জ্বর-শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র

112
জ্বর-শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র 1

ওয়েব ডেস্ক: জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র। জানা গিয়েছে, কয়েকদিন ধরেই জ্বর এবং শ্বাসকষ্ট থাকায় নিয়ে ভুগছিলেন তিনি। এরপর গত শুক্রবার মধ্য কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়। সোমবার রাতে অবস্থার অবনতি হলে সোমেনবাবুকে আইসিইউতে স্থানান্তরিত করা হয়। তবে আপাতত তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।

দীর্ঘদিন ধরেই হার্টের সমস্যায় ভুগছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র। সূত্রের খবর, গত শুক্রবার হঠাৎ জ্বর ও শ্বাসকষ্টের সমস্যা হওয়ায় তাঁকে কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর সোমবার রাতে রক্তে ক্রিয়েটিনিনের মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় তড়িঘড়ি তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। মঙ্গলবার সকালেও ফের তাঁর শারীরিক পরীক্ষা করা হয়েছে। আপাতত তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল থাকলেও ঝুঁকি পুরোপুরি কাটেনি। সে কারণে আপাতত তাকে আইসিইউতেই রাখা হবে।

জ্বর-শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র 2

তবে সোমেনবাবু করোনায় সংক্রমিত নন। হাসপাতালের নিয়ম অনুযায়ী তার করোনা পরীক্ষার করা হলে রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তবুও পুরসভার তরফে তাঁর চেম্বার স্যানিটাইজ করা হয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে জানানো হয়েছে, “সোমেন মিত্রের শ্বাসকষ্ট এবং শরীরে আরও বেশকিছু সমস্যা আছে। তাই ওনাকে এসিইউ থেকে আইসিইউ-তে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন চিকিৎসকরা। নিয়ম অনুযায়ী তাঁর করোনা পরীক্ষা করানো হয়েছে। প্রথম রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। ফের করোনা পরীক্ষা করা হবে। আপাতত তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল।”

আরও পড়ুন -  ফের করোনা বিস্ফোরণ IIT- KHRAGPUR ক্যাম্পাসে, তিন পরিবারেই আক্রান্ত ৭ জন! পারিবারিক সংক্রমন গোলবাজার, ওয়ালিপুরে! কোভিডের গ্রাফে নাস্তানাবুদ খড়গপুর

এবিষয়ে সোমেনবাবুর পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, তিনি বহুদিন থেকেই অসুস্থ। তাঁর ক্রিয়েটিনিনের মাত্রা বেড়ে যাওয়াটা নতুন কিছু নয়। এর আগে বহুবার তিনি এই অসুখ নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। আসলে বেশ কিছুদিন যাবত নিয়ম মতো শরীরচর্চা না হওয়ায় সমস্যা বেড়েছে। তাছাড়া খাওয়াদাওয়ার অনিয়মও রয়েছে। সাধারণত তিনি অসুস্থ হলে তাকে দিল্লি এইমস-এ ভর্তি করা হয়, কিন্তু যেহেতু এই মুহূর্তে দিল্লি নিয়ে যাওয়া সম্ভব নয় সেক্ষেত্রে তাকে বাইপাস লাগোয়া কলকাতার বেসরকারি হাসাপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির অসুস্থতার খবরে স্বাভাবিকভাবেই উদ্বিগ্ন রাজনৈতিকমহল।