সুচরিতা চক্রবর্তীর তিনটি কবিতা

247
সুচরিতা চক্রবর্তীর তিনটি কবিতা 1
সুচরিতা চক্রবর্তীর তিনটি কবিতা 2

সুচরিতা চক্রবর্তীর তিনটি কবিতা 3✍️কলমে: সুচরিতা চক্রবর্তী

 

সুচরিতা চক্রবর্তীর তিনটি কবিতা 4

ঝড়ের আওয়াজ

আজ উনুন জ্বেলেছি রোদ উঠেছে বেশ
ওল্টানো তুলসীপাতা যত্নে পেতেছি লিঙ্গে।
সেরে গেছে সব অসুখ যদিও তা নয়
ভাবছিলাম কাল থেকে কাজে যাবো
প্রতিদিন রোজের যে কী প্রয়োজন!
দুই কিলো চাল জানে আর জ্যান্ত মাছ।
কেউ খোঁজ নেয় না চালের কিলো কত
কোলের বাচ্চাটাও বড়ো ঘ্যানঘ্যানে
বুকের দুধের কী দোষ! এত মড়ক!
শুধু একটা কাজ সাজানো প্রেমিক নয়।
জীবন যাপন ইচ্ছে কোলে বাচ্চা উনুন
সব মেরে ফেলতে পারি না; যদিও অনাহারে কেউ আত্মীয় হয় না।

শীত

শতেক কাজে মেঘের মতো
ওড়না থাকে বুকে
মেঘ সরলে মেঘবালিকা
আটকে একটা হুকে।
ফুটপাত সব দুর্লভ, যেন
আশ্রয়েরই দায়
নরম শীতে রোদ মেখেছি
আজকে এলো গায়।

মৃত্যু সংকলন

অন্ধকার ঘনালেই অসংখ্য সেনা নেমে আসে
এ সেনারা মানুষ না, চাবুকের আঘাত
অবাধে চলতে থাকে মস্তিষ্কের ভেতর,
এত প্রশ্ন কেনো? উফফ অসহ্য
আমি দায়বদ্ধ নই তোমাদের কাছে
হাতের সমস্ত রেখা সমান করে দেবো
কোন পথে পালাবে তুমি সৈনিক?
জ্ঞান জেগে ওঠার মজাই আলাদা
সমস্ত ব্যুহের পথ মিলছে শ্মশানে
সৈন্য তুমি নিপাত যাও, প্রশ্নের উত্তর
আমি দিতে বাধ্য নই। আজ থেকে
হোক অন্য জীবন আর মৃত্যু সংকলন।