বিপদমুক্ত মহারাজ! খাবার খেলেন, স্বস্তিতে ভক্তকুল

390
বিপদমুক্ত মহারাজ! খাবার খেলেন, স্বস্তিতে ভক্তকুল 1

নিউজ ডেস্ক: ভালো আছেন মহারাজ। এদিন বিকেল পাঁচটার মেডিক্যাল বুলেটিনে হাসপাতালের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক তথা বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় আপাতত স্থিতিশীল রয়েছেন। জ্ঞান ফিরেছে তাঁর। কথা–বার্তা বলছেন। হালকা খাবারও খেয়েছেন। সারাদিনের অস্বস্তির পর কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন দাদার ভক্তকূল। হাসপাতালের তরফে জানানো হল, অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টির পর আপাতত স্থিতিশীল আছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। আগামী ৪৮ ঘণ্টা তাঁকে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। তবে আরও ৪-৫ দিন হাসপাতালেই থাকতে হবে সবার প্রিয় দাদাকে।

বছরের দ্বিতীয় দিনে যে হঠাৎ এমন এক দুঃসংবাদ আসবে, তা হয়ত ভাবতে পারেননি কেউই। শনিবার সকালে জিমের সময় বুকে ব্যথা হয় প্রাক্তন ক্যাপ্টেন তথা বর্তমান বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের। ব্ল্যাক আউট হয়ে যান তিনি। মাথা ভারী হয়ে যায়। দ্রুত তাঁকে উডল্যান্ড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রাথমিকভাবে জরুরি বিভাগে ইকো কার্ডিওগ্রাফি, ইসিজি, বুকের এক্স–রে, অ্যাঞ্জিয়োগ্রাম করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। সেখানে দেখা যায়, সৌরভের হৃৎপিণ্ডে কিছু সমস্যা আছে। তিনটি ধমনীতে ব্লকেজ হয়েছে সৌরভের। তবে দ্রুত ডানদিকের ধমনীতে অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বসানো হয় স্টেন্ট।

বিপদমুক্ত মহারাজ! খাবার খেলেন, স্বস্তিতে ভক্তকুল 2

পরে বিকেলের দিকে উডল্যান্ড হাসপাতালের সিইও রূপালি বসু জানান, সকালে জিমের সময় হৃৎপিণ্ডে কিছু সমস্যা হচ্ছিল সৌরভের। মাথা ঘুরছিল। দ্রুত তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে আসার পর ইসিজি, ইকো কার্ডিয়োগ্রাফি করা হয়। তাতে হৃৎপিণ্ডে সামান্য পরিবর্তিত পরিলক্ষিত হয়। তারপর পাঁচ সদস্যের একটি মেডিক্যাল দল গঠন করা হয়েছে। সেই মেডিক্যাল দলের সদস্য তথা চিকিৎসক আফতাব খান জানান, আপাতত স্থিতিশীল আছেন সৌরভ। সকালে বুকে যেমন কষ্ট হচ্ছিল, এখন তা হচ্ছে না। আগের থেকে ইসিজি রিপোর্টও ভালো এসেছে।

হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে, প্রাথমিকভাবে যে ধমনী ব্লকেজের কারণে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন সৌরভ, সেটির অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করা হয়েছে। ডানদিকের ধমনীতে রক্তপ্রবাহ স্বাভাবিক হয়েছে। আরও দুটি ধমনীতে ব্লকেজ আছে। সেখানে সামান্য সমস্যা আছে। তা নিয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। বাইপাস সার্জারি করা হবে নাকি অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করা হবে, সে বিষয়েও কোনও এখনও কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি বলে হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে।
তবে চিকিৎসকের তরফে জানানো হয়েছে, দ্রুত হাসপাতালে চলে আসার কারণে পরিস্থিতি আরও জটিল হয়নি। ‘গোল্ডেন আওয়ার’-এর মধ্যেই হাসপাতালে পৌঁছানোর পর সৌরভের পরীক্ষা-নিরীক্ষা হওয়ায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে, আপাতত উঠে বসছেন সৌরভ। জ্ঞানও আছে তাঁর। রক্তচাপ ১৩০ এবং ৮০ আছে।

এদিন সন্ধ্যা ছ’টা নাগাদ সৌরভকে দেখতে উডল্যান্ডস হাসপাতালে যান মুখ্যমন্ত্রী। সঙ্গে ছিলেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা। দেখা করেন সৌরভের সঙ্গে। চিকিৎসকদের সঙ্গেও কথা বলেন। পরে হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে মমতা জানান, ‘সৌরভ ভালো আছেন। তিনি বলেন, ‘আমি যেটা দেখলাম, ভালো লাগছে। বিছানায় বসে হাসছে। নিজে বিছানায় শুয়ে আমায় জিজ্ঞাসা করছে, আপনার শরীর ঠিক আছে তো।‘ তিনি আরও বলেন, ‘সৌরভ ভালো আছে। তবে মাত্র ৪৮ বছরে সৌরভের মতো একজন ফিট প্রাক্তন খেলোয়াড়ের হৃৎপিণ্ডের সমস্যা হওয়ায় কিছুটা অবাক হয়েছেন মমতা।

মুখ্যমন্ত্রীর পাশাপাশি এদিন অসুস্থ সৌরভকে হাসপাতালে দেখতে গিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়, পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তাঁর সঙ্গেও কথা বলেছেন সৌরভ। সূত্রের খবর, আপাতত স্থিতিশীল আছেন মহারাজ।

Previous articleপ্রাচীর ছাড়িয়ে ৬৭বছর ! জঙ্গলমহলের অভিভাবক মৌপাল দেশপ্রাণ বিদ্যাপীঠের প্রাতিষ্ঠানিক সঙ্গীত প্রকাশ
Next articleহেঁসেলিয়ানা: বারবিকিউ চিকেন।। সুজাতা বন্দ্যোপাধ্যায়