বলপাইতে মৃত ব্যক্তির পরিবারেই আক্রান্ত ৬ জন, করোনা আক্রান্ত সৈনিক! ৬০ ছাড়িয়ে গেল সবং

3441

নিজস্ব সংবাদদাতা: কয়েকদিন আগেই টানা চার দিন জ্বরে ভুগে মৃত্যু হয়েছিল সবং থানার বলপাই গ্রামের মধ্যবয়স্ক ব্যক্তির। কবি ও সাহিত্যিক বলে খ্যাত সেই ব্যক্তির মৃত্যুতে শোকের আবহ তৈরি হয়ে সাহিত্য মনস্ক ব্যক্তিদের মধ্যে। বহু মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ায় শোক আর শ্রদ্ধা জানিয়ে নিজের সমবেদনা জ্ঞাপন করেছিলেন সবং পুত্রের উদ্দেশ্য। শুক্রবার সেই পরিবারেরই আরও ৬ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। ওই ব্যক্তির মৃত্যুর পরে কোভিড নিশ্চিত হওয়ায় ১৯তারিখ পরিবারের সমস্ত সদস্য সহ সংস্পর্ষে আসা ১১জনের নমুনা সংগ্ৰহ করা হয়েছিল যার মধ্যে ৬ জনের পজিটিভ বা করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

গত সোমবার মধ্যরাতে প্রায় অচেতন অবস্থায় ওই ব্যক্তিকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল ডেবরা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। ঘন্টা দুয়েক পরে মৃত্যু হয় তাঁর। কোনো পরীক্ষা ছাড়াই তাঁর দেহ ছেড়ে দেয় হাসপাতাল। পরিবার দেহ নিয়ে চলে আসে গ্রামের শ্মশানে। কিন্তু গ্রামের লোকেরা জানায় করোনা পরীক্ষার ফল ছাড়া দেহ শ্মশানে দাহ করা যাবেনা। এরপর পুলিশ মৃতদেহ আনার ব্যবস্থা করে সবং হাসপাতালে। সেখানেই আ্যন্টিজেন পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। দেহ প্রশাসনিক ব্যবস্থাপনায় সৎকার করা হয় এবং বাকিদের করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্ৰহ করা হয় যার মধ্যে এই ৬ জন পজিটিভ চিহ্নিত হলেন।

জানা গেছে মৃতদের মধ্যে ৩টি শিশু রয়েছে যার মধ্যে একজনের বয়স মাত্র ৪ মাস অন্য দুই শিশুর বয়স ৯ বছর। রয়েছে এক ১৪ বছরের কিশোর ও ৬৩ বছরের বৃদ্ধ। অন্য একজনের বয়স ২৩বছর। আক্রান্তদের মধ্যে লিঙ্গগত ভেদ সমান সমান। সবং ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক চিকিৎসক সুভাস কান্ডার জানিয়েছেন, ” এঁরা প্রত্যেকেই উপসর্গ হীন, কোনোও সমস্যা নেই। তাই হোম আইসলেশনেই থাকবেন এঁরা। স্বাস্থ্যকর্মীরা নজরদারি করবেন। কোনও সমস্যা হলে চিকিৎসকরা সহায়তা করবেন। যেহেতু এঁরা উপসর্গ হীন তাই অন্য কারোরই সমস্যা নেই।”

আরও পড়ুন -  আচমকা হুগলি নদীর বাঁধে ফাটল, আপাতত বন্ধ ডায়মন্ড হারবারে ১১৭ নম্বর জাতীয় সড়ক

অন্যদিকে সবংয়ে শুক্রবার আরেক করোনা আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে যিনি ভারতীয় সেনাবাহিনীর সদস্য। ক্রোরদা গ্রামের ২৬ বছরের ওই যুবকের কর্মক্ষেত্রে যোগ দেওয়ার সময় চলে আসায় তিনি সুস্থতার সার্টিফিকেট আনার জন্য সবং গ্রামীন হাসপাতালে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে নমুনা দিতে বলেন। জানা যায় তিনিও পজিটিভ। জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের হিসাব বলছে শুধুমাত্র আরটি/পিসিআর পরীক্ষায় সবংয়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬০ জন ছড়িয়ে গেল। এর বাইরে রয়েছে কয়েকটি আ্যন্টিজেন পজিটিভ। তাছাড়া সবংয়ের বাসিন্দা কিন্তু পেশাগত কারনে অন্য হাসপাতালে নমুনা দেওয়ার পর পজিটিভ এমন কয়েকটি মামলাও রয়েছেন।

আরও পড়ুন -  টার্গেট মিস করল কলাইকুন্ডার বায়ুসেনা, ভয়ংকর বিপদ থেকে রক্ষা পেল সাঁকরাইল

সবংয়ে তিন করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হলেও এঁদের কেউই আক্রান্ত অবস্থায় চিকিৎসাধীন ছিলেননা। দু’জন অসুস্থতার চূড়ান্ত পর্যায়ে হাসপাতালে আসেন এবং একজন বাড়িতে মারা যান। ২জনের মৃত্যুর পর পজিটিভ চিহ্নিত হয় আর একজনের চিহ্নিত হওয়ার আধঘন্টার মধ্যে শালবনী করোনা হাসপাতালে যাওয়ার পথে মৃত্যু হয়। ৬০জন আক্রান্ত হলেও ৪০ জনের বেশি ইতিমধ্যেই সুস্থ বা করোনামুক্ত। তাই জ্বর বা অন্য উপসর্গ দেখা দিলেই হাসপাতালে আসার জন্য বারবার অনুরোধ করছেন স্বাস্থ্য কর্তারা।

বলপাইতে মৃত ব্যক্তির পরিবারেই আক্রান্ত ৬ জন, করোনা আক্রান্ত সৈনিক! ৬০ ছাড়িয়ে গেল সবং 1