নন্দীগ্রামে ফের তৃনমূলের বিক্ষোভের মুখে শুভেন্দু অধিকারী! নিরাপত্তারক্ষীদের তৎপরতায় পালিয়ে বাঁচলেন বিজেপি নেতা

380
নন্দীগ্রামে ফের তৃনমূলের বিক্ষোভের মুখে শুভেন্দু অধিকারী! নিরাপত্তারক্ষীদের তৎপরতায় পালিয়ে বাঁচলেন বিজেপি নেতা 1

অশ্লেষা চৌধুরী: নন্দীগ্রামে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়লেন নন্দীগ্রামের ভূমিপুত্র বলে দিনরাত গলা ফাটানো শুভেন্দু অধিকারী। হাতে বাকি আর কয়েক ঘন্টা সময়, তাই সোমবার সকাল থেকেই নন্দীগ্রামের কোণা কোণা চষে ফেলছেন শুভেন্দু। একের পর এক সভা করেন। তবে একেবারে প্রচারের অন্তিম লগ্নে এসে বিক্ষোভের শিকার হলেন বিজেপি প্রার্থী! আশদতলায় শুভেন্দুর গাড়ির উপর হামলার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

এদিন বিকেলের দিকে আশদতলার সভা শেষ করে বেরনোর সময় শুভেন্দুকে উদ্দেশ্য করে তৃণমূল কর্মীরা তাঁকে কালো পতাকা দেখায় বলে অভিযোগ। সরু গলির মধ্যে দিয়েই শুভেন্দুর কনভয় যাচ্ছিল। তখনই দু’ দিক থেকে বিক্ষোভকারীরা কনভয় আটকানোর চেষ্টা করেন। কেউ কেউ শুভেন্দুকে নোংরা ভাষায় আক্রমণ করে বলেও অভিযোগ। এমনকি, শুভেন্দুর গাড়ির দিকে বিক্ষোভকারীরা এগিয়েও যান। শুধু তাই নয়, প্রাক্তন বিধায়কের গাড়ি ঘিরেও ধরেন তারা। সূত্রের খবর, স্থানীয় মানুষদের মধ্যে অনেকেই তৃণমূল সমর্থক ছিলেন। দলীয় পতাকা হাতেই কটূক্তি করতে দেখা যায় তাদের। সঙ্গে সঙ্গে গাড়ি থেকে নেমে পড়েন শুভেন্দুর নিরাপত্তারক্ষীরা। কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ান এবং পুলিশ বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দিতে গেলে তাঁদের সঙ্গে রীতিমতো ধস্তাধস্তি শুরু হয়ে যায়। বেশ কিছুক্ষণ ধস্তাধস্তির পর কেন্দ্রীয় বাহিনীর তৎপরতায় শুভেন্দু তাড়াতাড়ি বেরিয়ে যান তিনি। এই ঘটনায় তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।

নন্দীগ্রামে ফের তৃনমূলের বিক্ষোভের মুখে শুভেন্দু অধিকারী! নিরাপত্তারক্ষীদের তৎপরতায় পালিয়ে বাঁচলেন বিজেপি নেতা 2

একদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অন্যদিকে শুভেন্দু অধিকারী। এবারের নির্বাচনে কার্যত হাইভোল্টেজ লড়াই নন্দীগ্রামে। সকলের চোখ সেদিকেই আটকে। প্রথম দিন থেকেই নন্দীগ্রামের ভূমিপুত্র হিসাবে নিজেকে দাবী করে এসেছেন শুভেন্দু। এমনকি আজ সোমবারও সেই প্রসঙ্গ তুলে আনেন তিনি। প্রচার শেষে সেই নন্দীগ্রামেই আক্রান্ত হতে হল শুভেন্দু অধিকারীকে। তবে নন্দীগ্রামে এর আগে তৃণমূলের বিক্ষোভের মুখে পড়েছেন শুভেন্দু। গত কয়েকদিন আগেও ঝাঁটা হাতে শুভেন্দুকে তাড়া করেন মহিলারা। আর সেখানেই জিতবেন বলে আত্মবিশ্বাস শুভেন্দুর। তবে এদিন পুলিশের বিরুদ্ধে নিস্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলেছে বিজেপি। অভিযোগ, ইচ্ছাকৃতভাবেই তৃণমূল এভাবে লোককে সাজিয়ে শুভেন্দু অধিকারীর উপর আক্রমণ করাচ্ছে। আর তা জেনে বুঝেই পুলিশ চুপচাপ বলে দাবী বিজেপির।

এদিকে বহিরাগত ইস্যুতে ক্রমশই এই কেন্দ্রে বাড়ছে উত্তাপ। এদিন নন্দীগ্রামের সভা থেকে শুভেন্দুকে তীব্র আক্রমণ করেন মমতা। ওদিকে প্রচারে এসে মমতাকেও পাল্টা তোপ দাগেন শুভেন্দু। মমতার নাম না করেই তাঁকে বেগম বলে কটাক্ষ করতেও শোনা যায় শুভেন্দুকে।