দুষ্মন্ত

85
দুষ্মন্ত 1

দুষ্মন্ত 2✍️কলমে: মধুমিতা বেতাল

নীল দিঘির ঢেউয়ে কোষ্ঠিপাথর ফেলে
তুলে এনেছি দুষ্মন্ত,
হুবহু শকুন্তলা হয়েছি স্বভাবে।
কুসুম কুসুম চোখের নীশানায় জীবন গুছিয়ে
মৃতসঞ্জিবনীর ডাল চিরে বানিয়েছি
প্রেমের কলমচারা।
কোনো এক অলৌকিক ধ্বনির উচ্চারণে
তুমি বারংবার মহোৎসব ডেকে এনেছ আমার নামে।

দুষ্মন্ত 3

কী বলি বলোতো…!
মাঝে মাঝে বড়ো অভিমান হয়…
ক্ষয় ঢাকতে ঢাকতে বাউন্ডুলে পোশাকের সঙ্গে পরজন্মের গল্প শুনি।
পিরামিডের টুকরো টুকরো খণ্ডে সপ্তঋষির
পবিত্রতা লিখে বিনা মন্ত্রে হোমাগ্নী জ্বালি।
সিন্দুক খুলে বসি দুরন্ত ঝড়ের মুখে,
পোড়া নিদ্রার দির্ঘ রাত্রির কণ্ঠে
কবিতার পঙক্তি ছাপায়।

আরও পড়ুন -  মিথ্যা আস্ফালন

আংটি খুব যতনেই থাক আঙুলে।
দুষ্মন্ত এবার তুমি একটা পাহাড় হয়ে দাঁড়াও
বৃষ্টি থেকে শুষে নাও মাটি মাটি স্বাদ।