করোনায় মৃতদের সৎকার বন্ধের দাবিতে সরব জলপাইগুড়ি মাসকালাইবাড়ির বাসিন্দারা,পরিস্থিতি সামাল দিতে ময়দানে প্রশাসন

75
Advertisement

নিউজ ডেস্ক: করোনায় আক্রান্ত মৃতদেহ পোড়ানো বন্ধের দাবি সহ এলাকাকে জীবাণুমুক্ত করার দাবিতে পথ অবরোধ করল স্থানীয় বাসিন্দারা। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা পরিস্থিতি তৈরি হয় জলপাইগুড়ি পুরসভার ২২ নম্বর ওয়ার্ডের মাসকালাইবাড়ি এলাকায়।

Advertisement

পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে আসে জলপাইগুড়ি কোতোয়ালি থানার পুলিশ। আসেন পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের সদস্যরা। রাজ্য সরকারের নির্দেশ মতো জলপাইগুড়ির মাসকালাইবাড়ি শ্মশানেও কোভিডে আক্রান্ত মৃতদের সৎকারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তবে যে পরিমাণ দেহ দাহ করার কথা ছিল তার চেয়ে অনেক বেশি মৃতদেহ দাহ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ। এছাড়া এলাকা জীবাণুনাশক স্প্রে করা হচ্ছে না বলে অভিযোগ তাদের। এর‌ই প্রতিবাদে সোমবার দুপুরে মাসকালাইবাড়ির প্রধান রাস্তা অবরোধ করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। মহিলারা রাস্তায় বসে পড়ে অবরোধে সামিল হন। ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়ায় গোটা এলাকায়। স্থানীয় বাসিন্দা মামন দাস বলেন, করোনায় মৃতদের দাহ করা হচ্ছে মাসকলাইবাড়ি শ্মশানে। এজন্য আমরা খুবই আতঙ্কে রয়েছি। বলেন, আমরা জানতাম প্রতিদিন একটি করে দেহ পোড়ানো হবে। কিন্তু দেখা যাচ্ছে এর চেয়ে অনেক বেশি দেহ প্রতিদিনই পোড়ানো হচ্ছে।

Advertisement
Advertisement

এছাড়া এই এলাকা‌কে ঠিকমত জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে না বলেও অভিযোগ। এদিন পথ অবরোধে সামিল হন এলাকার শতাধিক মানুষ। স্থানীয় বাসিন্দা শঙ্খমানি দাস বলেন, কোভিডের দেহগুলি দাহ করার ফলে এলাকায় অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ তৈরি হচ্ছে। ছোট ছোট শিশুদের শ্বাসকষ্ট পর্যন্ত হচ্ছে। আমরা চাইছি, পুরসভার পক্ষ থেকে যথাযথ সুরক্ষা ব্যবস্থার দিকে নজর দেওয়া হোক। পথ অবরোধ চলাকালীন কিছুক্ষণের মধ্যে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় জলপাইগুড়ি কোতোয়ালি থানার পুলিশ। আসেন পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের সদস্য সৈকত চ্যাটার্জি। ‌বেশ কিছুক্ষণ স্থানীয় বাসিন্দাদের সাথে আলোচনা করেন তিনি। সৈকত চ‍্যাটার্জি বলেন, সরকারের নির্দেশে এখানে করোনায় আক্রান্ত মৃতদের দাহ করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। ঠিকমতো এই এলাকা জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে না, এ কথা সম্পূর্ণ ভুল। বলেন, সোমবার সকালেও গোটা এলাকা জীবাণুমুক্ত করা হয়েছে।