তিন মাস ব্যাঙ্কের লোন শোধ করতে হবেনা ব্যাঙ্কের ঘোষনার সু্যোগ নিয়ে আপনার অ্যাকাউন্ট ফাঁকা করে দিতে সক্রিয় প্রতারকরা।

415
Advertisement

ডিজিটাল ডেস্ক: স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া তাদের গ্ৰাহকদের কে সচেতন করেছে। যাতে তারা কোন ফোন কল অথবা মেসেজ এ ফাঁদে পা না দিয়ে কোন ওটিপি অন্য কিছু ডিটেলস যাতে শেয়ার না করে। যেহেতু দেশজুড়ে চলছে লকডাউন এবং এর ফলে সমস্ত অফিস কলকারখানা সমস্ত কিছুই প্রায় বন্ধ রয়েছে এবং এর ফলে মানুষের হাতে টাকা আসাও বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এর জন্য আরবিআই সমস্ত ব্যাংকের নির্দেশ দিয়েছিল যে আগামী তিনমাসের ই.এম.আই যাতে তারা গ্ৰাহকদের  কাছে না নেয় একেই কাজে লাগিয়েই শুরু হয়েছে নতুন প্রতারণা চক্র। সোমবার এরকমই একটি প্রতারনার শিকার হয়েছেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কোলাঘাট থানার যোগীবেড় গ্রামের শিপ্রা পাত্র। তিনি লোন করে একটি পিঙ্ক ক্যাব গাড়ি কিনে স্বনির্ভর হওয়ার চেষ্টা করছিলেন। সোমবার সকালে একটি ফোন আসে। একটি ব্যাংকের ম্যানেজারের পরিচয় দিয়ে ওই মহিলাকে বলা হয়, এই সময় লকডাউন চলছে এই পরিস্থিতি লোন পরিশোধ করতে হবেনা তবে তার জন্য তাঁর এটিএম এর নাম্বার পরিবর্তন করতে হবে তাহলেই আপনি বাড়িতে বসেই কিছু টাকাও পেয়ে যাবেন।

Advertisement

কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই এটিএম কার্ডের নাম্বার বলে দেয় এবং পরে একটি ওটিপি এলে সেটিও বলে দেয়। সঙ্গে সঙ্গে একাউন্ট থেকে দশ হাজার টাকা এবং পরবর্তী সময়ে আরও চার বারে মোট বারো হাজার আটশো টাকা অ্যাকাউন্ট থেকে চলে যায়। তমলুকের সাইবার ক্রাইম থানায় অভিযোগ করেছেন তিনি।

Advertisement
Advertisement

কিভাবে কাজ করছে প্রতারণা চক্র

সর্বপ্রথম প্রতারকরা আপনার ফোন নাম্বারে কল করছে আপনাকে কল করার পর আপনাকে বলা হচ্ছে যে আপনার তিন মাসের ইনস্টলমেন্ট আপনাকে দিতে হবে না এর জন্য শুধু আপনাকে একটি ওটিপি আপনার ফোনে আসবে যেটি ওদের কে দিতে হবে এবং তারপর আপনার ৩ মাসের জন্য ইন্সটলমেন্ট এ ছাড় দেওয়া হবে এবং ও.টি.পি দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে চলে যেতে পারে সমস্ত টাকা আপনার অ্যাকাউন্ট ‌থেকে।

স্টেট ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া জানিয়েছে যে তারা ০১-০৩-২০২০থেকে ৩১-০৫-২০২০   এর মধ্যে সমস্ত টার্ম লোনগুলির কিস্তি এবং সুদ / ইএমআই স্থগিত করার পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।  তদনুসারে ঋণ পরিশোধের সময়কাল মূল ঋণ পরিশোধের সময়কালের থেকে ৩ মাস বাড়ানো হবে।  এর জন্য তারা একটি টুইট করেছে এবং তাতে বলা হয়েছে যে তারা যেন কোনো প্রতারককেই ফোনকলে ওটিপি আথবা আন্য কোনো ডিটেলস শেয়ার না করে।এদিন এস বি আই এও বলে যে যদি কোন কাস্টমার ইনস্টলমেন্ট পেমেন্ট করে দিয়েছেন তিনি তার জন্য রিফান্ড চাইতে পারেন।