।

দীপ মহিলা সমিতির সভানেত্রী তথা কান্ডারী লক্ষ্মী জানালেন, করোনা নিয়ে সতর্কতা আছে, থাকবেও। সরকারের আদেশ নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে মানব কিন্তু এটাও মনে রাখতে হবে বারবার ওই জল্লাদদের ফাঁসি পিছিয়ে যাওয়ায় অসহায় বোধ করেছিলেন এ দেশের মহিলা সমাজ। বিচার ও আইনের প্রতি আস্থা , শ্রদ্ধা উঠে যাচ্ছিল। এই সাজা কার্যকর হওয়ায় আমরা খুবই খুশি । আজ এই দিনটাকে সামনে রেখে সাত বছর তিন মাস পরে নির্ভয়া কাণ্ডের দোষীদের ফাঁসি দেওয়াতে করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে ভুলে আমরা খুশিতে মাতলাম । আর এটা আমাদের বিচার ব্যবস্থাকেই শ্রদ্ধা জানালো।

Previous articleরাজ্য সরকারের নিষেধাজ্ঞা উড়িয়েই জমায়েত করেই চেক বিলি সবংয়ে
Next articleকরোনা সতর্কতা মানতে গিয়ে সরকারি আধিকারিক মার খাচ্ছেন আর সেই সতর্কতা উড়িয়ে বিধায়ক মোচ্ছব করছেন