রাজ্যে ক্রমশ উর্ধমুখী করোনা সংক্রমণ; দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ২১ হাজার ছুঁইছুঁই

115
Advertisement

নিউজ ডেস্ক: ভারতে তথা রাজ্যে করোনা ভাইরাসের কারণে পরিস্থিতি দিন দিন আরও খারাপ হচ্ছে এবং দ্রুত কেস বৃদ্ধি পাওয়ায় মৃত্যুর পরিসংখ্যানও বাড়ছে। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য দপ্তরের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত ২০ হাজার ৮৩৯ জন এবং মৃত ১২৯ জন। পশ্চিমবঙ্গে করোনার সক্রিয় রোগী রয়েছেন ১ লক্ষ ৩০ হাজার ২১৩ জন।

Advertisement

আশঙ্কার মাঝে অবশ্য স্বস্তির খবরও রয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা যুদ্ধে জয়ী হয়েছেন ১৯ হাজার ১৮১ জন, যার ফলে এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনামুক্তির হার পৌঁছে গেল ৮৬.৬৮ শতাংশে। গত একদিনে রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ৭০ হাজার ৪৭৩টি। এর মধ্যে ২১ হাজার ৮৩৯ জনের রিপোর্ট পজিটিভ। যার ফলে এই মুহূর্তে রাজ্যের সংক্রমণের হার ৯.৫৬ শতাংশ।

Advertisement
Advertisement

রাজ্যে করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্থ দুই জেলা উত্তর ২৪ পরগনায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ১৩১ জন মানুষ এবং কলকাতায় ৩ হাজার ৯২৪ জন। কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগনায় মৃত্যু হয়েছে ৩৯ ও ২৫ জনের। কলকাতা, উত্তর ২৪ পরগণার পাশাপাশি চিন্তা বাড়াচ্ছে দক্ষিণ ২৪ পরগণা, হাওড়া, হুগলি, পশ্চিম বর্ধমান, নদিয়া, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাও।

অন্যদিকে বুধবার করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন ২০ হাজার ৩৭৭ জন মানুষ এবং মৃত্যু হয়েছিল ১৩৫ জনের। করোনা মুক্ত হয়েছিলেন ১৯ হাজার ২৩১ জন। সংক্রমণের সংখ্যার মতোই সুস্থতার পরিসংখ্যানের বিচারে যা সর্বোচ্চ ছিল।

গত রবিবার রাজ্যে নতুন করে করোনা সংক্রমিত হয়েছিলেন ১৯ হাজার ৪৪১ জন। মৃত্যু হয়েছিল ১২৪ জন মানুষের। আর শনিবার রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন ১৯ হাজার ৪৩৬ জন। একদিনে করোনায় ১২৭ জনের মৃত্যু হয়েছিল। শতাধিক মৃত্যুর যে রেশ অব্যাহত রইল।