মানসী সাহু র দুটি কবিতা

397
Advertisement

✒️কলমে: মানসী সাহু

Advertisement

বর্ষা রঙের ঝুল বারান্দা

Advertisement
Advertisement

যে কখনো পাহাড় দেখেনি
তাকে নিয়ে চলো বর্ষায়
ধাপে ধাপে সাজানো সবুজ পাতা
মৃদু সূর্য দহনে পাহাড়ী অঞ্জলী
দুকুল ছাপানো তিস্তার উত্তাল তরঙ্গ
দ্রিমি দ্রিমি মাদলের তাল পাশের লেপচা পাড়ায়।

মেঘেদের চুমু খাওয়ার দৃশ্য দেখাবো
কুয়াশা শরীরে সেগুন গাছের মাতন
আর বৃষ্টি ভেজাবে বস্ত্রহীন বিকেল।

যে পাহাড় দেখেনি
তাকে আনো শ্রাবণে
বৃষ্টিতে পাহাড় পেতে দেয় বুক
মেলে ধরে আনন্দ মেখলা।

যে পাহাড়ে কখনো আসেনি
তাকে শ্রাবণেই আনো।

….. … …..

মিথোজিবীদের গান

আমি বাঁচতে চাই মিথোজিবী হয়ে
ঠিক প্রবালের গায়ে জুক্সানথেলির মতো।
তোমার প্রতিটি শ্বাস নেওয়ার শব্দ
জানান দেয় আমার হৃদযন্ত্রের ওঠাপড়া
পাঁজরের নীচের বাম অলিন্দ
তোমার ডান অলিন্দ এর সাথে জুড়বো বলে অপেক্ষা-
তৈরি করতে চাই একটি নিরেট ভালোবাসা।
একাত্ম হতে চাই তোমার প্রোটোপ্লাজমে,আবেগে,বিষাদে
আর প্রতিটি আরোপিত অভিমানে।
পারবে তো?
নাকি মুঠো মুঠো বালি ছড়িয়ে তৈরি করবে তাকলা মাকান
ক্যাকটাসের মতন জলের অভাবে
পুরে দেবে শামুকের খোল
বিষণ্ণ রাত।

………………