তুলসীদাস মাইতির দুটি কবিতা

44

তুলসীদাস মাইতির দুটি কবিতা 1✍️কলমে: তুলসীদাস মাইতি

মহাকাল ও হরপ্পার কথা

হরপ্পার পায়ে পায়ে ছিল আলোর দৃশ্যপথ।
ইতিহাসে জেগে থাকা অন্ধকারের ভেতর ছিল তবু অজস্র ক্ষয়ে হাজারো জিজ্ঞাসা ।
মৃতদিন ঘিরে ঘিরে ছিল স্বপ্নের আকাঙ্ক্ষা
পৃথিবীও একদিন মরণ উপত্যকায় এলে ডুবে যাবে কাল মহাকালের অতল ঘুমে ।

আরও পড়ুন -  একটি হলুদ রবিবারে

তবুও তো বাসনা তার মরা ছায়াদের
পাশে পাশে থাকে।
বসন্ত বাতাসের দিনে প্রাচীন পাতাটির মতো আকাশের দিকে চেয়ে ।

অনন্ত জীবন-অনন্ত মৃত্যু মাঝে বাঁচে ইতিহাস
বাঁচে প্রাণ আর
হরপ্পার জলাধার ও তার প্রত্নশরীর ।

মৃত্যুশোক ও জন্মদিনের উল্লাস

আরও পড়ুন -  কুসুমে কুসুম পরাগ

প্রিয় বাসভূমি আর কোলাহল ফেলে অতল ঘুমে নির্বিকার নদী তীর, পোড়া কলস ছুয়ে ছিন্ন মায়া।
বিন্নি খৈ উড়ে গেছে হাওয়ায়,এঁকে গেছে কেউ
স্মৃতির নিঃশব্দ রঙিন মুখ।
হরিকথার কলরব রাত্রির অন্ধকারে মিশে যায় । আধপোড়া কাঠ আর আধপোড়া স্বপ্নের নিঃসঙ্গতা নিয়ে দাহভূমি জেগে থাকে অন্ধকারে ।

আরও পড়ুন -  দ্বৈধ

কাকেদের হাহাকারে তবু সকাল আসে। স্মরণকালের ছায়া পুড়তে থাকে নান্দীমুখ ঘরে । জনপদে আজও কিসের উত্‍সব !
বুঝি আজ জন্মদিন কারও। দাহভূমিতে কে ভাঙে ছাইধুলোর ঘর ?

সুখধ্বনিও উঠুক তবে আজ!
মহাকালের চলাচলে মৃত্যুশোক ও জন্মের উল্লাস ।

তুলসীদাস মাইতির দুটি কবিতা 2