ভোটের ঘন্টা বাজার মুখেই রাজ্য পুলিশে ব্যাপক রদবদল! তালিকায় ডায়মন্ডহারবারের পুলিশ সুপারও

463
ভোটের ঘন্টা বাজার মুখেই রাজ্য পুলিশে ব্যাপক রদবদল! তালিকায় ডায়মন্ডহারবারের পুলিশ সুপারও 1

নিউজ ডেস্ক : নির্বাচনের বাজনা প্রায় বেজেই গেছে। তারই আগে নবান্নের নির্দেশে সোমবার রাজ্য পুলিশে ব্যাপক রদবদল হয়েছে। সেই তালিকায় রয়েছে ডায়মন্ড হারবারের পুলিশ সুপারের নাম।কয়েকদিন আগেই বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার কনভয়ে হামলার ঘটনা ঘটে। ডায়মন্ড হারবার যাওয়ার পথেই সেই হামলা হয়। তার নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন ভোলানাথ পান্ডে৷ ঘটনার পরই ভোলানাথ পাণ্ডে সহ তিন আইপিএস আধিকারিককে ডেপুটেশনে চেয়ে পাঠায় যদিও রাজ্য তা মানেননি। ফলে তাঁরা রাজ্যেই রয়ে যায়।

এই ঘটনার পরই  তাঁকে হোমগার্ডের এসপি, অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ পদে পাঠানো হয়েছে৷ যদিও নবান্নের তরফে একে ‘রুটিন’ বদলি বলা হয়েছে। নবান্ন থেকে জারি করা নির্দেশিকায় উল্লেখ করা হয়েছে, ডায়মন্ড হারবার-কাণ্ডে বিতর্কিত পুলিশ অফিসার ভোলানাথ পাণ্ডেকে বদলি করা হয়েছে হোমগার্ডের এসপি পদে। তার জায়গায় ডায়মন্ড হারবারে পাঠানো হয়েছে বারাসত পুলিশ জেলার এসপি অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়কে৷

ভোটের ঘন্টা বাজার মুখেই রাজ্য পুলিশে ব্যাপক রদবদল! তালিকায় ডায়মন্ডহারবারের পুলিশ সুপারও 2

এছাড়া এদিন আরও কয়েক জন পুলিশ কর্তার বদলি হয়েছে৷ তাদের মধ্যে রয়েছেন হাওড়া পুলিশ কমিশনারেটের ডিসি রাজনারায়ণ মুখোপাধ্যায়৷ তাকে বারাসতের এসপি পদে বদলি করা হয়েছে৷ শিবপ্রসাদ পাত্রকে ডেপুটি কমান্ডান্ট, রাজ্য সশস্ত্র পুলিশ তৃতীয় ব্যাটালিয়ন থেকে হুগলি গ্রামীণের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার করা হয়েছে।

হুগলি গ্রামীণের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুরিন্দর সিংহকে হাওড়া গ্রামীণের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পদে বদলি করা হয়েছে। অন্যদিকে হাওড়া গ্রামীণের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রানা মুখোপাধ্যায়কে রাজ্য সশস্ত্র পুলিশের তৃতীয় ব্যাটালিয়নের ডেপুটি কমান্ডান্টের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে৷ একই সঙ্গে ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের এসিপি অসীম খানকে ফরাক্কার এসডিপিও পদে বদলি করা হয়েছে৷

এমনিতেই নির্বাচনের প্রাক্কালে নির্বাচন কমিশন পুলিশে রদবদল করে থাকেন। সাধারণভাবে তিনবছর একই জায়গায় রয়েছেন সেই সব আধিকারিকরা রয়েছেন তাঁদের আবশ্যিক বদলি হয়ে থাকে। তবে কারও বিরুদ্ধে বিরোধীদের শাসক ঘনিষ্ঠতার অভিযোগ থাকলেও কমিশন বদলি করে থাকতেই পারেন। অনেক সময় তার আগেই শাসকদল আধিকারিকদের বদলি করে দেন যাতে শাসকদল সুবিধা পেতে পারে। এই অভিযোগ প্রায়শই বিরোধীরা করে থাকে। শাসকদল অবশ্য একেও রুটিন বদলি বলে থাকে।