করোনায় আক্রান্ত হলেন পিংলা থানার বড়বাবু (Officer Incharge), রয়েছেন হোম আইসোলেশনেই

1605
করোনায় আক্রান্ত হলেন পিংলা থানার বড়বাবু (Officer Incharge), রয়েছেন হোম আইসোলেশনেই 1

শশাঙ্ক প্রধান: পশ্চিম মেদিনীপুরের পিংলা(Pingla Police Station) থানার বড়বাবু তথা ওসি (Officer Incharge) শঙ্খ চ্যাটার্জী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। সোমবার আ্যন্টিজেন পরীক্ষায় তাঁর পজিটিভ এসেছে বলে পুলিশের একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে যদিও তাঁর শরীরে তেমন কোনও উপসর্গ নেই বলেই জানা গিয়েছে। বর্তমানে তিনি নিজের আবাসনেই হোম আইসোলেশন বা নিভৃতবাসে রয়েছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে দু’তিন ধরে ঠান্ডা লাগা জনিত অস্বস্তিতে ভুগছিলেন শঙ্খ চ্যাটার্জী। সন্দেহ হওয়াতে পিংলা গ্রামীন হাসপাতালে আ্যন্টিজেন পরীক্ষা করাতে যান। কিছুক্ষণ পরেই জানা যায় তিনি পজিটিভ। এরপরই উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানিয়ে তিনি নিভৃতবাসে চলে যান। আপাততঃ বিশ্রামে থাকার জন্যই পরামর্শ দেওয়া হয়েছে তাঁকে। খুবই জরুরি বিষয়ে বাড়ি থেকেই থানার অন্যান্য আধিকারিকদের পরামর্শ দেবেন তিনি।

করোনায় আক্রান্ত হলেন পিংলা থানার বড়বাবু (Officer Incharge), রয়েছেন হোম আইসোলেশনেই 2

উল্লেখ্য এর আগে পিংলা থানার মোট ৭ জন কর্মী আক্রান্ত হয়েছিলেন যাঁদের মধ্যে ৪ জন সিভিক ভলান্টিয়ার ছাড়াও ১জন করে মহিলা ও পুরুষ কনস্টেবল আক্রান্ত হয়েছিলেন। তাছাড়াও আক্রান্ত হয়েছিলেন একজন আধিকারিক। ওসিকে নিয়ে সেই সংখ্যা আটজনে পৌছালো। থানা সূত্রে জানা গেছে ওই সাতজনই বর্তমানে সুস্থ হয়ে কাজে ফিরেছেন। মাত্র ক’দিন আগেই পিংলার বিএমওএইচ (Block Medical Officer of Health) ডঃ উৎপল রায় আক্রান্ত হয়েছেন। তিনিও বর্তমানে হোম আইসোলেশনেই রয়েছেন।

আরও পড়ুন -  হেমতাবাদের বিধায়কের মৃত্যুতে কেন্দ্র-রাজ্যকে নোটিশ সুপ্রিম কোর্টের, সিবিআই তদন্ত নিয়ে আশাবাদী বিজেপি নেতৃত্ব

প্রসঙ্গত এ মাসের গোড়াতেই পিংলার পার্শ্ববর্তী থানা সবংয়ের OC সুব্রত বিশ্বাস আক্রান্ত হয়েছিলেন। প্রায় পরে পরেই আক্রান্ত হন সবং থানার মেজোবাবু বা সেকেন্ড অফিসার অতনু প্রামানিক। বড়বাবু ভাল হয়ে ফিরলেও দুর্ভাগ্যজনক মৃত্যু হয় অতনু প্রামানিকের। মাত্র ৩৮ বছরে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার ওই প্রথম পুলিশ আধিকারিকের মৃত্যু নাড়িয়ে দেয় গোটা জেলাকে।
অন্যদিকে তার ঠিক দু’দিন আগেই করোনা আক্রান্ত হয়ে পিংলা থানারই প্রখ্যাত চিকিৎসক মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে কর্মরত ৩৭ বছরের ডঃ সুরেন্দ্রনাথ বেরার মৃত্যু হয় কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে। সব মিলিয়ে একটা দুশ্চিন্তার পরিবেশ কাজ করছে এই এলাকায়। তারই মধ্যে তরুণ এই পুলিশ আধিকারিকের করোনা আক্রান্ত হওয়ায় উদ্বেগ রয়েছে। যদিও সেরকম কোনও উদ্বেগের কারন নেই বলেই জানানো হয়েছে জেলা স্বাস্থ্যদপ্তরের পক্ষ থেকে। বলা হয়েছে, যথেষ্টই সুস্থ রয়েছেন পিংলার ওসি। জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের পক্ষ থেকে নজরে রাখা হয়েছে তাঁর স্বাস্থ্যের প্রতি।