শিলিগুড়িতে এসটিএফের (STF)গোপন অভিযানে উদ্ধার কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা

300
শিলিগুড়িতে এসটিএফের (STF)গোপন অভিযানে উদ্ধার কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা 1

অশ্লেষা চৌধুরী: ট্রাংক খুলতেই বেরিয়ে এল কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা, আর তাই দেখে কার্যত চোখ কপালে উঠেছে রাজ্যের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স (STF)আধিকারিকদের। তাঁদের নিজস্ব সূত্রে পাওয়া খবরের ভিত্তিতে মাদক পাচারকারীদের পাকড়াও করতে শিলিগুড়ি শহরের দুটি এলাকায় অভিযান চালায় এসটিএফ এবং মাদক পাচারের টাকা উদ্ধার করতে গিয়েই রীতিমতো চক্ষু চড়ক গাছ এসটিএফ আধিকারিকদের।

জানা গিয়েছে, শুক্রবার রাতে শহরের দুই প্রান্তে এসটিএফের আইসি বিশ্বাশ্রয় সরকারের নেতৃত্বে দুটি পৃথক অভিযান চালায় স্পেশাল টাস্কফোর্স। প্রথম অভিযানটি শিলিগুড়ি পুরনিগমের ৪০ নম্বর ওয়ার্ডের আশরফনগরের ইসকন মন্দির রোডের একটি বাড়ীতে চালানো হয়। আর দ্বিতীয়টি শিলিগুড়ি সংলগ্ন ফুলবাড়িতে। আর সেখান থেকেই উদ্ধার হয় কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা, যা দেখে চক্ষু চড়কগাছ আধিকারিকদের।

শিলিগুড়িতে এসটিএফের (STF)গোপন অভিযানে উদ্ধার কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা 2

অভিযোগ ওঠে, মুর্শিদাবাদের তিনজন যুবক ইসকন মন্দির রোডের একটি বাড়ী ভাড়া নিয়ে মাদক পাচার এবং বিক্রির ব্যবসা জাঁকিয়ে বসেছিল। খবর পাওয়া মাত্রই এদিন রাতে অভিযান চালান এসটিএফ আধিকারিকরা। কিন্তু অভিযানের আগেই কোনওক্রমে খবর পেয়ে সেখান থেকে চম্পট দেয় অভিযুক্ত পাচারকারী। এরপর ঐ বাড়ীতে তল্লাশি চালালে লক্ষাধিক টাকার ব্রাউন সুগারের পাশাপাশি উদ্ধার হয় একটি টাকা গোনার মেশিন। মেশিনটি উদ্ধার হতেই সন্দেহ দানা বাঁধে এসটিএফ আধিকারিকদের মনে। এরপর সেই বাড়ীতে চলে চিরুনি তল্লাশি। তল্লাশি চালাতে গিয়ে বাড়ীর একটি পরিত্যক্ত ঘর চোখে পরে আধিকারিকদের। সেই ঘরের একটি ভাঙা খাটের নীচ থেকে উদ্ধার হয় একটি ট্রাঙ্ক, আর ট্রাঙ্ক খুলেই বাকরুদ্ধ হয়ে যান আধিকারিকেরা। ট্রাঙ্ক থেকে বেরিয়ে আসে কারি কারি টাকা; টাকার অংক ১৭ লক্ষ ২৫ হাজার।

জানা যায় বিগত কয়েক মাস ধরেই মুর্শিদাবাদের ওই যুবকরা লালগোলা থেকে উন্নত মানের ব্রাউন সুগার এনে ইসকন মন্দির রোডে সাপ্লাই দিত। আর মাদক বিক্রি করার সেই টাকা যাতে কেউ বুঝতে বা খুঁজে পেতে না পারে সেজন্য মাটির মধ্যে বাক্সবন্দি করে পুঁতে রাখত। আর এদিন অভিযানে নেমেই সেই বিপুল পরিমাণ অর্থের হদিশ পেলেন এসটিএফ আধিকারিকেরা। তবে টাকা ও মাদক উদ্ধার হলেও পলাতক অভিযুক্তরা। অভিযুক্তদের উদ্দেশ্যে খোঁজ শুরু করেছে এসটিএফ।

অপরদিকে এদিন শিলিগুড়ি সংলগ্ন ফুলবাড়ীতে অভিযান চালায় এসটিএফ। অভিযানে উদ্ধার হয়েছে ৫২টি সিম, দেড় লক্ষ টাকা এবং বেশ কিছু মোবাইল। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে একটি চারচাকা গাড়িও। অভিযোগ, ধৃতরা সাইবার ক্রাইমের সঙ্গে জড়িত। উপভোক্তাদের ফোন করে এটিএম কার্ডের নম্বর হাতিয়ে টাকা লুঠ করত। এই অভিযানে ধরা পড়ে যায় অপরাধীরা। গ্রেফতার করা হয় সনু কুমার এবং সঞ্জয় নামে দুজন ব্যক্তিকে। দুজনেই হরিয়ানার বাসিন্দা। ধৃতরা গুয়াহাটি থেকে কলকাতার দিকে যাচ্ছিল। ধৃতদের শনিবার আদালতে তোলা হবে। প্রতীকি ছবি

Previous articleমধ্যবিত্তের চিন্তা কমিয়ে ফের কিছুটা কমল সোনার দাম
Next article৩ দিনের ধর্মঘটে বাস মালিকদের ৫টি সংগঠন! চরম দুর্ভোগের মুখে যাত্রী পরিষেবা