“এবার বলিউড থেকে আমদানি শুরু করল” ফেসবুক পোস্টে আমিশা-মহিমাদের প্রচার নিয়ে ক্ষুব্ধ শ্রীলেখা মিত্র

182
"এবার বলিউড থেকে আমদানি শুরু করল" ফেসবুক পোস্টে আমিশা-মহিমাদের প্রচার নিয়ে ক্ষুব্ধ শ্রীলেখা মিত্র 1

নিউজ ডেস্ক:- পশ্চিমবঙ্গে একুশের ভোটের আগে টলিউডের বহু তারকা রাজনীতির ময়দানে নেমে পড়তে দেখা গিয়েছে।একদিকে তৃণমূলে যোগ দিয়ে প্রার্থী হয়েছেন রাজ চক্রবর্তী, সায়নী ঘোষ, সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, কৌশানি মুখোপাধ্যায়, কাঞ্চন মল্লিক। অন্যদিকে গেরুয়া শিবিরে নাম লিখিয়েছেন রুদ্রনীল ঘোষ, যশ দাশগুপ্ত, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, তনুশ্রী চক্রবর্তী, পায়েল সরকার এবং ‘মহাগুরু’ মিঠুন চক্রবর্তী। প্রার্থী না হলেও জেলায় জেলায় ঘুরে বিজেপির হয়ে প্রচার করেছেন মিঠুন। এদিকে ঘাসফুল শিবিরের হয়ে জনসভা করে চলেছেন দেব, নুসরত ও মিমিরা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে প্রচার করেছেন সমাজবাদী পার্টির নেতা জয়া বচ্চন। এমন পরিস্থিতিতে বামেদের হয়ে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন শ্রীলেখা।

"এবার বলিউড থেকে আমদানি শুরু করল" ফেসবুক পোস্টে আমিশা-মহিমাদের প্রচার নিয়ে ক্ষুব্ধ শ্রীলেখা মিত্র 2

বাংলার ভোটে বলিউড তারকারাও প্রচারের ময়দানে নেমে পড়েছেন। সোমবার পূর্বস্থলী দক্ষিণের তৃণমূল প্রার্থী স্বপন দেবনাথের হয়ে প্রচার করেন অভিনেত্রী আমিশা প্যাটেল।আমিশার আগে কামারহাটির তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্রর হয়ে প্রচার করেছিলেন মহিমা চৌধুরী। যিনি কিনা আবার সপ্তাহ খানেক বাদেই বিজেপি প্রার্থী সব্যসাচী দত্তর হয়ে ভোট চেয়েছিলেন। এতেই বেজায় ক্ষুব্ধ অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র।

"এবার বলিউড থেকে আমদানি শুরু করল" ফেসবুক পোস্টে আমিশা-মহিমাদের প্রচার নিয়ে ক্ষুব্ধ শ্রীলেখা মিত্র 3

শ্রীলেখা মিত্র মঙ্গলবার নিজের ফেসবুক পোস্টে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। অভিনেত্রী লিখেছেন, “নিন পরিবর্তন দেখুন।বাংলায় সেলিব্রিটিরা মানুষের জন্য কাজ করতে ব্যস্ত, বাকিরা আমরা পলিটিক্স বুঝি না বলে সূক্ষ্মভাবে এড়িয়ে যান। আর একাংশ এখন হ্যাশট্যাগ নো ভোট টু বিজেপি বলে ইঙ্গিতে তৃণমূলকে ভোট দিন এটাই বলতে চায়।তাই এবার বলিউড থেকে আমদানি শুরু করল তৃণমূল পার্টি। প্রথমে মহিমা এবার আমিশা যাঁদের কাছে যাহাই বাহান্ন তাহাই তিপ্পান্ন যে টাকা দেবে বেশি তাঁর হয়ে প্রচার।”

Previous articleভারতে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এ সবচেয়ে বেশি শিকার তরুণরা!
Next articleনিজের অ্যাপার্টমেন্টের ছবি দিয়ে অনুরাগীদের তাক লাগালেন শাহরুখ-কন্যা।