মায়ানগরীর মায়া কাটিয়ে চির বিদায় বলিউডের মাহির, গোটা মুম্বাই কাঁদল সকাল থেকেই, মৃত্যু নিয়ে তদন্ত শুরু, পুলিশ কথা বলল রিয়ার সাথে

552

ওয়েব ডেস্ক: প্রিয় সন্তান হারানোর বেদনাই যেন টুপ টুপ করে ঝরে পড়ছিল মায়ানগরীর মাটিতে। সকাল থেকেই আজ আকাশের মুখ ভার। মুম্বাইয়ের আকাশে ঝিরিঝিরি বৃষ্টি। জনপ্রিয় অভিনেতার বিদায়কালে আকাশও যেন নীরবতা পালন করলো। সবাইকে কাঁদিয়ে মুম্বাইয়ের রাজপথ দিয়ে অচিরেই চলে গেলেন সুশান্ত সিং রাজপুতের মরদেহ। সোমবার বিকেল ৫ টা নাগাদ ভিলে পার্লেতে পবনহংস শ্মশানে শেষকৃত্য হয় অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুতের।

করোনা সংক্রমণের জেরে এই মূহুর্তে সরকারের তরফে শেষকৃত্যে বেশকিছু বিধিনিষেধ ছিল। ফলে, শেষকৃত্যে ২০ জনের উপস্থিত থাকার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। ফলে পরিবারের পাশাপাশি এদিন বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তী, বন্ধু সন্দীপ সিংহ, কৃতী স্যানন, শ্রদ্ধা কপূর, রণবীর সুরি, বিবেক ওবেরয়, একতা কপূর, বরুণ শর্মা সহ সুশান্তের টেলিভিশনের সহ অভিনেতারাও এদিন উপস্থিত ছিলেন।

ছেলের মৃত্যুর খবর শোনার পর থেকেই বারবার সংজ্ঞা হারিয়েছেন সুশান্তের বাবা। এরপর সোমবার দুপুরে ছেলের শেষকৃত্যে পাটনা থেকে মুম্বইতে এসে পৌঁছেছেন সুশান্তের বাবা কৃষ্ণ কুমার সিং এবং তাঁর আত্মীয়স্বজনেরা। মুম্বই প্রশাসনের পক্ষ থেকে সুশান্তের মরদেহ পাটনা নিয়ে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়। কিন্তু পরিবারের তরফে জানানো হয় যেই শহর থেকে সুশান্তকে চিনেছেন গোটা দেশ, সেই শহরেই ওঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে চান তারা। শেষে মুম্বাইতেই সুশান্তের মরদেহ পঞ্চভূতে বিলীন করেন পরিবারের লোকজন। অভিনেতার অকাল প্রয়াণে শোকস্তব্ধ গোটা দেশ। তার মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন ক্রিকেটার থেকে রাজনীতিবিদ সকলে। তবে কেন আত্মহত্যা করলেন বছর ৩৪ এর প্রাণবন্ত ছেলেটি তার তদন্ত শুরু করেছেন পুলিশ।

আরও পড়ুন -  খড়গপুরে চিনা মাঞ্জায় কিশোরের মৃত্যুর ঘটনায় হোমে পাঠানো হল অভিযুক্ত কিশোরকে

সুশান্তের মৃত্যুতে এক রাশ আক্ষেপ ঝরে পড়ছে বলি দুনিয়ায়। প্রখ্যাত অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত একে আত্মহত্যা না বলে খুন বলেছেন। জানিয়েছেন, কী ভাবে কথায় কথায় সমস্ত প্রতিষ্ঠা থেকে ছুঁড়ে ফেলার হুমকি আসে বলিউডের একাংশের কাছ থেকে। প্রতি মুহূর্তেই সর্বস্ব হারানোর অসম্ভব মানসিক চাপের মুখে কাজ করতে হয় শিল্পী কলাকুশলীদের। সেই চাপ সুশান্তের ক্ষেত্রেও ছিল কী না তদন্ত করে দেখার কথা বলেন তিনি। কঙ্গনা ছাড়াও সুশান্তের এই মৃত্যু নিয়ে কঠিন প্রশ্ন তোলেন স্বপ্না ভবানি,শেখর কাপুর,রণবীর শোরে, অনুভব সিনহার মতো বলিউড ব্যক্তিত্বরা। সুশান্তের মৃত্যু ফের বলিউডের স্বজনপোষণ বিতর্ককে উসকে দেয়। বক্স অফিসে সুশান্তের শেষ ছবি ছিঁছোড়ে হিট হওয়া সত্ত্বে কেন ‘দিল বেচারা’ ছাড়া কোন ছবি ছিল না তাঁর হাতে? প্রশ্ন উঠেছে।

আরও পড়ুন -  বোনের বাড়ির অদুরেই খড়গপুর শহর ঘেঁষে জাতীয় সড়কে দুর্ঘটনায় মৃত ঝাড়গ্রাম জেলাবাসী পুলিশের কনস্টেবল

রবিবারই বান্দ্রার কুপার হাসপাতালে অভিনেতার ময়নাতদন্ত করা হয়। ৩ চিকিৎসকের একটি দল সুশান্ত সিং রাজপুতের অটোপসি করেছিলেন। মৃত্যুর প্রাথমিক কারণ ‘ঝুলে পড়বার কারণে দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু’, সংবাদ সংস্থা এএনআইকে জানিয়েছিলেন ডিসিপি অভিশেক ত্রিমুখ। যদিও যদিও আত্মহত্যার তত্ত্ব মানতে নারাজ সুশান্তের পরিবার। অভিনেতার মামা-জামাইবাবু সকলেই ঘটনার উপযুক্ত তদন্তের দাবি জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন -  ফাঁস হল গেরুয়া ভ্রষ্টাচার, জামিয়ার ছাত্র আন্দোলনকে বিকৃত করতে ভুয়ো ছবি পোষ্ট করল বিজেপি মিডিয়া সেল

সুশান্তের ফ্ল্যাট থেকে মেলেনি কোনও সুইসাইড নোট।কিন্তু পুলিশ জানিয়েছে এটা প্রমাণিত ক্লিনিক্যাল ডিপ্রেশনে ভুগছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত। মনোবিদের পরামর্শ নিচ্ছিলেন,তাঁর অ্যাপর্টমেন্ট থেকে মিলেছে প্রেসক্রিবশন,ওষুধ, জানিয়েছে মুম্বই পুলিশ।

তবে সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে বড়সড় মন্তব্য করেন মহারাষ্ট্রের গৃহমন্ত্রী অনিল দেশমুখ। তিনি টুইট বার্তায় লেখেন, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট বলছে অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত সুইসাইড করেছেন, গলায় ফাঁস লাগিয়ে। অনেক মিডিয়া রিপোর্ট বলছে পেশাদার জীবনে রেষারেষির কারণেই নাকি ক্লিনিক্যাল ডিপ্রেশনে চলে যান সুশান্ত,সেই দিকটাও খতিয়ে দেখছে পুলিশ,পূর্ন তদন্ত হবে। সোমবারই সুশান্তের বাগদত্তা রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গে এক দফা কথাবার্তাও চালিয়েছে পুলিশ। পুলিশ যে তদন্তের কাজ শুরু করে দিয়েছে তা রিয়া চক্রবর্তীর কথা বলে বুঝিয়ে দিয়েছে।

মায়ানগরীর মায়া কাটিয়ে চির বিদায় বলিউডের মাহির, গোটা মুম্বাই কাঁদল সকাল থেকেই, মৃত্যু নিয়ে তদন্ত শুরু, পুলিশ কথা বলল রিয়ার সাথে 1