রাজনৈতিক হিংসার পরই জোর তল্লাশিতে কেন্দ্রীয় বাহিনী ও পুলিশ! মেদিনীপুরের ছেড়ুয়া থেকে উদ্ধার বস্তা বস্তা বাজি ও বাজির মশলা

586
রাজনৈতিক হিংসার পরই জোর তল্লাশিতে কেন্দ্রীয় বাহিনী ও পুলিশ! মেদিনীপুরের ছেড়ুয়া থেকে উদ্ধার বস্তা বস্তা বাজি ও বাজির মশলা 1

নিজস্ব সংবাদদাতা: মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার দিন তৃনমূল এবং বিজেপির মধ্যে সংঘর্ষের পরিপ্রেক্ষিতে মেদিনীপুর সদর ব্লকের কয়েকটি গ্রামে ব্যাপক তল্লাশি চালালো রাজ্য পুলিশ এবং কেন্দ্রীয় বাহিনী। এই ঘটনায় ছেড়ুয়া গ্রাম থেকে কয়েক বস্তা বাজি বাজেয়াপ্ত করল পুলিশ। ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করা না হলেও যে সমস্ত বাড়ি থেকে এই সব বাজি এবং বারুদ পাওয়া গেছে তাদের তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। উপযুক্ত কাগজপত্র দেখাতে না পারলে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে পুলিশ জানিয়েছে।

রাজনৈতিক হিংসার পরই জোর তল্লাশিতে কেন্দ্রীয় বাহিনী ও পুলিশ! মেদিনীপুরের ছেড়ুয়া থেকে উদ্ধার বস্তা বস্তা বাজি ও বাজির মশলা 2

উল্লেখ্য মঙ্গলবার মেদিনীপুর সদরের হাতিহালকা গ্রামের মোড়ে বিজেপি এবং তৃনমূলের মধ্যে সংঘর্ষ হয় বলে জানা গেছে। ঘটনায় দুপক্ষই অন্যপক্ষকে দায়ী করে। তৃনমূলের পক্ষে দাবি করা হয় তারা যখন হাতিহলকা মোড়ে বসে নিজেদের মধ্যে গল্প গুজব করছিল তখন হঠাৎ করে বিজেপির লোকেরা তাদের ওপর অতর্কিতে আক্রমন করে।

রাজনৈতিক হিংসার পরই জোর তল্লাশিতে কেন্দ্রীয় বাহিনী ও পুলিশ! মেদিনীপুরের ছেড়ুয়া থেকে উদ্ধার বস্তা বস্তা বাজি ও বাজির মশলা 3

পাল্টা বিজেপির পক্ষ থেকে দাবি করা হয় তারা যখন তাদের প্রার্থীর সমর্থনে খড়গপুরে মনোনয়ন দিয়ে ফিরছিলেন তখন পরিকল্পনা মাফিক তৃনমূলের বাহিনী বাঁশ, লাঠি নিয়ে আক্রমন চালায়। সেই আক্রমনে তাঁদের রক্তাক্ত হতে হয়েছে। মাথাও ফেটে যায় একজনের। দুপক্ষই রাতে হাসপাতালে হাজির হয় চিকিৎসার জন্য।

বুধবার সকাল থেকেই রাজ্য পুলিশের সাথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা হাতিহলকা সহ এলাকার বিভিন্ন গ্রামে রুট মার্চ শুরু করে। পুলিশের পক্ষ থেকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলে দেওয়া হয়েছে নির্বাচনের প্রাক্কালে কোথাও কোনও রকম গন্ডগোলের চেষ্টা করা হলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সন্ধ্যের পর পাড়ার মোড়, চক, বাজার এলাকায় অপ্রয়োজনীয় জটলা করতেও নিষেধ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য এলাকাটি মেদিনীপুর সদর মহকুমার মধ্যে হলেও খড়গপুর গ্রামীন বিধানসভার অংশ। প্রতিবছরই নির্বাচনের সময় উত্তপ্ত হয় এই এলাকা। সে কথা মাথায় রেখে এলাকার ওপর বিশেষ নজর রাখা হচ্ছে। এলাকায় রুট মার্চ করে মানুষের মধ্যে আস্থা ফিরিয়ে আনার চেষ্টায় বাহিনী।

Previous articleপামেলা-কাণ্ডে নয়া মোড়; সুইটির বয়ানে ধৃত আরও ২ মাদক কারবারী
Next articleমমতা বললেন, ‘দেখো কিতনা ফুল গিয়া হ্যায়!’ ষড়যন্ত্রের দ্বিতীয় দিন,গুরুতর চোট পেয়ে নন্দীগ্রাম ছাড়লেন মমতা, ভণ্ডামি বললেন অধীর