ঘরে ফিরতে চাওয়া শ্রমিকদের ওপর লাঠি চার্জ করার অভিযোগ বাঁকুড়া সীমান্তে, পথ অবরোধে সামিল হলেন তাঁরা

1747
ঘরে ফিরতে চাওয়া শ্রমিকদের ওপর লাঠি চার্জ করার অভিযোগ বাঁকুড়া সীমান্তে, পথ অবরোধে সামিল হলেন তাঁরা 1

নিজস্ব সংবাদদাতা: নারী সহ একাধিক শ্রমিকদের ওপর লাঠি চার্জ করার অভিযোগ নিয়ে পথ অবরোধে সামিল হলেন পরিযায়ী শ্রমিকদের দল। ঘটনাকে ঘিরে নিয়ে চরম উত্তেজনা পশ্চিম বর্ধমান এবং বাঁকুড়া জেলার সীমান্ত রানীগঞ্জের মেজিয়া ব্রিজে। অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরে আটকে ছিল নারী ও পুরুষ সহ এই শয়ে শয়ে শ্রমিকের দলটি সঙ্গে একাধিক শিশুও রয়েছে। রাজ্য সরকার কোনও খাওয়ার ব্যবস্থাই করেনি। মালিকরাও দায়িত্ব এড়িয়ে গেছে। ধৈর্যের বাঁধ ভেঙেছে তাঁদের। এরপরই কয়েকশো পরিযায়ী ইটভাটার শ্রমিক বাঁকুড়া এবং পুরুলিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিল বৃহস্পতিবার রাত্রে।

মেজিয়া ব্রিজ এর কাছে তাদেরকে আটকে দেয় বাঁকুড়া জেলার মেজিয়া থানার পুলিশ। শ্রমিকদের অভিযোগ বাঁকুড়া পুলিশের পক্ষ থেকে গতকাল রাত্রে তাদের উপর লাঠিচার্জ করা হয়েছে। এই লাঠিচার্জের ফলে বেশকিছু মহিলা আহত বলে তাদের অভিযোগ। তাদেরকে জল, খাবার কোন কিছুই দেওয়া হয়নি।শুক্রবার সকালে পুনরায় তারা বাঁকুড়ায় ঢোকার চেষ্টা করলে পুলিশ প্রশাসন তাদেরকে আটকে দেয়। এরই প্রতিবাদে ৬০ নম্বর জাতীয় সড়ক রানীগঞ্জের মেজিয়া ব্রিজ এর কাছে পথ অবরোধ শুরু করে দেয় এই ইটভাটার পরিযায়ী শ্রমিকরা।

ঘরে ফিরতে চাওয়া শ্রমিকদের ওপর লাঠি চার্জ করার অভিযোগ বাঁকুড়া সীমান্তে, পথ অবরোধে সামিল হলেন তাঁরা 2

রানীগঞ্জ থানার পুলিশ বাঁকুড়া পুলিশের সঙ্গে কথা বললেও কোন সমাধান সূত্র বের না হওয়ায় বিপাকে কয়েকশো পরিযায়ী শ্রমিক। অধিকাংশই মহিলা এবং শিশু। বাঁকুড়া এদের এগুতে দিতে চাইছেনা অন্যদিকে শ্রমিকরাও পিছু হটতে নারাজ। এমতাবস্থায় পথেই বসে পড়েছেন তাঁরা। এলাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন রয়েছে। পুলিশের তরফে অবশ্য লাঠিচার্জ করার কথা অস্বীকার করা হয়েছে।

Previous articleপ্রবল ঝড়ে লন্ডভন্ড বেলপাহাড়ীর ভেলাইডিহার গ্রাম, ঝড়ে উড়ল ঘরের চাল, উপড়ে পড়ল বিশালাকার বৃক্ষ
Next articleবেলাগাম কলকাতা আর হাওড়াই, আক্রান্তের সংখ্যায় ফের রেকর্ড রাজ্যের