শুভেন্দুর সভার আগেই উত্তপ্ত খেজুরি, সভায় যাওয়ার পথেই আক্রান্ত একাধিক বিজেপি নেতা-কর্মী

346
শুভেন্দুর সভার আগেই উত্তপ্ত খেজুরি, সভায় যাওয়ার পথেই আক্রান্ত একাধিক বিজেপি নেতা-কর্মী 1

অশ্লেষা চৌধুরী: শুভেন্দুর সভার আগেই উত্তপ্ত খেজুরি। খেজুরি ও দক্ষিণ কাঁথির মাজনায় বিজেপি কর্মী সমর্থকদের ওপর হামলার অভিযোগ, আক্রান্ত বেশ কয়েকজন নেতা-কর্মী।

শুভেন্দুর সভার আগেই উত্তপ্ত খেজুরি, সভায় যাওয়ার পথেই আক্রান্ত একাধিক বিজেপি নেতা-কর্মী 2

গতকাল র‍্যালিতে পড়েছিল আদলা ইট, মিছিল লক্ষ্য করে ধেয়ে এসেছিল একের পর এক ইট। আর আজ সেই শুভেন্দুর সভার আগে দু’জায়গায় বিজেপির ওপর হামলার অভিযোগ উঠল। বিজেপির দাবী, তাঁদের নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা যখন শুভেন্দুর সভায় যাচ্ছিলেন, সেই সময় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতিরা খেজুরি ও দক্ষিণ কাঁথির মাজনায় হামলা চালায়। দলের মণ্ডল সভাপতি-সহ বেশ কয়েকজন কর্মী আহত হয়েছেন। যদিও হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

শুভেন্দুর সভার আগেই উত্তপ্ত খেজুরি, সভায় যাওয়ার পথেই আক্রান্ত একাধিক বিজেপি নেতা-কর্মী 3

আজ পুরুলিয়ায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জনসভার পাল্টা জনসভা রয়েছে শুভেন্দুর। খেজুরির হেঁড়িয়াতে সভা শুভেন্দু অধিকারীর। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয় ও সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়ও এই সভায় উপস্থিত থাকবেন।

আর সেই সভার আগেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে খেজুরি। সভায় যাওয়ার পথে দু জায়গায় বিজেপি নেতা-কর্মীদের ওপর তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতিদের হামলা চালানোর অভিযোগ ওঠে। ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বিজেপি। বিজেপির এক নেতা বলেন, শাসকদল সন্ত্রাস সৃষ্টির চেষ্টা চালাচ্ছে। ব্যাপকভাবে খেজুরি বারাতলায় গোলাগুলি চলছে, ১০ হাজার মানুষ তাই আটকে আছে, পুলিশ নিরবাক দর্শকের ভূমিকা পালন করছে। অপরদিকে অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূলের দাবী, এখানে তৃণমূলকে কলুষিত করার চেষ্টা চলছে, মিথ্যা কথা, এখানে বিজেপি নামক কোন বস্তু নেই, সব বিজেপির সাজানো। মানুষকে ভুল বোঝানোর চেষ্টা করছে বিজেপি। কিন্তু খেজুরিতে তা চলবে না।‘

এদিকে সোমবার শুভেন্দুর র‍্যালিতে হামলার ঘটনায় টালিগঞ্জ থানায় দায়ের করা হয় অভিযোগ। বিজেপি ও তৃণমূল দু পক্ষই পরস্পরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে। সোমবার টালিগঞ্জ ট্রামডিপো থেকে রাসবিহারী পর্যন্ত রোড শো করেন সদ্য বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। রোড শো চালানোর অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। সোমবার বিকেলে টালিগঞ্জ ট্রাম ডিপো থেকে শুরু করে রাসবিহারী অ্যাভেনিউর উদ্দেশ্যে রওনা হয় শুভেন্দু অধিকারীর মিছিল। সঙ্গে ছিলেন বঙ্গ বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। কিন্তু সেই মিছিল পিএসসি ভবনের কাছে পৌঁছতেই রাস্তার ওপার থেকে ধেয়ে আসে একের পর ইট। আধলা ইট নিয়ে ছোঁড়া হয় বিজেপির মিছিলে।

অভিযোগ, মিছিল চলাকালীন রাস্তার অপর প্রান্ত থেকে বিকৃত অঙ্গভঙ্গি করা হয় এবং তৃণমূলের পতাকা হাতে কয়েকজন মিছিল লক্ষ্য করে ইট ছোঁড়ে। এরপরেই বিজেপি সমর্থকদের ধৈর্যের বাঁধ ভাঙ্গে; তাদের পক্ষ থেকেও চলে পাল্টা ইট বৃষ্টি। চলে বাইক ভাংচুর। পুরো ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। তার প্রেক্ষিতেই টালিগঞ্জ থানায় পরস্পরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে তৃণমূল ও বিজেপি।

Previous articleগাব্বায় ভারতে ঐতিহাসিক জয়, তরুণ খেলোয়াড়দের দাপটে ছিটকে গেল অস্ট্রেলিয়া
Next articleপল্টু ডাকাতের হাত থেকে রক্ষা পেতেই গোয়ালতোড়ের তুতবাড়িতে সন্ন্যাসী বাবার পুজারম্ভ