অনুমোদন দিল বস্ত্র মন্ত্রক ! ভারত সরকারের ক্যাবিনেট মন্ত্রী তুল্য পদে শুভেন্দু অধিকারী

370
অনুমোদন দিল বস্ত্র মন্ত্রক ! ভারত সরকারের ক্যাবিনেট মন্ত্রী তুল্য পদে শুভেন্দু অধিকারী 1

অশ্লেষা চৌধুরী: পদ্ম শিবিরে যোগদানের তিন সপ্তাহের মধ্যেই কেন্দ্রীয় পদ পেলেন শুভেন্দু অধিকারী। জুট কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়ার চেয়ারম্যান করা হল প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ককে। বস্ত্রমন্ত্রকের প্রস্তাবে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার নিয়োগ কমিটি তা অনুমোদন করে। এ প্রসঙ্গে সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী অল্প দিনের মধ্যে আমাকে ভরসা করেছেন, আমি কৃতজ্ঞ।‘

তবে কেন্দ্রীয় পদ প্রাপ্তি নিয়ে শুভেন্দুকে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি শাসকদল। দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘ওরা দেখাতে চাইছে পুরনো কর্মীরা নয়, নতুনরা এলে সোনার সিংহাসন দেবে। শুভেন্দু যদি ভুল করে থাকে, তার দায়িত্ব তাঁকে নিতে হবে। উনি তো ছিলেন এতদিন পদে।‘

অনুমোদন দিল বস্ত্র মন্ত্রক ! ভারত সরকারের ক্যাবিনেট মন্ত্রী তুল্য পদে শুভেন্দু অধিকারী 2

পদ্ম শিবিরে যোগ দেওয়ার পর থেকেই নিজের পুরনো দলকে একের পর এক বাক্যবাণে বিঁধেছেন শুভেন্দু। পাশাপাশি দুই মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামে বিজেপির একের পর এক কর্মসূচিতে দেখা যাচ্ছে তৃণমূলের প্রাক্তন বিধায়ককে। বুধবার মানস ভুঁইয়ার খাসতালুক সবংয়ে দাঁড়িয়ে তৃণমূল সাংসদকে আক্রমণ করেন তিনি। শুভেন্দুর দাবী, বিজেপির জন্য হাওড়ায় জেতেন প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়। বলেন, গত বিধানসভা ভোটে সূর্যকান্ত মিশ্রর হাত ধরে প্রচার করেন মানস ভুঁইয়া, বিজেপি প্রার্থী প্রত্যাহার না করলে প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় ২৩ হাজার ভোটে জিততে পারতেন না। কটাক্ষের সুরে তিনি বলেন, ‘ফুটো নৌকায় জল ঢুকছে, আমি তার আগে নেমে পড়েছি।‘

তবে তাঁর এহেন কটাক্ষের জবাব দিতে ছাড়েনি তৃণমূল। পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘আমরা ব্যক্তি আক্রমণে কখনও যাইনি, শূন্য কলসি বেশি বাজছে, একই কথা বলে চলেছেন। গ্রহণ করছে না মানুষ।‘

বুধবার সবংয়ের সভা থেকে ফের তৃণমূলকে হঠানোর ডাক দেন শুভেন্দু অধিকারী। বলেন, আমফানে দুর্নীতি, প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার কাটমানি খেয়েছে, প্রতারক সরকারকে উৎখাত করতে হবে, কোন অসুখে কোন ওষুধ দিতে হয় আমরা ভালভাবে জানি।‘

এখানেও তাঁকে কড়া ভাষায় জবাব দিয়েছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘এতদিন থাকলেন কেন ? এতদিন ভোগ করব, এখন বলব ভোগ করছি না। দল বদলুদের কেউ ভালো চোখে দেখে না। আসলে নন্দীগ্রাম, মেদিনীপুরের মানুষ তার পাশে নেই। তাই এসব করতে হচ্ছে।‘
প্রসঙ্গত, পদ্ম শিবিরে যোগদানের আগের দিনেই অর্থাৎ ১৮ই ডিসেম্বর ২০২০ শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের পক্ষ থেকে শুভেন্দু অধিকারীকে ‘জেড’ ক্যাটগরির নিরাপত্তা প্রদানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বুলেটপ্রুফ গাড়ি সহ তাঁর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকছেন সিআরপিএফ জওয়ানরা। এমনকি পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া অন্য রাজ্যে গেলেও সেখানে ‘ওয়াই’ ক্যাটেগরির নিরাপত্তা বরাদ্দ হয় শুভেন্দুর জন্য।